মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
সোমবার, ১৬ মে ২০১১, ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪১৮
বিনিয়োগকারীদের আস্থা ফিরিয়ে আনাই প্রথম কাজ
এসইসি চেয়ারম্যান পদে যোগদানের পর ড. খায়রুল হোসেন
অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ সিকিউরিটিজ এ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (এসইসি) নবনিযুক্ত চেয়ারম্যান ড. খায়রম্নল হোসেন বলেছেন, বিনিয়োগকারীদের আস্থা ফিরিয়ে একটি স্থিতিশীল পুঁজিবাজার গড়ে তোলাই হবে তাঁর মূল লক্ষ্য। রবিবার বিকেলে এসইসিতে যোগদানের পর সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।
ড. খায়রুল হোসেন বলেন, 'পুঁজিবাজারে স্থিতিশীলতা ফিরিয়ে আনাই এই মুহূর্তে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কাজ। এজন্য বিনিয়োগকারীদের আস্থা ফিরিয়ে আনতে প্রয়োজনীয় পদৰেপ নেয়া হবে। একইসঙ্গে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করে পুঁজিবাজারকে শক্তিশালী করার বিষয়ে গুরুত্ব প্রদান করা হবে।'
এসইসির নতুন চেয়ারম্যান বলেন, 'পুঁজিবাজার একটি বিশাল জায়গা। এখানে কাজ করতে হলে সকলের সহযোগিতা দরকার। আমরা প্রথমত স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করা এবং দ্বিতীয়ত বিনিয়োগকারীদের মধ্যে আস্থা ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করব।'
বাজার সংশিস্নষ্ট সকলের উদ্দেশে তিনি বলেন, 'আসুন আমরা একসঙ্গে মিলে একটি স্থিতিশীল পুঁজিবাজার গঠনের চেষ্টা করি, যে বাজার দেশের অর্থনীতির বিকাশে সহযোগিতা করবে। একই সঙ্গে বিনিয়োগকারীদের মাঝে যাতে আস্থা ফিরে আসে সে ব্যাপারে সচেষ্ট হই। আমাদের সবার সহযোগিতায় একটি স্বচ্ছ, গতিশীল ও শক্তিশালী পুঁজিবাজার গড়ে তুলি। এছাড়া নিয়ন্ত্রক সংস্থা হিসেবে এসইসির স্বচ্ছতা জবাবদিহিতা আরও নিশ্চিত হোক।'
খায়রম্নল হোসেন আরও বলেন, 'বাজার সংশিস্নষ্ট সকলের অংশগ্রহণে আমরা যেন পুঁজিবাজারকে আমাদের অর্থনীতির ভিত মজবুত করার জন্য ব্যবহার করতে পারি। আমরা যাতে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে গঠনমূলক পথে জাতীয় অর্থনীতির ভিত মজবুত করার জন্য পুঁজিবাজারকে উৎপাদনশীল খাতে অর্থায়নের উৎস হিসেবে কাজে লাগানোর ব্যবস্থা করতে পারি।'
পুঁজিবাজার বিকশিত করার লক্ষ্যে যেসব নিয়ম রয়েছে তার ভিত্তিতে কাজ করা এবং প্রয়োজনে সরকারের বিভিন্ন পক্ষের সঙ্গে কথা বলে কোন আইন সংশোধনের মাধ্যমে পুঁজিবাজার বিকাশের জন্য সচেষ্ট হবেন বলে জানান তিনি।
বিনিয়োগকারীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, 'আপনারা যাতে প্রতাড়িত না হন এবং বাজার যাতে মৌলভিত্তির ওপর থাকে, সে বিষয়ে এসইসি সচেষ্ট থাকবে।'
এজন্য এসইসির পৰ থেকে সচেতনতামূলক কর্মসূচী হাতে নেয়া হবে এবং বাজার যাতে মৌলভিত্তির ওপর থাকে সে ব্যাপরে চেষ্টা করা হবে বলে তিনি জানান।
তিনি আরও বলেন, কোন রকম পৰপাতিত্ব ছাড়া পুঁজিবাজার সংশিস্নষ্ট সকলের জন্য সমান সুযোগ সৃষ্টি করা হবে। এৰেত্রে এসইসির কাছে সবাই সমান মর্যাদা পাবে। এ সময় এসইসি সদস্য হেলালউদ্দীন নিজামী উপস্থিত ছিলেন।