মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
শুক্রবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০১৩, ১০ ফাল্গুন ১৪১৯
বীরের পতন
জাফর ওয়াজেদ
মনে পড়ে বাঘা সিদ্দিকী, সেই একাত্তরের আঠারোই ডিসেম্বর
জ্যান্ত দুটো 'দালাল' ধরে এনে ভেজা ভেজা ঘাসের উপর
স্টেডিয়ামে লাত্থি মেরে ফেলে দিয়ে অশ্রাব্য সব ভাষা ঢেলে
বেয়নেটে খুঁচিয়ে খুঁচিয়ে হত্যাযজ্ঞের সূচনাটা কে করেছিলে
বীরের তকমা পায়ে দলে অমানবিক কা- তখন ঘটিয়েছিলে
কেনো করেছিলে কেনো সেই কথাটা বলতে যে ভুলেই গেলে-

সে সব প্রশ্ন জাগে মনে আজ-পতিত বীরের উচ্চকণ্ঠ শুনে
যুদ্ধ শেষে অপরাধের বীজমন্ত্র গিয়েছিলো নিজ হাতেই বুনে
আজকে ধোয়া তুলসীপাতা, আজকে দেখি অধিক বিবেকবান
বিনা বিচারে মানুষ হত্যা, পাপের সেই সে হয়েছিলো অধিষ্ঠান।

হত্যাকা-ের দৃশ্যটা যে ফ্রেমবন্দি একচল্লিশেও জ্বলজ্বল, নয় মলিন
বিদেশী সব পত্রিকাতে ফলাও করে তিন কলামে গা ঘিন ঘিন
দফায় দফায় বিদেশী টিভি প্রচার করে বলেছিল-এ কোন বীর?
মানুষ হত্যার এই উৎসবে নামিয়ে দিলো বীর বাঙালির উচ্চশির
স্বাধীন দেশে বিনা বিচারে খুন খারাবির করলে এমনই সূত্রপাত
বাঙালিরা বলতে পারে তারই মাসুল দিতে তারা আজো প্রাণপাত।

মানুষ মারার সেই দৃশ্যটি স্টেডিয়ামের গ্যালারি বা ঘাসে ঝুলিয়ে রেখে
গলা ফাটিয়ে চিৎকারে তাই বলতে পারি-বীরের পতন দেখেছি চোখে...