মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
বুধবার, ১১ মে ২০১১, ২৮ বৈশাখ ১৪১৮
শেরপুর সীমান্তে অস্ত্র গুলি ও গ্রেনেড উদ্ধার, এলাকায় আতঙ্ক
২ যুবক রিমান্ডে
সংবাদদাতা, শেরপুর, ১০ মে ॥ শেরপুর সীমান্তে দফায় দফায় বিপুল পরিমাণ অস্ত্র-গুলি ও আর্জেস গ্রেনেড উদ্ধারের ঘটনায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। সেই সঙ্গে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের প্রাক্কালে সর্বশেষ গুলি উদ্ধারের ঘটনায় এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। এদিকে, সোমবার উদ্ধারকৃত বিপুল পরিমাণ গুলি মজুদের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে গ্রেফতারকৃত মোহাম্মদ আলী ওরফে আলী চোরা ও আশরাফুল আলম নামে ২ যুবকের ৪ দিনের পুলিশ রিমান্ড মঞ্জুর হয়েছে। মঙ্গলবার শেরপুরের সিনিয়র জুডিশিয়াল বেলপুকুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।
রাজশাহী পশ্চিম রেলওয়ে সূত্র জানায়, মঙ্গলবার বেলা পৌনে ১২টার দিকে মহানন্দা এঙ্প্রেস ট্রেনটি রাজশাহী রেলস্টেশন থেকে বেলপুকুর স্টেশন ছাড়ার পরই চলনত্ম ট্রেনের ইঞ্জিনে আগুন লেগে কালো ধোঁয়া বের হতে থাকে। আগুন লাগার বিষয়টি টের পেয়ে ট্রেনের চালক সঙ্গে সঙ্গে গতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। এ সময় ইঞ্জিনের পাশের একটি বগি থেকে প্রথমে টিটিই (টিকেট নিরীৰক) শহীদুল ইসলাম (৩৫) ঝাঁপ দিয়ে নিচে নেমে চিৎকার শুরম্ন করেন। এতে আতঙ্কিত যাত্রীরা দরজা ও জানালা দিয়ে বাইরে ঝাঁপিয়ে পড়তে থাকেন। তবে ট্রেনের গতি না থাকায় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটেনি। এ ঘটনায় ট্রেনের টিটি সারোয়ার হোসেনসহ অনত্মত ৩০ জন আহত হয়েছেন। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।
রেলসূত্র জানায়, খবর পেয়ে পরে অতিরিক্ত ইঞ্জিন দিয়ে ট্রেনটি চালু করা হয়েছে। তাৎৰণিক আগুন নিয়ন্ত্রণে নেয়ার এক ঘণ্টা পর ট্রেনটি গনত্মব্যে ছেড়ে যায়। তবে রেলওয়ে সূত্র জানায়, চালক প্রথম অবস্থায় টের পেয়ে ট্রেনের গতি কমিয়ে দেয়ায় বড় ধরনের ৰয়ৰতি হয়নি।