মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
সোমবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০১১, ২ ফাল্গুন ১৪১৭
বাংলাদেশে মাতৃমৃত্যু হ্রাস পেয়েছে ॥ জরিপ রিপোর্ট
স্টাফ রিপোর্টার ॥ মাতৃমৃত্যু হ্রাসে বাংলাদেশ তাৎপর্যপূর্ণ অগ্রগতি অর্জন করেছে। বাংলাদেশ মাতৃমৃতু্য ও স্বাস্থ্য সেবা জরিপ (বিএমএমএস) ২০১০-এর প্রাথমিক রিপোর্টে এ অগ্রগতির চিত্র ফুটে উঠেছে। বিএমএমএস ২০০১-এ মাতৃমৃতু্যর হার যেখানে প্রতি লাখে ৩২২ ছিল, তা এখন ১৯৪-তে নেমে এসেছে। আগামী এক মাসের মধ্যে মেডিক্যাল শিৰকদের পদোন্নতির ব্যবস্থা করার দাবি জানিয়েছেন বাংলাদেশ মেডিক্যাল এ্যাসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ। তাঁরা বিভিন্ন সত্মরের শিক্ষক পদে কর্মরত চিকিৎসকদের দীর্ঘদিন পদোন্নতি না হওয়ায় হতাশা ও অসনত্মোষ ব্যক্ত করেন।
রবিবার রাজধানীর একটি হোটেলে বিএমএমএস ২০১০ রিপোর্ট প্রকাশ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী ডাঃ আ ফ ম রম্নহুল হক। অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর স্বাস্থ্য ও সমাজকল্যাণ উপদেষ্টা অধ্যাপক ডাঃ সৈয়দ মোদাচ্ছের আলী, স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. ক্যাপ্টেন (অব) মজিবুর রহমান ফকির, স্বাস্থ্য সচিব মুহম্মদ হুমায়ুন কবির, জাতীয় জনসংখ্যা গবেষণা ও প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠানের (নিপোর্ট) মহাপরিচালক কে সি ম-ল প্রমুখ।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী মাতৃমৃতু্য হ্রাসে বাংলাদেশের এ অগ্রগতিকে সরকার, উন্নয়ন সহযোগী সংস্থাসমূহ, এনজিও ও বেসরকারী সংস্থা প্রতিষ্ঠানের সংশিস্নষ্ট সকল কর্মীর সম্মিলিত প্রয়াসের ফল হিসেবে উলেখ করেন। জরিপের রিপোর্টে জানানো হয়, এখন পরিণত বয়সের নারীদের মোট মৃতু্যর শতকরা ১৪ ভাগ মৃতু্য হচ্ছে মাতৃমৃতু্য এবং মাতৃমৃতু্যর প্রধানতম দুটি কারণ হচ্ছে রক্তক্ষরণ ও খিঁচুনি।
এদিকে, পরে সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রীর সঙ্গে বাংলাদেশ মেডিক্যাল এ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) এর নেতৃবৃন্দ সাক্ষাত করেন।