মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
বুধবার, ১১ মে ২০১১, ২৮ বৈশাখ ১৪১৮
ইউপি নির্বাচনে কোন এমপি এলাকায় থাকতে পারবেন না
স্পীকারকে ইসির চিঠি
স্টাফ রিপোর্টার ॥ আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনকে পৰপাত ও প্রভাবমুক্ত রাখার লৰ্যে নির্বাচনী এলাকায় জনপ্রতিনিধিদের অবস্থান না করতে জাতীয় সংসদের স্পীকারকে চিঠি পাঠিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। মঙ্গলবার স্পীকারকে পাঠানো চিঠিতে ভোটের দিন ভোট দেয়া ছাড়া জনপ্রতিনিধিদের এলাকায় অবস্থান না করতে অনুরোধ জানানো হয়েছে। পাশাপাশি নির্বাচনী কর্মকর্তাকে বদলি না করা, ঋণখেলাপী প্রাথর্ীদের সম্পর্কে রিটার্নিং কর্মকর্তাকে তথ্য প্রদানসহ বিভিন্ন বিষয়ে অনুরোধ জানিয়ে সংশ্লিষ্টদের চিঠি পাঠিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এছাড়া নির্বাচনী এলাকায় আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে ৪১৪ জন বিচারিক হাকিম ও ৮২৮ জন নির্বাহী হাকিম নিয়োগের জন্য এ সপ্তাহে মন্ত্রণালয়ে প্রসত্মাব পাঠাচ্ছে কমিশন।
ইসি সচিবালয় জানিয়েছে, স্পীকারকে পাঠানো চিঠিতে অনুরোধ জানানো হয়েছে, ভোট দেয়া ছাড়া নির্বাচনী এলাকায় কোন মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী, উপমন্ত্রী বা তাদের সমপদমর্যাদাসম্পন্ন কোন ব্যক্তি যেন অবস্থান না করেন। মন্ত্রিপরিষদ ও জনপ্রশাসন বিভাগে পাঠানো চিঠিতে ইসির পরামর্শ ছাড়া নির্বাচনী তফসিল ঘোষণার পর কোন নির্বাচনী কর্মকর্তাকে বদলি না করার অনুরোধ জানানো হয়েছে। এছাড়া স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে পাঠানো চিঠিতে নির্বাচনী ইউপিতে নতুন কোন প্রকল্প গ্রহণ না করা, নতুন করে অর্থ বরাদ্দ না দেয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে। তবে যেসব প্রকল্প আগে থেকেই চলছে তা চালিয়ে নেয়া যাবে বলে জানানো হয়। একই চিঠিতে ৰমতাসীন ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বাররা যেন নির্বাচনী সরকারী ভবন, কর্মকর্তা-কর্মচারী বা সরকারী সুযোগ-সুবিধা ভোগ না করেন সে বিষয়ে নিশ্চিত হবার অনুরোধ জানানো হয়। বাংলাদেশ ব্যাংক এবং অর্থ ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগে পাঠানো চিঠিতে ঋণ খেলাপীদের সম্পর্কে রিটার্নিং কর্মকতর্াকে তথ্য দিয়ে সহায়তা করতে বলা হয়েছে।
প্রতি উপজেলায় ১ জন বিচারিক ও ২ জন নির্বাহী হাকিম ॥ আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে নির্বাচনী ৪১৪ উপজেলায় একজন করে বিচারিক হাকিম নিয়োগের জন্য আইন মন্ত্রণালয় এবং ২ জন করে নির্বাহী হাকিম নিয়োগের জন্য জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠাতে যাচ্ছে নির্বাচন কমিশন।
এ প্রসঙ্গে নির্বাচন কমিশনের উপ-সচিব (আইন) হেলাল চৌধুরী জানান, এ সপ্তাহে দুটি চিঠি পাঠানো হবে। নির্বাচনের আগের দু'দিন এবং নির্বাচনের পরের দু'দিন পর্যন্ত মোট চারদিন বিচারিক হাকিম সংশ্লিষ্ট নির্বাচনী এলাকায় দায়িত্ব পালন করবেন। আর নির্বাহী হাকিম নির্বাচনের তিনদিন আগে ও দু'দিন পরে মোট পাঁচদিন দায়িত্ব পালন করবেন।
উল্লেখ্য, দ্বিতীয় দফায় দেশের ৫৭ জেলার ৪১৪টি উপজেলার ৩ হাজার ৮২৫টি ইউনিয়ন পরিষদে ৩১ মে থেকে ৫ জুলাই পর্যন্ত নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এর আগে প্রথম দফায় গত ২৯ মার্চ থেকে ৩ এপ্রিল পর্যন্ত ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।