মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
মঙ্গলবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৩, ১৪ ফাল্গুন ১৪১৯
নাগরিকত্ব বাতিল দাবি শহীদ মিনার অবমাননাকারীদের
বিশেষ প্রতিনিধি ॥ লাখো শহীদের রক্তে অর্জিত জাতীয় পতাকা এবং বাঙালী জাতিসত্তার অন্যতম প্রতীক শহীদ মিনারকে যারা অবমাননা করার মতো দুঃসাহস ও স্পর্ধা দেখিয়েছে, তাদের নাগরিকত্ব বাতিল করার দাবি জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতারা।
আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারি মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেন, জাতীয় পতাকা ও শহীদ মিনার অবমাননাকারীদের এ দেশে রাজনীতি করার কোন অধিকার থাকতে পারে না। জামায়াত-শিবির জঙ্গীবাদী চক্রের বিরুদ্ধে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, যুদ্ধাপরাধীদের রক্ষা এবং রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলের জন্য জামায়াত-শিবির এবার পবিত্র কোরানকে পোড়ানোর মাধ্যমে অবমাননা করে দেশে ধর্মীয় উš§াদনা সৃষ্টির পরিকল্পনা করছে।
সোমবার বিকেলে বঙ্গবন্ধু এ্যাভিনিউস্থ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে জাতীয় পতাকা মিছিলপূর্ব সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন। সারাদেশে জামায়াত-শিবিরের নৈরাজ্য এবং জাতীয় পতাকা ও শহীদ মিনার অবমাননার প্রতিবাদে স্বেচ্ছাসেবক লীগ এই পতাকা মিছিলের আয়োজন করে।
বুকে, পিঠে এবং হাতে জাতীয় পতাকা নিয়ে স্বেচ্ছাসেবক লীগের বিশাল মিছিলটি বঙ্গবন্ধু এভিনিউ থেকে জিপিও, পল্টন, প্রেসক্লাব, মৎস্যভবন, শাহবাগ, দোয়েল চত্বর হয়ে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে যায়। মিছিলে সকলের কণ্ঠে ছিল অভিন্ন আওয়াজ, ‘যুদ্ধাপরাধীদের ফাঁসি চাই, জামায়াত-শিবিরের রাজনীতি নিষিদ্ধ করতে হবে।’
সমাবেশে মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেন, জামায়াত-শিবির ধর্মভিত্তিক দল না। তারা ইসলামে বিশ্বাস করে না। যার কারণে তারা পবিত্র কোরান শরীফে আগুন দিয়ে প্রগতিশীলদের ওপর দোষ চাপিয়ে দেশে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা বাধানোর পরিকল্পনা নিয়েছে। তিনি বলেন, জাতীয় পতাকায় আগুন দেয়া বরদাশত করা যায় না। ভবিষ্যতে এ ধরনের অপকর্ম করার চেষ্টা করলে বাংলার মানুষ তাদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবে।
স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোল্লা মোঃ আবু কাওছারের সভাপতিত্বে মিছিলপূর্ব সমাবেশে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক এ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক পংকজ দেবনাথ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা তানভীর শাকিল জয় এমপি, আরিফুর রহমান টিটু, ফরিদুর রহমান খান ইরান, দেবাশীষ বিশ্বাস প্রমুখ।