মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
বুধবার, ১৯ জানুয়ারী ২০১১, ৬ মাঘ ১৪১৭
পরিকল্পিতভাবে নোয়াখালীতে গোলযোগ করেছে বিএনপি ॥ হানিফ
স্টাফ রিপোর্টার ॥ সুষ্ঠু নির্বাচনের ওপর কালিমা লেপন করতেই বিএনপি পরিকল্পিতভাবে নোয়াখালীতে গোলযোগ সৃষ্টি করেছে বলে অভিযোগ করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী মাহবুব-উল-আলম হানিফ।
তিনি অভিযোগ করেন, বিএনপির কিছু নেতা ইচ্ছা করে নোয়াখালীতে গোলযোগ সৃষ্টি করেছে। সরকার সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন সফল করছে, তাতে বিরোধী দল ঈর্ষান্বিত হয়ে পরিকল্পিতভাবে সুষ্ঠু নির্বাচনের ওপর কালিমা লেপন করতে চাচ্ছে।
মঙ্গলবার বিকেলে সরকারের দুই বছর পূর্তি উপলক্ষে কামরাঙ্গীরচরের আলীনগর চৌরাস্তায় স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি এ অভিযোগ করেন। কামরাঙ্গীরচর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হোসেন সরকারের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন আইন প্রতিমন্ত্রী এ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এম এ আজিজ, আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক এ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন ও শাহে আলম মুরাদ।
মোহাম্মদ হানিফ বলেন, নোয়াখালীতে পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগের কোন এমপি সেখানে যায়নি। অথচ বিরোধীদলীয় চীফ হুইপ জয়নুল আবেদিন, বরকত উল্লাহ বুলু, ভিপি জয়নালসহ বিএনপি নেতৃবৃন্দ গত তিনদিন ধরে সেখানে সন্ত্রাস ও নির্বাচনে অনিয়মের পাঁয়তারা করছিল। কিন্তু সরকার কঠিন হাতে তা দমন করেছে। তিনি বলেন, সরকার সুষ্ঠু ও শানত্মিপূর্ণ নির্বাচনের অঙ্গীকার করেছে। তাই সারাদেশে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন হয়েছে। বিএনপির দাবি অনুযায়ী সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। যদিও স্থানীয় নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের কোন নজির নেই।
তিনি আরও বলেন, মহাজোট সরকারের উন্নয়নের ধারা দেখে বিরোধী দল ঈর্ষান্বিত হয়ে জনগণকে বিভ্রানত্ম করতে সরকারের বিরম্নদ্ধে মিথ্যাচার করে বেড়াচ্ছে। একটি মহল যুদ্ধাপরাধীদের রৰা করার জন্য নানা ষড়যন্ত্র করছে। সরকারের দায়িত্বশীল ব্যক্তিদের প্রাণনাশের হুমকি দেয়া হচ্ছে। কিন্তু যত ষড়যন্ত্রই হোক না কেন সরকারের উন্নয়নকে বাধাগ্রসত্ম করা যাবে না। যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বর্তমান সরকারের সময়কালের মধ্যেই সম্পন্ন করা হবে। নির্দলীয় নির্বাচনে কোন রাজনীতি প্রতিফলিত হয় না মন্তব্য করে তিনি পৌর নির্বাচন নিয়ে মিথ্যাচার বন্ধ করার জন্য বিএনপির প্রতি আহ্বান জানান।
আইন প্রতিমন্ত্রী কামরুল ইসলাম বলেন, আন্তর্জাতিক বাজারের কারণে দ্রব্যমূল্য আমাদের দেশেও বেশি। এ সময় নির্বাচনী এলাকার লোকদের কাছে তিনি দোয়া চান, যাতে তিনি দুর্নীতি থেকে দূরে থাকতে পারেন।