মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
বুধবার, ১৯ জানুয়ারী ২০১১, ৬ মাঘ ১৪১৭
রাজধানীর দু'সহস্রাধিক মাদক ব্যবসায়ীর তালিকা তৈরি
শংকর কুমার দে ॥ রাজধানীর ৪১ থানার দু' সহস্রাধিক মাদক ব্যবসায়ীর তালিকা তৈরি করা হয়েছে। প্রতি বছর তারা মাদক বিক্রি করছে হাজার কোটি টাকার বেশি। মাদক ব্যবসার বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স দেখানো হবে_ এই লক্ষে রাজধানীতে পুলিশ, র্যাব ও মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের যৌথ বিশেষ অভিযান শুরু হতে যাচ্ছে। মঙ্গলবার বিকেলে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) সদর দফতরে এক জরম্নরী বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এ খবর সংশিস্নষ্ট সূত্রের।
ডিএমপি কমিশনার বেনজীর আহমেদের সভাপতিত্বে মঙ্গলবার সদর দফতরে অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন র্যাব, সিআইডি, স্পেশাল ব্রাঞ্চ, মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের প্রতিনিধি ও ডিএমপির সকল ক্রাইম ডিভিশনের ডিসি, এডিসিসহ উর্ধতন কর্মকর্তারা। সভায় উলেস্নখ করা হয়েছে, রাজধানীর মাদক ব্যবসাকে কেন্দ্র করেই ঘটছে বেশিরভাগ ভয়াবহ ধরনের খুন, ছিনতাই, ডাকাতি, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি, অপহরণ, নারী ব্যবসাসহ নানা ধরনের অপরাধ। শুধু তাই নয়, মাদকের কারণে তরম্নণ সমাজ উচ্ছন্নে যাচ্ছে। সামাজিক অবৰয় বেড়ে চলেছে। এতে আইনশৃঙ্খলার অবনতি ঘটছে। সভায় আইনশৃঙ্খলা উন্নয়নে ও জনজীবনে শানত্মি প্রতিষ্ঠায় মাদকের বিরুদ্ধে যৌথ অভিযান পরিচালনার সিদ্ধানত্ম নেয়া হয়।রাজধানীর মাদক ব্যবসায়ী কারা কোথায়_কিভাবে মাদক ব্যবসা হচ্ছে সে ব্যাপারে গোপনে তদন্ত করেছে গোয়েন্দা সংস্থা ও পুলিশ। পুলিশ ও গোয়েন্দা সংস্থার তদন্তে ও তালিকায় রাজধানীতে দু' সহস্রাধিক মাদক ব্যবসায়ীর তালিকা তৈরি করা হয়েছে। এসব মাদক ব্যবসায়ী মদ, গাঁজা, হেরোইন, ফেনসিডিল, ইয়াবা ট্যাবলেটসহ নানা ধরনের মাদকের হাট বসায়। মাদকের হাটে দিনে রাতে সমান তালে চলছে মাদক ব্যবসা। রাজধানীতে মাদকের ভয়াবহতা প্রকট আকার ধারণ করেছে। এ অবস্থা থেকে পরিত্রাণ পাওয়ার ব্যাপারে করণীয় বিষয় নিয়ে মতামত দিয়েছেন উপস্থিত আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিভিন্ন সংস্থার প্রতিনিধিরা।
ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার বেনজীর আহমেদ দায়িত্ব নেয়ার পর পরই বলেছেন, মাদকের বিরম্নদ্ধে জিরো টলারেন্স দেখানো হবে। এ ব্যাপারে কোন ছাড় দেয়ার প্রশ্নই আসে না।
ঢাকা মহানগর পুলিশের সদর দফতরে অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন এমন এক কর্মকর্তা জানান, এক শীর্ষ কর্মকতর্া বলেছেন, মাদক নিমর্ূল করতে ডিএমপি ব্যাপক পরিকল্পনা নিয়েছে। এ ল্েৰ্য মাদক ব্যবসায়ী ও মাদক ব্যবসার সঙ্গে সম্পৃক্তদের থানা ও মহলস্নাভিত্তিক তালিকা তৈরি করা হয়েছে। এই তালিকা তৈরির পর যাচাই-বাছাই করে চূড়ানত্ম করা হচ্ছে। তালিকায় প্রায় ২ হাজার মাদক ব্যবসায়ীর নাম পাওয়া গেছে।