মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
সোমবার, ১৬ মে ২০১১, ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪১৮
বাস ভাড়া নিয়ে বচসা, মারধর_ না'গঞ্জে তুলকালাম
স্টাফ রিপোর্টার, নারায়ণগঞ্জ ॥ নারায়ণগঞ্জে বাসের ভাড়া নিয়ে সৃষ্ট তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাকিব হোসেন (৩০) নামের এক যুবককে বেধড়ক মারধর করেছে একটি পরিবহন মালিক সমিতির নেতা ও যুবলীগ নামধারী সন্ত্রাসীরা। আশঙ্কাজনক অবস্থায় ওই যুবককে শহরের খানপুর ২শ' শয্যাবিশিষ্ট নারায়ণগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। রবিবার দুপুরে শহরের খানপুরে অবস্থিত শীতলক্ষ্যা পরিবহনের কাউন্টারে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর শহরের আমলাপাড়া ও খানপুর এলাকাবাসী মুখোমুখি হয়ে পড়লে সহকারী পুলিশ সুপার আশ্রাফুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
প্রত্যক্ষদশর্ীরা জানায়, রবিবার দুপুরে আমলাপাড়া এলাকার রাজু মিয়ার ছেলে রাকিব হোসেন ও তার কয়েক সহযোগী শীতলক্ষ্যা পরিবহন বাসে ওঠার তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বাসের সুপারভাইজারের সঙ্গে বাকবিত-ার ঘটনা ঘটে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে রাকিব ও তার সহযোগীরা সুপারভাইজার সিদ্দিককে মারধর করে। সুপারভাইজার সিদ্দিককে মারধরের খবর পেয়ে শীতলক্ষ্যা পরিবহনের শ্রমিকরা রাকিবকে ধরে গণপিটুনি দিয়ে শহরের খানপুরের শীতলক্ষ্যা পরিবহনের অফিসে নিয়ে আটকে রাখে।
সেখানে শীতলক্ষ্যা পরিবহনের পরিচালক ও যুবলীগ ক্যাডার জিলস্নুর রহমান লিটন ওরফে বোটকা লিটন ও তার সহযোগীরা মিলে রাকিবকে বেধড়ক মারধর ও পিটুনি দেয়। এতে সে গুরম্নতর আহত হয়। এদিকে রাকিবকে আটকে রাখার খবর পেয়ে আমলাপাড়া থেকে অর্ধশত এলাকাবাসী তাকে উদ্ধারে খানপুরে ছুটে গেলে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। ওই সময় উভয় এলাকাবাসীর মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার আশ্রাফুল ইসলাম, সদর মডেল থানার ওসি আকতার হোসেন, ওসি (তদনত্ম) আবদুর রাজ্জাকসহ বিপুল সংখ্যক পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শানত্ম করেন।
শীতলক্ষ্যা পরিবহনের পরিচালক ও যুবলীগ ক্যাডার জিলস্নুর রহমান লিটন ওরফে বোটকা লিটন জানান, রাকিব নামের এক যুবক বিনে পয়সায় বাসে ওঠার সময়ে সিদ্দিক নামের এক সুপারভাইজার বাধা দেয়। এ সময় তাকে মারধর করে রাকিব। পরে রাকিবকে অন্য পরিবহনৃ শ্রমিকেরা আটকে রাখে। খবর পেয়ে সে (লিটন) রাকিবকে উদ্ধার করেন।