মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৩, ৫ অগ্রহায়ন ১৪২০
মনোনয়ন ফরমে সই করেননি শেখ হাসিনা
রিফাত-বিন-ত্বহা, নড়াইল থেকে ॥ নড়াইল-১ আসনের মনোনয়নপত্রে সই করেননি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। অনুমতি না নিয়ে সভানেত্রীর নামে মনোনয়নপত্র কেনায় তিনি চরম ক্ষুব্ধ হয়েছেন। নড়াইল জেলা আওয়ামী লীগের কতিপয় নেতা গণভবনে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করে মনোনয়নপত্র স্বাক্ষর করাতে গেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চরম ক্ষুব্ধ হন এবং তাদের ফিরিয়ে দেন। নড়াইল-কালিয়ার অত্যুৎসাহী ও জনবিচ্ছিন্ন আওয়ামী লীগ নেতারা নিজেদের নামে মনোনয়নপত্র কেনার পর দলীয় সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে মনোনয়ন কেনার ঘটনায় নড়াইল-কালিয়ার রাজনীতিতে তোলপাড় চলছে। নড়াইল-১ আসনে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পাশাপাশি মনোনয়ন ফরম কিনেছেন ৩৪ সম্ভাব্য প্রাথী। দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এমনই চমক দেখাচ্ছেন এই আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী নেতারা। এ খবর সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্রের।
দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে নড়াইল-১ আসনে ৩৫ মনোনয়নপত্র কেনার ঘটনায় নড়াইলে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে নতুন মেরুকরণ তৈরি হয়েছে। জনবিচ্ছিন্ন কয়েক নেতা দলীয় সভনেত্রী শেখ হাসিনার নামে মনোনয়নপত্র কেনায় মাঠ নেতাদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। এই ঘটনার প্রতিবাদে নড়াইলে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে মনোনয়নপত্র কেনার হিড়িক পড়ে যায়। অতীত রেকর্ড ভঙ্গ করে এবার এক আসনেই ৩৫টি মনোনয়নপত্র কিনেছেন নড়াইলের নেতারা। গণহারে মনোনয়নপত্র কেনার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানরা বলছেন, নড়াইল-কালিয়ার রাজনীতিতে জনবিচ্ছিন্ন হিসেবে চিহ্নিত নেতাদের মুখোশ উন্মোচন এবং আওয়ামী লীগের জনপ্রিয় নেতা বর্তমান এমপি কবিরুল হক মুক্তির পক্ষে সমর্থন জানাতে নির্বাচনী এলাকার সকল চেয়ারম্যান একযোগে মনোনয়নপত্র কিনেছেন।
মনোনয়নপত্র বিক্রির ২য় দিন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার পক্ষে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাডভোকেট সুভাষ বোস ও কালিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোল্লা এমদাদুল হকসহ মনোনয়ন প্রত্যাশী কয়েক নেতা। ওই নেতারা নিজেদের নামে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করার পর দলীয় সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন। এ্যাডভোকেট সুভাষ বোস নড়াইল-২ আসনের মনোনয়নপত্র কিনেছেন। মোল্লা এমদাদুল হকসহ ঢাকায় অবস্থানরত অন্য নেতারা নড়াইল-১ আসন থেকে মনোনয়নপত্র কিনেছেন। শেষ দিন রবিবার পর্যন্ত নড়াইলের এই আসনে শেখ হাসিনাসহ আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র সংগ্রহকারীর সংখ্যা দাঁড়ায় ৩৫। বঙ্গবন্ধু এ্যাভিনিউতে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মনোনয়ন ফরম বিতরণ ও গ্রহণের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।
এই আসনে প্রথম দফায় মনোনয়নপত্র সংগ্রহকারী নেতারা হলেন, সংরক্ষিত নারী আসনের বর্তমান এমপি এ্যাডভোকেট ফজিলাতুন্নেসা বাপ্পী, কালিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোল্লা এমদাদুল হক, যুবলীগ নেতা কাজী সরওয়ার, প্রিন্সিপাল আবু সাইদ, গণজাগরণ মঞ্চের সংগঠক এসএম শাহীন। সভানেত্রীর নামে মনোনয়ন কেনার ১ দিন পর মনোনয়ন সংগ্রহ করেন যুবলীগ নেতা এনায়েত করিম চঞ্চল। এদিকে মনোনয়ন ফরম বিতরণের শেষ দিনে সংগ্রহ করেছেন জনপ্রিয় আওয়ামী লীগ নেতা নড়াইল-১ আসনের বর্তমান এমপি কবিরুল হক মুক্তি।
নিজেদের নামে মনোনয়ন ফরম কেনার পর দলীয় সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে মনোনয়নপত্র কেনার ঘটনার প্রতিবাদে ক্ষুব্ধ নড়াইল-১ আসনে ১৮ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের নেতা ও উপজেলা চেয়ারম্যান প্রত্যেকেই একযোগে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন শনিবার বিতরণের ষষ্ঠ দিনে। এঁরা হলেন কালিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান খান শামিমুর রহমান, ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ গোলাম মোস্তফা, নড়াগাতি থানা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ও সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের নেতা গোপাল চন্দ্র পোদ্দার, কালিয়া হরিবাসর পূজা উদ্্যাপন কমিটির সভাপতি আশাক কুমার ঘোষ, নড়াইল জেলা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সমিতির চেয়ারম্যান ও কলোড়া ইউপি চেয়ারম্যান আশীষ কুমার বিশ্বাস, চাচুড়ি ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ লুৎফর রহমান, পুরুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান এসএম হারুন অর রশিদ, পেড়লী ইউপি চেয়ারম্যান আনিছুল হক বাবু, হামিদপুর ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ মুন্সী, ইলিয়াছাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম, সালামাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান নাজমুল হক প্রিন্স, খাসিয়াল ইউপি চেয়ারম্যান ফরিদ শিকদার, মাউলী ইউপি চেয়ারম্যান ফিরোজ খান, জয়নগর ইউপি চেয়ারম্যান আইউব কাজী, কলাবাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান ইমরুল কায়েস, বা-ঐসোনা ইউপি চেয়ারম্যান শাহ ফুরকান, পহরডাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান লাবু শিকদার, বিছালী ইউপি চেয়ারম্যান ইমরুল গাজী, ভদ্রবিলা ইউপি চেয়ারম্যান লিয়াকত হোসেন প্রমুখ।
মনোনয়নপত্র বিতরণের শেষ দিন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন জনপ্রিয় আওয়ামী লীগ নেতা নড়াইল-১ আসনের বর্তমান এমপি কবিরুল হক মুক্তি।