মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
বৃহস্পতিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১১, ১ পৌষ ১৪১৮
জাতীয় অধ্যাপক কবীর চৌধুরীর মৃত্যুতে প্রবাসী বাঙালীদের শোক
জাতীয় অধ্যাপক কবীর চৌধুরীর মৃতু্যতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন প্রবাসী বাঙালীরা। এক শোকবার্তায় তাঁরা বলেন, উদার মানসিকতা ও মুক্তচিন্তার ধারক অধ্যাপক কবীর চৌধুরী জাতির দুঃসময়ে সুচিনত্মিত ও মূল্যবান পথনির্দেশ দিয়েছেন। যুদ্ধাপরাধ এবং মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচারের আন্দোলনে অগ্রণী ভূমিকা রেখেছেন। জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করে গেছেন তিনি। প্রবাসীরা বলেন, তিনি দেশ ও জাতির অভিভাবকদের ভূমিকা পালন করেছেন। মানবকল্যাণে অবদানের জন্য বাঙালী জাতি চিরকাল তাঁকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করবে। তাঁরা অধ্যাপক কবীর চৌধুরীর বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন।
এক শোকবার্তায় যুক্তরাজ্য প্রবাসী আবদুল গাফ্ফার চৌধুরী, আবদুল মতিন, সুলতান মাহমুদ শরিফ, জার্মান প্রবাসী অনিল দাশগুপ্ত, অস্ট্রিয়া প্রবাসী এম নজরুল ইসলাম, হল্যান্ড প্রবাসী মাঈদ ফারুক, মোস্তফা জামান, ইতালি প্রবাসী মাহাতাব হোসেন, বেলজিয়াম প্রবাসী বজলুর রশীদ বুলু, ফ্রান্স প্রবাসী বেনজীর আহমেদ সেলিম, ডেনমার্ক প্রবাসী এম. মোসত্মফা মজুমদার বাচ্চু, মোহাম্মদ আলী মোলস্না লিংকন, সুইজারল্যান্ড প্রবাসী তাজুল ইসলাম, সুইডেন প্রবাসী জাহাঙ্গীর কবির, ফিনল্যান্ড প্রবাসী রমজান আলী, নরওয়ে প্রবাসী সিমন আলী, পতর্ুগাল প্রবাসী রফিকউলস্নাহ, স্পেন প্রবাসী জহিরম্নল ইসলাম, আয়ারল্যান্ড প্রবাসী মোনায়েম খন্দকার, গ্রীনল্যান্ড প্রবাসী ড. আফতাব হোসেন, যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী ড. নূরম্নন্নবী, বেলাল বেগ, ড. জ্যোতি প্রকাশ দত্ত, হাসান ফেরদৌস, সৈয়দ মোহাম্মদউলস্নাহ, ড. ব্রাহ্মণ দাশ বসু, সিব্বীর আহমেদ, ড. সিদ্দিকুর রহমান, কানাডা প্রবাসী, ড. মোজাম্মেল হোসেন খান, শিল্পী নাহিদ কবির কাকলী, সাইফুলস্নাহ মাহমুদ দুলাল, অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী ড. আবদুর রাজ্জক, অজয় দাশগুপ্ত, ড. লাভলি রহমান, পিএস চুনু, নিউজিল্যান্ড প্রবাসী প্রকৌশলী শরিফ ভূঁইয়া, রাশিয়া প্রবাসী ড. এম পাটোয়ারী বাহার, জাপান প্রবাসী প্রবীর বিকাশ সরকার, সজল বড়ুয়া, দৰিণ কোরিয়া প্রবাসী আমিরম্নল আলম খান, মালয়েশিয়া প্রবাসী ড. মাহমুদ হাসান, সিঙ্গাপুর প্রবাসী মমিনুল বাসার ভুইয়া, সৌদি আরব প্রবাসী প্রকৌশলী আবদুল গনি, আরব আমিরাত প্রবাসী মহিন উদ্দিন মহিন, ইফতেখার হোসেন বাবুল, কাতার প্রবাসী এম এ মুসা, কুয়েত প্রবাসী সাদেক হোসেন, ওমান প্রবাসী এমএম আমিন, বাহরাইন প্রবাসী বজলুর রহমান প্রমুখ শোকসনত্মপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান।
বিভিন্ন সংগঠনের শোক ॥ বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার জানান, জাতীয় অধ্যাপক কবীর চৌধুরীর মৃতু্যতে বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন শোক প্রসত্মাব, শোক প্রকাশ ও সমবেদনা জ্ঞাপন করেছে। বুধবার সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বিভিন্ন সংগঠন এই শোক জ্ঞাপন করেছে।
বিশ্ব কবিতা পরিষদ, কুষ্টিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদ, প্রশিকা সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, জাতির বিবেক, বাংলা সাহিত্যের দিকপাল, প্রগতিশীল আন্দোলনের অগ্রদূত কবীর চৌধুরীর মৃতু্যতে আমরা গভীর শোকাহত। বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদের সভাপতি লায়ন মোঃ গনি মিয়া বাবুল ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ সিরাজুল ইসলাম বলেন, অধ্যাপক কবীর চৌধুরী ছিলেন আমাদের জাতির অভিভাবক। তিনি মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সর্বসত্মরে বাসত্মবায়নে এবং মুক্ত চিনত্মাচেতনার সমৃদ্ধ অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গঠনে আজীবন কাজ করেছেন। তার অসমাপ্ত কাজগুলো সম্পন্ন করতে আমাদের সর্বদা সচেষ্ট থাকতে হবে।
প্রশিকার শোক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, কবীর চৌধুরী নিজের দীর্ঘ জীবনে সাম্প্রদায়িকতা, ধর্মান্ধতা, বৈষম্য ও শোষণ-নিপীড়নের বিরম্নদ্ধে আপোসহীনভাবে বুদ্ধিবৃত্তিক সংগ্রাম চালিয়ে গেছেন। মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনার পৰে তিনি ছিলেন একজন সাহসী যোদ্ধা। তার সাহিত্যকর্ম গুণে ও পরিমাণে অত্যনত্ম উজ্জ্বল ও বিশিষ্ট। অধ্যাপক কবীর চৌধুরীর বিদায়ে বাংলাদেশের শিৰা-সংস্কৃতি ও মুক্তবুদ্ধিচর্চার ক্ষেত্রে যে শূন্যতার সৃষ্টি হয়েছে তা সহজে পূরণীয় নয়। প্রশিকার সর্বসত্মরের কর্মীদের পৰ থেকে অধ্যাপক কবীর চৌধুরীর প্রতি গভীর শ্রদ্ধা ও তার শোকসনত্মপ্ত পরিবারের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জ্ঞাপন করা হয়েছে।