মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
রবিবার, ৬ জুন ২০১০, ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪১৭
আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ঝিনাইদহে আ'লীগের দু'গ্রুপে সংঘর্ষ, আহত ২৫
স্টাফ রিপোর্টার, যশোর অফিস ॥ ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার একতারপুর গ্রামে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে অন্তত ২৫ জন আহত হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার সকালে। আহতদের যশোর, কালীগঞ্জ ও ঝিনাইদহ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। দেবরাজপুর গ্রাম কমিটির আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল বারিকের দু' পায়ের রগ কেটে দেয়ার জের ধরে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের মধ্যে বারেক, যশোর এমএম কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র বাবুল, শরিফুল ও ওহিদুলের অবস্থা আশঙ্কাজনক। কলেজ ছাত্র বাবুলের একটি হাত কেটে নিয়েছে আওয়ামী লীগের প্রতিপক্ষ গ্রুপের লোকজন। পুলিশ জানায়, রায়গ্রাম ইউনিয়নে দলীয় আধিপত্য বিস্তার করাকে কেন্দ্র করে স্থানীয় এমপি আব্দুল মান্নান ও উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ারুল আজিম আনার সমর্থিতদের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। প্রথমে একতারপুর গ্রামের এমপি সমর্থিত শরিফুলের নেতৃত্বে তার দলবল শুক্রবার দুপুরে উপজেলা চেয়ারম্যান গ্রুপের আব্দুল বারিককে ধরে দুই পায়ের রগ কেটে দেয়। বারিক জুম্মার নামাজ পড়ে বাড়ি ফিরছিল। এ ঘটনার জের ধরে একতারপুর ও দেবরাজপুর গ্রামে সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে। শনিবার সকালে উভয় গ্রুপ দেশী অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংষর্ঘে লিপ্ত হয়। সংঘর্ষে এমপি আব্দুল মান্নান গ্রুপের ২০ জন ও উপজেলার চেয়ারম্যান আনার গ্রুপের ৫ জন আহত হয়েছে। খবর পেয়ে বেলা ১১টায় পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করে। এখনও ওই দুই গ্রামের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি অনেকের হাত পা নেই। আহতরা হলেন_ ইদ্রিস আলী, শরিফুল, আতিয়ার, আরশাদ আলী, মোসলেম উদ্দিন বিশ্বাস ও হাসেম আলী প্রমুখ।