মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
বৃহস্পতিবার, ১৭ জানুয়ারী ২০১৩, ৪ মাঘ ১৪১৯
মূল আসামি রাজু গ্রেফতার
সাভারে গণধর্ষণ
স্টাফ রিপোর্টার ॥ সাভারের কলেজছাত্রীকে গণধর্ষণের ঘটনায় মূল আসামি জাহিদুল ইসলাম রাজুকে (২২) গ্রেফতার করেছে ঢাকা জেলা পুলিশ। ঢাকা জেলা পুলিশের একটি দল বরগুনা জেলা থেকে রাজুকে গ্রেফতার করে। ইতোপূর্বে গ্রেফতার হওয়া ৫ জনকে নিয়ে এ মামলায় ৬ জন গ্রেফতার হলো।
গত ১৩ জানুয়ারি জাহিদুলকে বরগুনা জেলা থেকে গ্রেফতার করে ঢাকা জেলা পুলিশের একটি দল। বুধবার দুপুর ৩টায় ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে রাজুকে হাজির করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার হাবিবুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন ও শ্যামল কুমার মুখার্জী উপস্থিত ছিলেন। পুলিশ সুপার হাবিবুর রহমান জানান, ভিকটিম সাভারের একটি কলেজের ছাত্রী। তার সঙ্গে সাভার বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র জাহেদ ওরফে রাজুর মোবাইল ফোনে সম্পর্ক হয়। এরই প্রেক্ষিতে ভিকটিমকে ২৫ নবেম্বর সাভার থানার ব্যাংক কলোনি এলাকার একটি মেসে নিয়ে যায় কয়েক ধর্ষক। এ সময় ভিকটিমকে গণধর্ষণ করে ধর্ষণের ভিডিও চিত্রও ধারণ করে রাজু ও তার বন্ধুরা। পরে রাজু ওই ভিডিও চিত্রটি তার বন্ধু দানেশকে দেয়। দানেশ ভিডিও চিত্রটি ভিকটিমের মায়ের কাছে দিয়ে প্রকাশ করার ভয় দেখিয়ে মোটা অঙ্কের চাঁদা দাবি করে। দাবির টাকা না দিলে ভিডিওটি বাজারে ছেড়ে দেয়া হবে বলে হুমকি দেয়া হয়।
এ ব্যাপারে ভিকটিমের মা বাদী হয়ে গত ৩ জানুয়ারি সাভার থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশের চলমান সাঁড়াশি অভিযানে ইতোপূর্বে মানিকগঞ্জ জেলার সিংগাইর থানাধীন এলাকা থেকে আসাদুজ্জামান দানেশ (৩৫), ভিকটিমের বান্ধবী লিজা ওরফে সূচী (১৮), রায়হান (২২), মহিদুর রহমান (২০) এবং ওয়াসিমকে (২৩) গ্রেফতার করে। তাদের বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ডে নেয়া হয়েছে। রিমান্ডে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতেই জাহিদুল ইসলাম রাজুর বরগুনায় তার খালু রিপনের বাড়ি থেকে গ্রেফতার হয়।