মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
বুধবার, ১৩ মার্চ ২০১৩, ২৯ ফাল্গুন ১৪১৯
আজ সুপ্রীমকোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচন
আরাফাত মুন্না ॥ সুপ্রীমকোর্ট আইনজীবী সমিতির ২০১৩-১৪ সালের কার্যনির্বাহী কমিটির দু’দিনব্যাপী নির্বাচন শুরু হচ্ছে আজ বুধবার। সকাল ১০টায় ভোট গ্রহণ শুরু হয়ে মাঝে বিরতি দিয়ে আগামীকাল বৃহস্পতিবার বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত চলবে। নির্বাচনে ১৪টি পদের বিপরীতে ৩৪ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। প্রতিবারের মতো এবারেও সরকার সমর্থক (সাদা) ও বিএনপি-জামায়াত সমর্থক (নীল) আইনজীবীদের প্যানেলের প্রার্থীরাই মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন। এবারের নির্বাচনে উভয়পক্ষই জয়ী হওয়ার আশা প্রকাশ করেছেন। এ নির্বাচনে দু’প্যানেলই জয়ী হতে জোরালোভাবে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।
সুপ্রীমকোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের প্রর্থী আবদুলাসেত মজুমদার ও মোঃ রবিউল আলম বুদু নেতৃত্বাধীন পরিষদকে ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন ওই নির্বাচনে মনোনয়ন প্রত্যাহারকারী সভাপতি প্রার্থী আব্দুল মতিন খসরু। মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে তিনি এ আহ্বান জানান। মোবাইল ফোনে এসএমএস করে সম্পাদক পদের প্রার্থিতা প্রত্যাহারকারী মোমতাজ উদ্দিন আহমেদ মেহেদীও বাসেত-বুদু পরিষদের পক্ষে ভোট চেয়েছেন। এর ফলে সরকার সমর্থক প্যানেল জয়ী হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন সরকার সমর্থক আইনজীবীরা। তাঁরা বলেছেন, সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের নেতৃবৃন্দ ঐক্যবদ্ধ হয়ে সরকার সমর্থক প্যানেলের পক্ষে প্রচারনায় অংশ নেয়ায় সরকার সমর্থক আইনজীবীদের ভোট দিতে কোন সমস্যা থাকবে না।
নির্বাচনের আগের দিনে মঙ্গলবার উভয় প্যানেলের কর্মীরাই নিজেদের প্রর্থীদের পক্ষে জোরালো প্রচার চালিয়েছে। নির্বাচনকে কেন্দ্রকরে সুপ্রীমকোর্ট আইনজীবী সমিতি এলাকায় সাজ সাজ ভাব বিরাজ করছে। সুপ্রীমকোর্ট এলাকায় আগত আইনজীবীদের মধ্যে উৎসবের ভাব বিরাজ করছে। ভোটগ্রহণের জন্য ইতোমধ্যে ৩২টি বুথও তৈরি করা হয়েছে। এবারের নির্বাচনে ৪ হাজার ৪৫ ভোটার রয়েছেন।
এ বিষয়ে সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের নেতা ব্যারিস্টার এম আমীর-উল ইসলাম জনকণ্ঠকে বলেন, ‘আমি আশাবাদী সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের প্যানেল (সাদা) বিজয়ী হবে। আমি এবং আব্দুল বাসেত মজুমদার এক সঙ্গে ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দেব’।
বিএনপি-জামায়াতপন্থী প্যানেলের (নীল) সম্পাদক প্রার্থী ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন জনকণ্ঠকে বলেন, ‘আমরা জয়ী হব। আমাদের পূর্ণ প্যানেলই জয়ী হবে।’
মতিন খসরুর বিবৃতি ॥ সুপ্রীমকোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের পক্ষে আবদুল বাসেত মজুমদার ও মোঃ রবিউল আলম বুদু পরিষদকে ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন ওই নির্বাচনে মনোনয়ন প্রত্যাহারকারী সভাপতি প্রার্থী আব্দুল মতিন খসরু। মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে তিনি এই আহ্বান জানান।
বিবৃতিতে মতিন খসরু বলেন, সুপ্রীমকোর্ট আইনজীবী সমিতি নির্বাচনে সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের পক্ষে আমার নেতৃত্বে একটি প্যানেল হয়েছিল। কিন্তু মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষ শক্তির ঐক্যের স্বার্থে আমরা পুরো প্যানেল স্বেচ্ছায় আমাদের মনোনয়পত্র প্রত্যাহার করেছি। এরপরও অনেকের মাঝে সংশয় রয়ে গেছে। আমি অত্যন্ত স্পষ্ট ভাষায় বলছি, এই সময়ে বিভাজনের কোন অবকাশ নেই। তাই আবদুল বাসেত মজুমদার এবং মোঃ রবিউল আলম বুদু পরিষদকে নির্বাচিত করতে আমি সকলের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।
সাদা ও নীল প্যানেল ॥ সমন্বয় পরিষদের বাসেত-বুদু প্যানেলে সহ-সভাপতির দুটি পদে শেখ আওসাফুর রহমান ও সারওয়ার আহমেদ, কোষাধ্যক্ষ পদে মোঃ আমির হোসেন এবং সহ-সম্পাদক পদে মোঃ সুজা আল ফারুক ও মোহাম্মদ আলী আজম প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সদস্য পদে এই প্যানেলের ৭ প্রার্থী হলেন- মোঃ হাবিবুর রহমান হাবিব, গৌরাঙ্গ চন্দ্র কর, মোঃ আনোয়ার হোসেন রেজা, আয়েশা ফ্লোরা, হোসনেয়ারা বেগম বাবলী, আবুল কালাম আজাদ, জহিরুল ইসলাম ভূঁইয়া।
অপরদিকে, জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য পরিষদের পক্ষে সভাপতি পদপ্রার্থী এজে মোহাম্মদ আলী, সম্পাদক পদপ্রার্থী সংসদ সদস্য খোকন। এই প্যানেলে সহ-সভাপতির দুটি পদে এ বি এম ওয়ালিউর রহমান খান, মোঃ শাহজাদার নাম ঘোষণা করা হয়েছে। সহ-সম্পাদকের দুটি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন এবিএম রফিকুল ইসলাম রাজা এবং মোহাম্মদ সাইফুর রহমান। বিএনপি-জামায়াতপন্থী এই প্যানেলের সাত সদস্য প্রার্থী হলেন- আঞ্জুমান আরা বেগম, ফাতেমা খাতুন, মোহাম্মদ মিজানুর রহমান মাসুম, মোঃ আলমগীর হোসেন, মোঃ কামরুজ্জামান সেলিম, মোঃ তাজুল ইসলাম মজুমদার ও মোঃ ওয়াহিদুজ্জামান সোহেল।
চূড়ান্ত প্রার্থী ৩৪ জন ॥ সুপ্রীমকোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে ১৪টি পদের জন্য চূড়ান্তভাবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৩৪ প্রর্থী। এর মধ্যে সভাপতি পদে চার জন হলেন, আবদুল বাসেত মজুমদার, এজে মোহাম্মদ আলী, ড. মোঃ ইউনুস আলী আকন্দ, নাজমুল হুদা। সহ-সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী চার জন হলেন, এবিএম ওলিউর রহমান খান, মোঃ শাহজাদা, আলহাজ সারওয়ার আহমেদ, শেখ আওসাফুর রহমান। সম্পাদক পদের চার প্রর্থী হলেন, এএম মাহবুব উদ্দিন খোকন, দেওয়ান আবদুন নাসের, মোঃ রবিউল আলম বুদু, নজরুল ইসলাম। কোষাধ্যক্ষ পদের তিন প্রর্থী হলেন, মোঃ আবু ইয়াহিয়া দুলাল, মোঃ আমির হোসাইন ও মোঃ রবিউল করিম। সহ-সম্পাদক পদের পাঁচ প্রার্থী হলেন, এবিএম রফিকুল হক তালুকদার রেজা, মোঃ শহিদুজ্জামান, মোঃ সুজা আল ফারুক, মোহাম্মদ আলী আজম ও মোহাম্মদ সফিউর রহমান। এছাড়া সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ১৪ প্রার্থী।