মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৩, ৫ অগ্রহায়ন ১৪২০
নতুন ইসলামী জোট ‘ন্যাশনাল ইসলামিক এ্যালায়েন্স’
স্টাফ রিপোর্টার ॥ ১৮ দলীয় জোট ও মহাজোটের সমর্থনের বাইরে গিয়ে যাত্রা শুরু করল নতুন ইসলামী জোট ‘ন্যাশনাল ইসলামিক এ্যালায়েন্স।’ বাংলাদেশ খেলাফতে মজলিস ও সমমনা কয়েকটি ইসলামী দলের সমন্বয়ে নতুন এ রাজনৈতিক জোট গঠিত হয়েছে। প্রাথমিকভাবে জোটভুক্ত দলগুলো হলো খেলাফত মজলিস, গণতান্ত্রিক ইসলামিক মুভমেন্ট ও পিপলস জাস্টিস পার্টি। সোমবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে এ নতুন জোটের ঘোষণা দেন খেলাফতে মজলিসের আমির প্রিন্সিপাল মাওলানা হাবিবুর রহমান। একই সঙ্গে তিনি বলেন, সরকারও ইসলামের বিরুদ্ধে অনেক কাজ করেছে, আবার ১৮ দলও ইসলামের পক্ষের নয়। এরা কেউই ইসলামের পক্ষের শক্তি নয়।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন খেলাফত মজলিসের মহাসচিব মুক্তিযোদ্ধা হুমায়ুন কবীর, খেলাফতে মজলিসের নায়েবে আমির মাওলানা নিজাম উদ্দীন, গণতান্ত্রিক ইসলামী মুভমেন্টের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট নুরুল ইসলাম ও সাংগঠনিক সচিব এ্যাডভোকেট খায়রুল আহসান প্রমুখ। সংবাদ সম্মেলনে প্রিন্সিপাল মাওলানা হাবিবুর রহমান বলেন, দেশ ও জাতির এক চরম ক্রান্তিলগ্নে ইসলামী দলগুলো নিজস্ব স্বকীয়তা নিয়ে ঐক্যবদ্ধ হোক, এটাই ধর্মপ্রাণ দেশবাসীর প্রত্যাশা। এ অবস্থায় ধর্মপ্রাণ জনতাকে আন্দোলনে উজ্জীবিত করে ইসলামী দাবিগুলো আদায়ের লক্ষ্যে আল্লাহর ওপর ভরসা করে কয়েকটি সমমনা ইসলামী রাজনৈতিক দলের সমন্বয়ে ‘ন্যাশনাল ইসলামিক এলায়েন্স’ জোটের ঘোষণা করছি। সমমনা আরও কয়েকটি দল এ জোটে অংশ নেবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। নেতারাবলেন, রাজনীতির নামে বোমাবাজি, নিরীহ জনগণের সম্পদ ধ্বংস, রাস্তায় গাড়ি ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের তা-ব ইসলাম সমর্থন করে না। এ সময় তারা দেশের জনগণের নানা ভোগান্তির মুক্তিসহ ৭ দফা দাবি উপস্থাপন করেন। দাবিগুলো হচ্ছে বাংলাদেশের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ন্যায্য অধিকার নিশ্চিত করা, জাতীয় নারী নীতিতে ইসলাম বিরোধী ধারাগুলো বাতিল ও দুর্নীতি নির্মূলের লক্ষ্যে কঠোর আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করা ইত্যাদি। জামায়াতের সঙ্গে জোট করবেন কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে নেতারা বলেন, জামায়াতের সঙ্গে তাদের কোন সম্পর্ক নেই। বরং তাদের সঙ্গে আমাদের রাজনৈতিক বিরোধ রয়েছে। সুতরাং তাদের সঙ্গে জোট করার প্রশ্নই ওঠে না। হেফাজত সম্পর্কে প্রশ্ন করলে তারা বলেন, যেহেতু হেফাজত স্বীকার করেছে তারা অরাজনৈতিক দল সুতরাং তাদের সঙ্গেও আমাদের জোট করার কোন সম্ভাবনা নেই। জামায়াত-হেফাজত এই দুটি দল ছাড়া যাদের সঙ্গে নীতি আদর্শে মিলবে তাদের ইসলামিক এলায়েন্সে অন্তর্ভুক্ত করা হবে বলেও জানান নেতারা।