মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০১১, ১১ মাঘ ১৪১৭
যৌন কেলেঙ্কারি ॥ পদত্যাগ করবেন না বারলুসকোনি
ইতালির প্রধানমন্ত্রী সিলভিও বারলুসকোনি তাঁর দলের লোকদের বলেছেন, তাঁর পদত্যাগের কোন ইচ্ছে নেই। তাঁর বিরম্নদ্ধে অপ্রাপ্ত বয়স্ক যৌনকর্মীর সঙ্গে মিলিত হওয়ার অভিযোগ ওঠার পর বারলুসকোনি এই মন্তব্য করলেন। খবর বিবিসির
বারলুসকোনি এই মামলায় তদন্তকারী ম্যাজিস্ট্রেটদের বিরুদ্ধে বেআইনীভাবে গোয়েন্দাগিরির অভিযোগ আনেন। বারলুসকোনি তাঁর দল ফ্রিডম পার্টির বৈঠকে টেলিফোনে বলেন, তিনি পালিয়ে যাচ্ছেন না এবং পদত্যাগও করছেন না। তিনি বলেন, তাঁর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিতক যৌন কর্মীদের সঙ্গে কারলুসকোনির কি ধরনের সম্পর্ক ছিল এ প্রসঙ্গে কোন প্রশ্নের জবাব দিতে আইনজীবীদের সামনে উপস্থিত হতে রাজি হননি কারলুসকোনি। আইনজীবীরা ১৮ বছর বয়স্ক মরজোর বেলি ড্যান্সার রুবি প্রসঙ্গে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে চেয়েছিল এই রম্নচির বয়স যখন ১৭ ছিল তখন বারলুসকোনির এক পার্টিতে আসে। সে সময় রুবির সঙ্গে বারলুসকোনির যৌন সম্পর্ক স্থাপিত হয়। এ জন্য রম্নবিকে অর্থও দেন বারলুসকোনি। বলছেন আইনজীবীরা।
ইতালিতে পতিতা বৃত্তি অপরাধ নয়, তবে ১৮ বছরের নিচে কারও সঙ্গে যৌন সম্পর্ক স্থাপন অপরাধ হিসেবে বিবেচনা করা হয়।
বারলুসকোনি ও রম্নবির মধ্যে যৌন সম্পর্ক ছিল না বলে উভয়ই দাবি করেন। রম্নবি বলেন, বারলুসকোনি তাঁকে উপহার হিসেবে ৫ হাজার ৯শ' ডলার দিয়েছিলেন। ইতালির সংবাদ পত্র বারলুসকোনির সঙ্গে ২০ নারীর কথোপকথন প্রকাশ করে। এই ২০ নারী বারলুসকোনির বাসভবনে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অংশ নিত বলে অভিযোগ রয়েছে। ৭৪ বছর বয়স্ক কারলুসকোনি তাঁর দলের বৈঠকে টেলিফোনে গণমাধ্যমের সমালোচনা করেন এবং বলেন, ম্যাজিস্ট্রেরা তাঁকে ৰমতা থেকে অপসারণের চেষ্টা করছে। বারলুসকোনির আইনজীবীরা বলছেন, এটা তাঁর বিরম্নদ্ধে আনা অভিযোগের ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদে হাজির হবেন না। এ ব্যাপারে তদনত্ম করার কোন এখতিয়ার মিলানের আইনজীবীদের নেই বলে তাঁর আইনজীবীরা দাবি করেন।