মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
শুক্রবার, ২৫ নভেম্বর ২০১১, ১১ অগ্রহায়ন ১৪১৮
আলোর গতিই সবচেয়ে বেশি
নতুন গবেষণায় প্রকাশ
আলোর চেয়ে বেশি গতিমান প্রাথমিক কণা পাওয়ার দাবি প্রত্যাখ্যান করেছে বিজ্ঞানীদের একটি আন্তর্জাতিক দল। তাদের পরীক্ষায় প্রমাণিত হয়েছে দাবিটি ভুল ছিল। প্রকাশিত এক নিবন্ধে আগের দাবি নাকচ করেছেন এই বিজ্ঞানীরা। এর আগে চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে ইতালির গ্রান স্যাসো গবেষণাগারের 'অপেরা' (ওপিইআরএ) এঙ্পেরিমেন্টের সঙ্গে জড়িত বিজ্ঞানীরা দাবি করেছিলেন, সুইজারল্যান্ডের সার্ন গবেষণাগার থেকে গ্রান স্যাসোতে তাদের কাছে পাঠানো নিউট্রিনো (প্রাথমিক কণা) , স্রোতের যে গতি তারা রেকর্ড করেছেন আলোর গতি থেকে তা ৬০ ন্যানোসেকেন্ড কম সময়ে পৌঁছেছে। গ্রান স্যাসোর বিজ্ঞানীদের আকস্মিক এ আবিষ্কারের ঘোষণায় সত্মম্ভিত হয়ে পড়ে পুরো বিজ্ঞান বিশ্ব। তাদের দাবি সঠিক হলে আলবার্ট আইনস্টাইনের রিয়েলিটিভিটি বিষয়ক ধারণা এবং আধুনিক পদার্থ বিজ্ঞানের একটি বিরাট অংশ ভুল প্রতিজ্ঞার ওপর দাঁড়িয়ে আছে বলে প্রমাণিত হতো।
আন্তর্জাতিক বিজ্ঞানীদের ওই দলটি সার্ন থেকে ইতালিতে পাঠানো নিউট্রিনোগুলোর বাকি অংশ নিয়ে আগের পরীক্ষাটি আবার করেন। ইতালির জাতীয় পদার্থবিজ্ঞান ইনস্টিটিউটের তত্ত্বাবধানে 'ইকারুস' নামে গ্রান স্যাসোতে আর একটি এঙ্পেরিমেন্টে আন্তর্জাতিক বিজ্ঞানী দল নিউট্রিনোর গতিবেগে 'অপেরা' গবেষণায় রেকর্ড করা গতিবেগের মতো কিছু পাননি। ইকারম্নস দলের গবেষণায় পাওয়া ফল ২৩ নবেম্বর ওই একই ওয়েবাসাইটে প্রকাশ করা হয় যেখানে অপেরা গবেষণার ফল প্রকাশ হয়েছিল। প্রকাশিত নিবন্ধে ইকারম্নসের গবেষকরা দাবি করেছেন, তাদের প্রাপ্ত ফলাফলে আলোর গতির চেয়ে বেশি গতিতে চলমান নিউট্রিনোর সন্ধান পাওয়া যায়নি।
তুষান খান
সূত্র : সায়েন্স ডেইলি