মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
বৃহস্পতিবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৩, ২৮ ভাদ্র ১৪২০
ইসির সার্বিক নির্বাচনী প্রস্তুতিতে ইইউএর সন্তোষ প্রকাশ
স্টাফ রিপোর্টার ॥ আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে নির্বাচন কমিশনের সার্বিক প্রস্তুতিতে সন্তোষ প্রকাশ করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। বুধবার নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে বৈঠক করে বাংলাদেশ সফররত ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতিনিধি দল। সকাল সাড়ে ৯টায় শুরু হয় বৈঠক। এক ঘন্টা বৈঠক শেষে প্রতিনিধি দলের প্রধান উইলিয়াম হানা সাংবাদিকদের বলেন, আগামী নির্বাচনের সার্বিক বিষয় নিয়ে কমিশনের সঙ্গে ফলপ্রসূ আলেচনা হয়েছে। আমরা বিশ্বাস করি নির্বাচনের জন্য কমিশন প্রস্তুত রয়েছে। নির্বাচন প্রস্তুতি সবকিছু ঠিকতো এগোচ্ছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।
বৈঠক শেষে প্রধান নির্বাচন কমিশনার সাংবাদিকদের বলেন, রাজনৈতিক দলের সমঝোতার উদ্যোগ কমিশনের পক্ষ থেকে না নেয়া ভাল। রাজনীতিকরা জনগণের ভাল বোঝেন। তাঁরা জানেন জনগণ কি চায়। এ বিষয়ে রাজনৈতিক দলগুলো সিদ্ধান্ত নেবে। তিনি বলেন, নির্বাচনে কমিশন রেফারির ভূমিকা পালন করে। কমিশনের দায়িত্ব হলো ভোটবাক্সের নিশ্চয়তা প্রদান করা। সেখানে কে জিতল আর কে হারলো সেটা কমিশনের দেখার বিষয় নয়।
প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেন, ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে নির্বাচনের কারিগরি সহায়তাসহ সার্বিক বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে। তারা কমিশনের বিভিন্ন প্রকল্পে সাহায্য দিয়ে থাকে। নির্বাচনের সময় পর্যবেক্ষকের ভূমিকা পালন করে। নির্বাচনের পর্যবেক্ষক পাঠানোর বিষয় নিয়ে তাদের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ৪৫ দিন আগে তফসিল ঘোষণা করা হবে। নির্বাচনের তারিখ ঘোষণার পরই আন্তর্জাতিক সংস্থার নির্বাচনী পর্যবেক্ষনের জন্য আমন্ত্রন জানানো হবে। কারণ নির্বাচনে দেশী বিদেশী সংস্থার বিশাল একটি অংশ পর্যবেক্ষন করে থাকে। তারা দেখবে কিভাবে এখানে নির্বাচন অনুষ্ঠত হচ্ছে। আমরা কেবল ইইউ নয়, দেশী পর্যবেক্ষকদেরও গুরুত্ব দিয়ে থাকি। মিডিয়াকেও গুরুত্ব দেই। আমরা চাই সবার অংশগ্রহণে নির্বাচন হোক। হানা বলেন, ইসির সঙ্গে আমাদের অনেক বছর ধরে বিভিন্ন প্রকল্প নিয়ে কাজ চলছে। এগুলোর ধারাবাহিকতা ও তাদের কার্যক্রম নিয়ে আমরা সন্তুষ্ট। তবে নির্বাচন কীভাবে হবে, দেশের প্রধান দুই রাজনৈতিক দলের দূরত্ব ঘোঁচাতে সংলাপ আয়োজনে ইইউ ভূমিকা রাখবে কি না জানতে চাইলে বিষয়টি এড়িয়ে যান হানা।