মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
শুক্রবার, ২২ এপ্রিল ২০১১, ৯ বৈশাখ ১৪১৮
বিস্ময়কর বাড়ি
নওগাঁ জেলা সদর থেকে ২৫ কিলোমিটার দূরে মহাদেবপুর উপজেলা। এখান থেকে প্রায় ১৩ কিলোমিটার ভেতরে আলীপুর গ্রাম। নাম-পরিচয় অজানা এ গ্রামেই রয়েছে দেশের বড় বাড়িগুলোর একটি। আজ থেকে প্রায় ২৭/২৮ বছর আগের কথা। গ্রামের দু'ভাই শমসের আলী ম-ল ও তাহের উদ্দীন ম-ল একটি বিশাল বাড়ি তৈরির উদ্যোগ নেন। তাদের একমাত্র বোন মাজেদাও এ সময় তাঁদের সঙ্গে ছিলেন। পেশায় কৃষক হলেও নিজেদের শখ পূরণ করতে পিছপা হননি দু'ভাই। শখের বসেই তাঁরা প্রতিদিন গড়ে ১০০ শ্রমিক কাজে লাগিয়ে নির্মাণ করেন ১০৮ কুঠুরির এই বাড়ি। নির্মাণ কাজের সময় শ্রমিকদের খাওয়ার জন্য প্রতিদিন ৩ মণ চালের ভাত লাগত। ইট-কাঠ-পাথরের নয়, পুরো বাড়ি তৈরি হয়েছে এঁটেল মাটি দিয়ে। এঁটেল মাটির স্থায়িত্ব এবং এলাকায় সহজে পাওয়ার কারণেই নির্মাণ কাজে এ মাটি ব্যবহার করা হয়। মাটির প্রয়োজন মেটানোর জন্য বাড়ির পাশে খনন করা হয় বিশাল পুকুর। ১৫০ হাত লম্বা দ্বিতল বাড়িটিতে টিন লেগেছে প্রায় ২০০ বান্ডিল। লম্বায় যাই হোক চমকে দেবার মতো বিষয় হলো বাড়িটিতে ঘরের সংখ্যা। ১০৮টি ঘরের কোনটিই একেবারে ছোট নয়। প্রত্যেকটি ঘরেই রয়েছে ৩টি জানালা আর ১টি দরজা। তবে বেশ কিছু ঘরে ৪/৫টি করেও দরজা আছে। সেই হিসেবে বিশালাকার বাড়িটির জানালা-দরজার কোন সুনিদিষ্ট হিসেব নেই। এই বিশাল বাড়িটিতে প্রবেশের জন্য রয়েছে ১১টি সদর দরজা। এই দরজাগুলোর যে কোন একটি দিয়েই বাড়ির ভেতরে ঢোকা সম্ভব।