মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
মঙ্গলবার, ৩ সেপ্টেম্বর ২০১৩, ১৯ ভাদ্র ১৪২০
আবুল মনসুর আহমদের জন্মবার্ষিকী আজ
আজ ৩ সেপ্টেম্বর আবুল মনসর আহমদের ১১৫তম জন্মবার্ষিকী। উপমহাদেশের বিশিষ্ট সাহিত্যিক, সাংবাদিক, আইনজ্ঞ ও রাজনীতিবিদ আবুল মনসুর আহমদ ছিলেন স্বাধীন বাংলাদেশের অন্যতম স্বপ্নদ্রষ্টা।
এই উপলক্ষে আবুল মনসুর আহমদ স্মৃতি সংসদ ঢাকা ও ময়মনসিংহের ধানীখোলায় তাঁর পৈত্রিক বাসভবনে এক দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেছে।
বাংলা সাহিত্যের অন্যতম শ্রেষ্ঠ বিদ্রপ্নাত্মক রচয়িতা আবুল মনসুর আহমদ ছিলেন একাধারে একজন প্রখ্যাত রাজনীতিবিদ, আইনজ্ঞ ও সাংবাদিক। তিনি কৃষক ও নবযুগ পত্রিকায় কাজ করেছেন এবং ১৯৪৬-এ অবিভক্ত বাংলার কলকাতা থেকে প্রকাশিত ইত্তেহাদে সম্পাদক ছিলেন। তিনি ছিলেন আধুনিক ও প্রগতিশীল সাংবাদিকতার এক অগ্রপথিক।
অত্যন্ত সফল রাজনীতিবিদ আবুল মনসুর আহমদ, শের-এ-বাংলা একে ফজলুল হকের ১৯৫৪ সালের যুক্তফ্রন্ট সরকারের প্রাদেশিক শিক্ষামন্ত্রী ছিলেন এবং ১৯৫৭ সালে প্রধানমন্ত্রী হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর আওয়ামী লীগ সরকারে ছিলেন কেন্দ্রীয় বাণিজ্য ও শিল্পমন্ত্রী। পূর্ববাংলার স্বার্থের সপক্ষে শক্ত অবস্থান ও নানাবিধ উদ্যোগের জন্য, বিশেষ করে শিল্পায়নের ক্ষেত্রে তাঁর সুনাম রয়েছে।
তাঁর রচনা সম্ভারের মধ্যে রয়েছে বিখ্যাত বিদ্রুপাত্মক গ্রন্থাবলী-আয়না, আসমানী পর্দা, গালিভারের সফরনামা ও ফুড কনফারেন্স। আরও রয়েছে বাংলার সামাজিক ও রাজনৈতিক ইতিহাসের ওপর বিখ্যাত রচনাবলী। তাঁর আত্মজীবনীমূলক দুটি গ্রন্থ হচ্ছে—- আত্মকথা ও আমার দেখা রাজনীতির পঞ্চাশ বছর।
আবুল মনসুর আহমদ চল্লিশ পঞ্চাশ ও ষাট-এর দশকজুড়ে সবসময় ধর্মনিরপেক্ষতার সপক্ষে যে প্রচারণা চালিয়েছেন তার তুলনা হয় না। পাকিস্তানের প্রথম দিকে বিরোধীদলীয় আন্দোলনে তাঁর অবদান ছিল অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। তিনি ছিলেন আওয়ামী লীগের প্রথমদিকের একজন নেতা।
চল্লিশের দশকের প্রথম থেকেই তিনি ভাষা বিষয়ে লিখে আসছিলেন এবং ইত্তেহাদের সম্পাদক হিসেবে ভাষা আন্দোলনে তাঁর অবদান রাখেন। রাজনৈতিক কার্যকারণে আবুল মনসুর আহমদকে পঞ্চাশের দশকের শেষ দিকে ও ষাটের দশকের প্রথম দিকে জেনারেল আইউব খানের সামরিক শাসনামলে বেশ কয়েকবার কারাবরণ করতে হয়। আবুল মনসুর আহমেদ উপমহাদেশের প্রখ্যাত রাজনীতিবিদের মধ্যে একজন, যিনি রাজনীতি, সাংবাদিকতা এবং সাহিত্য রচনা এই তিন জ্ঞানের অপূর্ব সমন্বয় ঘটিয়েছিলেন।
বাংলা একাডেমী আবুল মনসুর আহমদ রচনাসমগ্র-এর তিন খ- প্রকাশ করেছে। আরও তিন খ- প্রকাশিতব্য রয়েছে। -বিজ্ঞপ্তি।