মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
মঙ্গলবার, ৮ অক্টোবর ২০১৩, ২৩ আশ্বিন ১৪২০
ছবিতে আমার চরিত্রটি চরিত্রহীন ছিল -শাহেদ আলী
সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে অমিত আশরাফ পরিচালিত চলচ্চিত্র ‘উধাও’। ছবিটি এখন পর্যন্ত সাতটি আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছে। এ ছবিতে একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন শাহেদ আলী। ছবিটি নিয়ে টেলিফোনে আলাপন বিভাগে কথা হয় তাঁর সঙ্গে

‘উধাও’ ছবিতে কাজ করার অভিজ্ঞতা কেমন...
শাহেদ আলী : অভিজ্ঞতা তো আছেই, এছাড়া দর্শকদের ওপরও কিছুটা অভিজ্ঞতার দায়ভার আছে। আমি সাধ্যমতো চেষ্টা করেছি আমার চরিত্রটাকে ফুটিয়ে তুলতে। এখন দর্শক যদি ছবিটি দেখে আমাকে প্রণোদনা দেয়, তাহলে অভিজ্ঞার পরিম-ল আর বাড়বে।
ছবিতে আপনার চরিত্রটি কেমন...
শাহেদ আলী : ছবিতে আমার চরিত্রটি চরিত্রহীন ছিল। আমি একজন স্কুল ভ্যান চালক। আমার নাম বাবু। শহরের একজন ধনী ও প্রভাবশালী ব্যক্তিকে অপহরণের বিষয়কে নিয়েই ছবিটির গল্প। আমার ভয় ছিল, চরিত্রটাকে ঠিক রূপ দিতে পারব কি না। একটা চ্যালেঞ্জিং ডিরেকশনও ছিল। সব মিলিয়ে স্ক্রিনে দেখে মোটামুটি পাস পেয়েছি বলে মনে হচ্ছে।
একজন দর্শক হিসেবে ছবিটি কেমন মনে হয়েছে...
শাহেদ আলী : প্রশ্নটা অত্যন্ত কঠিন। আমি বিভিন্ন হলে গিয়ে এবং লোকমুখে শুনে অবাক হয়েছি। আমি ভাবতেই পারিনি দর্শক এভাবে রিএ্যাক্ট করবে। আমি তাদের সঙ্গে তাল মেলাতে বাধ্য হয়েছি।
এছাড়া আর কোন্ কোন্ ছবিতে অভিনয় করছেন?
শাহেদ আলী : আমি আকরাম খানের ‘খাঁচা’ ছবিতে অভিনয় করেছি। ভারতের নির্মাতা গৌতম ঘোষের একটি ছবিতে কাজ করার কথা চলছে। এর আগে গৌতম ঘোষের ‘মনের মানুষ’ ছবিতে আমি লালনের মুরিদের চরিত্রে অভিনয় করেছি। এছাড়া এন রাশেদ চৌধুরীর একটি ছবিতে কাজ করব।
ঈদের ও ধারাবাহিক নাটকের ব্যস্ততা কেমন?
শাহেদ আলী : এবার ঈদের নাটকে তেমন কাজ করছি না। সাগর জাহানের ‘সিকান্দার বক্স’ এবং অরণ্য আনোয়ায়ের ‘অপেক্ষার সুরঞ্জনা’ নাটকে অভিনয় করেছি। এছাড়া গিয়াস উদ্দিন সেলিমের একটি নাটক ও অনন্য ইমনের একটি নাটকে কাজ করছি। ধারাবাহিক তো কয়েকটি চ্যানেলে যাচ্ছে। এগুলো হলো- এনটিভিতে আলী ফিদা একরাম তোজোর ‘অঘটনঘটনপটীয়সী’, বাংলা ভিশনে অরণ্য আনোয়ারের ‘কর্তা কাহিনী’, এটিএন বাংলায় মাতিয়া বানু সুকু ও যুবরাজ খানের ‘প্রজ্ঞা পারমিতা’, মাছরাঙায় আতিক জামানের ‘ইউনিভার্সিটি’ ও এসএ টিভিতে রাজু ভাইয়ের ‘চুপ কথা’।
মঞ্চে শাহেদ আলীর খবর বলুন...
শাহেদ আলী : অনেক দিন মঞ্চে উঠতে পারছি না। প্রাচ্যনাটের সঙ্গে আমি যেসব প্রোডাকশনে কাজ করেছি, সেগুলো এখন মঞ্চায়ন হচ্ছে না।
-গৌতম পাণ্ডে
বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমিনকে নিয়ে তথ্যচিত্র ‘সূত্রপাত’
স্টাফ রিপোর্টার ॥ বীরশ্রেষ্ঠ মোহাম্মদ রুহুল আমিনের জীবন কাহিনী নিয়ে তৈরি হচ্ছে তথ্যচিত্র ‘সূত্রপাত’। স্বাধীনতা যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে দেশের ভাগ্য পরিবর্তনে জীবন বিসর্জন দিয়েছেন তিনি। তিনি গত হয়েছেন অনেক বছর হলো। স্বামীনকামী এই বীরশ্রেষ্ঠ সৈনিকের পরিবার পার করছে কঠিন সময়। দারিদ্র্যের কশাঘাতে চলছে তার বর্তমান প্রজন্ম। তাঁর পরিবারের বর্তমান অবস্থাসহ বীরশ্রেষ্ঠের জীবন কাহিনী উঠে আসবে এ তথ্যচিত্রে। আর এটি নির্মাণ করছেন ওমর আল নিয়াজ। এর আগে এই তরুণ নির্মাতা পরিচালনা করেছেন ভালবাসার গল্গ নিয়ে নাটক ‘জীবনের সমুদ্র সফেন’ এছাড়াও তিনি পথশিশুদের নিয়ে ‘চাই না করুণা’ শিরোনামে একটি গানের ভিডিও পরিচালনা করেছেন। ২৩ অক্টোবর থেকে নোয়খালীতে সূত্রপাত তথ্যচিত্রের শূটিং শুরু হবে।
এই তরুণ নির্মাতার স্বপ্ন সূত্রপাতের মাধ্যমে ’৭১-এর মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে জাগ্রত করা এবং বীরশ্রেষ্ঠ মোহাম্মদ রুহুল আমিনের জীবনের গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা ফুটিয়ে তোলা। নতুন প্রজন্মকে বাংলার শ্রেষ্ঠ সন্তানদের সম্পর্কে অবহিত করার লক্ষ্যে ভবিষ্যতে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক আরও কাজ করার আগ্রহ রয়েছে বলে তিনি জানান।
শাকিব খানের ৪ ছবি
স্টাফ রিপোর্টার ॥ সাত দিনের ঈদ আয়োজনে প্রতিদিন একটি করে মোট সাতটি পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র প্রচার করবে মাছরাঙা টেলিভিশন। যার মধ্যে সর্বোচ্চ চারটি ছবির নায়ক শাকিব খান। ছবিগুলো হলো, সাফি ইকবাল পরিচালিত ‘ও সাথীরে’, শাহাদাত হোসেন লিটন পরিচালিত ‘বলো না কবুল’, পিএ কাজল পরিচালিত ‘স্বামী স্ত্রীর ওয়াদা’ এবং শাহীন সুমন পরিচালিত ‘মন যেখানে হৃদয় সেখানে।’ ‘বলো না কবুল’ ও ‘স্বামী স্ত্রীর ওয়াদা’ ছবিতে তাঁর নায়িকা শাবনূর, ‘ও সাথীরে’ ছবিতে পূর্ণিমা এবং ‘মন যেখানে হৃদয় সেখানে’-ছবিতে অপু বিশ্বাস। এ চারটি ছাড়া ঈদে মাছরাঙার বাকি তিনটি ছবি হলো, গিয়াসউদ্দিন সেলিম পরিচালিত ‘মনপুরা’, রাজু চৌধুরী পরিচালিত ‘আমার মা আমার অহংকার’ এবং এফআই মানিক পরিচালিত ‘মায়ের মতো ভাবি।’ ঈদের দিন থেকে প্রতিদিন সকাল ১০টায় প্রচারিত হবে ছবিগুলো।

দুরন্ত’র যাত্রা শুরু
স্টাফ রিপোর্টার ॥ সম্প্রতি যাত্রা শুরু করল নতুন ব্যান্ডদল ‘দুরন্ত’। ব্যান্ডের মূল ভোকাল হিসেবে রয়েছেন জনপ্রিয় মিউজিক কম্পোজার রাকিব মোসাব্বির। এছাড়া ব্যান্ড ম্যানেজার হিসেবে রয়েছেন নাট্যকার-গীতিকার রেজাউর রহমান রিজভী। ‘দুরন্ত’ ব্যান্ড সম্পর্কে রাকিব মোসাব্বির বলেন, দীর্ঘদিন ধরেই একটি ব্যান্ডদল গড়ার ইচ্ছে ছিল। এবার সেই ইচ্ছেটারই বাস্তবরূপ দিলাম। আমাদের ব্যান্ডের গানগুলো হবে রক-মেলোডি প্যার্টানের। ফলে শ্রোতার গতানুগতিক ধারার বাইরে ভিন্ন একটা ফ্লেভার পাবেন। ব্যান্ড ম্যানেজার রিজভী বলেন, আমরা মূলত টিভি শো ও ওপেন এয়ার কনসার্টে লাইভ পারফর্ম্যান্স করব। দুরন্ত ব্যান্ডের বর্তমান লাইনআপ হলো : রাকিব মোসাব্বির (ভোকাল ও কি-বোর্ড), রানা আকন্দ (লিড গিটার), আদর রহমান মিঠু (বেজ গিটার), আলনূর পাবেল (ড্রামস) ও রেজাউর রহমান রিজভী (ব্যান্ড ম্যানেজার)।
যাত্রাদল নিবন্ধনে চতুর্থ যাত্রা উৎসব শুরু হচ্ছে আজ
স্টাফ রিপোর্টার ॥ যাত্রাশিল্প উন্নয়ন নীতিমালা-২০১২ বাস্তবায়ন ও যাত্রাদল নিবন্ধনের ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমীর উদ্যোগে আজ মঙ্গলবার থেকে শুরু হচ্ছে বিশেষ যাত্রা প্রদর্শনী। চার দিনব্যাপী এ প্রদর্শনীতে অংশগ্রহণ করবে দেশের ২০টি যাত্রাদল। শিল্পকলা একাডেমীর জাতীয় নাট্যশালার এক্সপেরিমেন্টাল থিয়েটার হলে প্রতিদিন বেলা ১১টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত ৫টি দলের প্রদর্শনী হবে। উদ্বোধনী দিনে যে কয়টি দল অংশগ্রহণ ও পালা পরিবেশিত হবে তা হলো জয়যাত্রা অপেরা (আনারকলি), কাজল অপেরা (ভিখারীর ছেলে), সেবা যাত্রা ইউনিট (আপন দুলাল), খুলনা যাত্রা ইউনিট (জীবন নদীর তীরে) ও সীমা অপেরা (আলমতি প্রেমকুমার)। যাত্রাদল নিবন্ধনের এর আগে ৩টি উৎসব অনুষ্ঠিত হয়। প্রথম উৎসব অনুষ্ঠিত হয় এ বছরের ১৯ জানুয়ারি, দ্বিতীয় উৎসব ৯ মার্চ এবং তৃতীয় উৎসব অনুষ্ঠিত হয় ১৯ জুন। আগামী ১১ অক্টোবর এ উৎসব শেষ হবে।
লরেন্সের গোপন রহস্য
সংস্কৃতি ডেস্ক ॥ অস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী জেনিফার লরেন্স। ২০০৮ সালে ‘গার্ডেন পার্টি‘ ছবিতে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে হলিউডে তার যাত্রা শুরু। মাত্র ২৩ বছর বয়সেই তিনি সেরা অভিনেত্রী হিসেবে অস্কারসহ বিশ্বের সম্মানজনক পুরস্কার নিজের ঝুলিতে পুরেছেন। কম বয়সে এমন প্রতিভা পাওয়ার খুব মুশকিল। হলিউডের বিস্ময়কে অনেকে তার মোটা শরীরের জন্য ক্ষেপাত। এতে তিনি কিছুটা বির্মষই ছিলেন। কিন্তু সেই ক্ষেপানোর দিন শেষ করে এনেছেন তিনি। শরীর থেকে বাড়তি মেদ ঝেড়ে ফেলেছেন। আর এ জন্য তাঁকে কঠোর সাধনার মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে বলে তিনি হলিউডের একটি পত্রিকাকে জানিয়েছেন। হাঙ্গার গেমসের মাধ্যমে তুমুল জনপ্রিয়তা পাওয়া এই অভিনেত্রী শরীর থেকে মেদ ঝরাতে কয়েক মাস ছবির শূটিংও বন্ধ করে দিয়েছিল বলে জানিয়েছেন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, কেউ কেউ আমাকে মোটা বলত আর এতে আমি ক্ষেপে যেতাম। কিন্তু পরে ভেবে দেখলাম গ্ল্যামার্স হওয়ার জন্য বাড়তি মেদ আসলেই বিরক্তিকর। তাই আমি কঠোর ডায়েটিং ও শারীরিক কসরত করে শরীর থেকে বাড়তি মেদ ঝরিয়ে ফেলেছি। হলিউডের এই অভিনেত্রীর ২০১৩ সালে মুক্তি পেয়েছে ‘সিলভার লিভিং প্লেবুক’ নামের একটি ছবি। আর মুক্তির তালিকায় রয়েছে অনেক ছবি। এর মধ্যে ‘হাঙ্গার গেমস’ সিরিজের ‘দ্য হাঙ্গার গেমস : মোকিংজায় পার্ট-১’ও রয়েছে।
ঈদে আসছে আসিফ-ন্যান্সির ঝগড়ার গান
স্টাফ রিপোর্টার ॥ আর্ব এন্টারটেইনমেন্টের ব্যানারে ঈদ স্পেশাল হিসেবে প্রকাশ পাচ্ছে আসিফ-ন্যান্সির প্রথম দ্বৈত এ্যালবাম ‘ঝগড়ার গান’। এর মধ্যে মনোয়ার হোসেন টুটুলের সুরে আহমেদ কিসলুর সঙ্গীতায়োজনে ১০টি মৌলিক গান রয়েছে। বোনাস ট্র্যাক হিসেবে থাকছে মানাম আহমেদের সঙ্গীতায়োজনে হেমন্ত মুখোপাধ্যায়ের বিখ্যাত দু’টি গান ‘এই রাত’ এবং ‘আয় খুকু আয়’। এ্যালবামে স্থান পাওয়া অন্য গানগুলোর শিরোনাম হলো এমন- ‘ঠিকানা’, ‘পথ’, ‘প্রতিশ্রুতি’, ‘ভালোবাসা’, ‘অবুঝ খেলা’, ‘ঝগড়ার গান’, ‘অনুভবে’, ‘পাখি’, ‘একলা’ ও ‘ঋণী’। গানগুলো লিখেছেন বাকিউল আলম, কবির বকুল, প্রদীপ সাহা, রাজীব আহমেদ ও রবিউল ইসলাম জীবন। ‘ঝগড়ার গান’ প্রসঙ্গে আসিফ বলেন, ন্যান্সিকে নিয়ে এটা আমার প্রথম প্রজেক্ট। আমাদের শুরুটা ঝগড়া দিয়ে। আশা করছি, এই ঝগড়ার গান শুনে শ্রোতারা মজা পাবেন। এ্যালবামটি প্রকাশ পাচ্ছে ১২ অক্টোবর। ডিজিটালি আসছে গ্রামীণফোনের ব্যানারে আর ফিজিক্যালি প্রকাশ করছে আর্ব এন্টারটেইনমেন্ট। প্রসঙ্গক্রমে আসিফ বলেন, আর্ব এন্টারটেইনমেন্ট এখন সঙ্গীতভিত্তিক সামাজিক ব্যবসায় পরিণত হয়েছে। এই ব্যানার থেকে আমরা প্রতিমাসে ন্যূনতম দুটি করে এ্যালবাম প্রকাশ করার পরিকল্পনা হাতে নিয়েছি। যে এ্যালবামগুলোর প্রতিটি অংশীদার রয়্যালটি ভিত্তিতে কাজ করবেন। সেই ধারাবাহিকতায় এবার প্রকাশ পাচ্ছে ‘পূজা স্পেশাল’ ও ‘ঝগড়ার গান’। এই ব্যানার থেকে আগামীর জন্য রেকর্ড চলছে ডলি সায়ন্তনী, ন্যান্সি ও শশীর সঙ্গে দ্বৈত এ্যালবামের গান।