মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
মঙ্গলবার, ১১ অক্টোবর ২০১১, ২৬ আশ্বিন ১৪১৮
বিউটি পার্লারের সিসি ক্যামেরা সরিয়ে ফেলার নির্দেশ হাইকোর্টের
স্টাফ রিপোর্টার ॥ দেশের নারী ও পুরুষদের বিউটি পার্লারের সেবাকৰে ক্লোজ সার্কিট (সিসি) ক্যামেরা সরিয়ে ফেলার নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। একইসঙ্গে সিসি ক্যামেরা ব্যবহারে নীতিমালা প্রণয়নের নির্দেশ কেন দেয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছে আদালত। দুই সপ্তাহের মধ্যে তথ্য, স্বরাষ্ট্র ও শ্রম সচিব, পুলিশের মহাপরিদর্শক ও র্যাবের মহাপরিচালককে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। সোমবার বিচারপতি ফরিদ আহম্মদ ও বিচারপতি শেখ হাসান আরিফের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চ এ আদেশ দেয়।
পারসোনা বিউটি পার্লারে একটি সিসি ক্যামেরায় এক নারী গ্রাহকের ভিডিও চিত্র সিসি ক্যামেরায় ধারণের ঘটনাকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশ হিউম্যান রাইটস ফাউন্ডেশনের প্রধান নির্বাহী এ্যাডভোকেট এলিনা খান জনস্বার্থে রিট আবেদন করেন। রিটে তিনি ৩০ সেপ্টেম্বর বিউটি পার্লার পারসোনার গোপন সিসি ক্যামেরা পাওয়া যাওয়ার বিষয়টি হাইকোর্টের নজরে আনেন। তিনি বলেন, পার্লারের সার্ভিস এলাকায় সিসি ক্যামেরা থাকা যে কোন মানুষের গোপনীয়তায় হুমকিস্বরূপ। রিটকারী পারসোনার বিষয়টি উলেস্নখ করে বলেন, দেশে যেসব অশস্নীল ভিডিও সিডি বের হচ্ছে তার উৎস খুঁজে দেখার জন্যও হাইকোর্টের হসত্মক্ষেপ কামনা করেন।
রিটকারী আইনজীবী এলিনা খান সাংবাদিকদের বলেন, অনেক দিন থেকেই বাংলাদেশে পর্নোগ্রাফি, ভিডিও চিত্র এবং ক্লিপিং বিভিন্ন মোবাইল ও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়ছে। ৩০ তারিখে পারসোনাতে যে ঘটনা ঘটেছে তাতে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। অভিজাত বিউটি পার্লার হিসেবে পারসোনা সিক্রেসি মেনটেন করেনি, যেটা তাদের উচিত ছিল।
সমাজে বিভিন্ন বিশিষ্ট ব্যক্তি থেকে সাধারণ মানুষ পর্যনত্ম এখন পার্লারে যান। কিন্তু পারসোনার এ ঘটনায় এখন আতঙ্ক বিরাজ করছে। মানুষের বিশ্বাস ভেঙ্গে গেছে। সিসি ক্যামেরা ব্যবহারবিধিতে কোন নীতি নেই। এ ক্যামেরা কোথায় ব্যবহার করা যাবে, কোথায় যাবে না এ সংক্রান্ত বিধি থাকা একান্ত প্রয়োজন। না হলে মানুষের স্বাধীনতা খর্ব হয়েছে, ভবিষ্যতেও হবে। এ্যাডভোকেট এলিনা খান রিটে নিজেই শুনানি করেন।