মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
মঙ্গলবার, ১১ অক্টোবর ২০১১, ২৬ আশ্বিন ১৪১৮
বাংলাদেশের অভ্যন্তরে বাঁধ ও রাস্তা নির্মাণ বন্ধ রাখার অঙ্গীকার
বিজিবি-নাসাকা বৈঠক
নিজস্ব সংবাদদাতা, কক্সবাজার, ১০ অক্টোবর ॥ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও মিয়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনী নাসাকার মধ্যে সেক্টর কমান্ডার পর্যায়ে পতাকা বৈঠক কক্সবাজারে অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৈঠকে বিজিবির অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশের নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তবর্তী ঘুনধুম ইউনিয়নের তুমব্রু সীমান্তখালের পাড়ে মিয়ানমারের নাসাকা বাহিনীর বাঁধ ও রাস্তা নির্মাণ বন্ধ রাখার অঙ্গীকার করেন। এছাড়া আনত্মর্জাতিক আইন অনুযায়ী সীমান্ত রেখার ১৫০ গজের মধ্যে যেসব কাঁটা তারের বেড়া নির্মাণ করা হয়েছে, তা দু'দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর কোম্পানি কমান্ডার পর্যায়ে সরেজমিন পরিদর্শন করে আইন অনুযায়ী নির্মাণের ব্যাপারে সম্মতি দিয়েছেন মিয়ানমারের নাসাকা বাহিনীর প্রতিনিধি দল। সোমবার দুপুরে দু'দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর পতাকা বৈঠকে বিজিবি প্রতিনিধি দলের অনুরোধে নাসাকা প্রতিনিধি দল এই সিদ্ধান্ত জানান। পতাকা বৈঠকে বিজিবি প্রতিনিধি দল জানান, এ বছর দুই দেশের যৌথ জরিপ দল কর্তৃক মাঠ পর্যায়ে জরিপ সম্পন্ন করার পর দেখা যায়, তমব্রু খালের গতিপথ পরিবর্তনের কারণে শূন্যলাইন (জিরো পয়েন্ট) তমব্রু খালের অপর পাশে অবস্থান করছে। প্রকৃতপৰে মিয়ানমারের কাঁটাতারের বেড়া শূন্যলাইন এক অংশে ১৪০ ফুট এবং অন্য অংশে মাত্র ৪০ ফুট দূরে রয়েছে, যা ১৫০ ফুট হওয়া বাঞ্ছনীয় ছিল।
পতাকা বৈঠকে সীমান্ত এলাকায় চোরাচালান প্রতিরোধ এবং মাদক পাচার রোধে উভয় দেশের সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর আরও জোরদার ভূমিকা পালন এবং বাংলাদেশের কারাগারে আটক মিয়ানমারের ১৯ নাগরিককে ফেরত নেয়ার ব্যাপারে সম্মতি প্রকাশ করা হয়।
ঘুনধুম সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত এই বৈঠকে মিয়ানমারের ৮ সদস্যবিশিষ্ট প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন নাসাকা ৩নং সেক্টরের সেক্টর কমান্ডার মেজর থেন থে অং এবং বাংলাদেশ ১৭ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের ১২ সদস্যবিশিষ্ট প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন ব্যাটালিয়ন কমান্ডার লে. কর্ণেল মোঃ খালেকুজ্জামান পিএসসি।