মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
বৃহস্পতিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১১, ১ পৌষ ১৪১৮
খালেদা জিয়ার মামলা বাতিলের আবেদন খারিজ
জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট
স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম জিয়ার বিরুদ্ধে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্টের আর্থিক অনিয়মের মামলাটি বাতিলের আবেদন খারিজ করে দিয়েছে হাইকোর্ট। অন্যদিকে আরেকটি বেঞ্চ বড় পুকুরিয়া কয়লা খনি দুর্নীতি মামলা বাতিলে জামায়াতে ইসলামীর নেতা মতিউর রহমান নিজামী ও আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদের আবেদন খারিজ করে দিয়েছে।
জিয়া অরফানেজ ট্রাস্টের আর্থিক অনিয়মের মামলাটি বাতিলের আবেদন খারিজ হওয়াতে নিম্ন আদালতে এ মামলা চলতে আর বাধা থাকল না বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা। দুর্নীতি দমন কমিশনের দায়ের করা এ মামলা বাতিলে সাবেক প্রধানমন্ত্রীর আবেদনের শুনানি শেষে বিচারপতি খোন্দকার মূসা খালেদ ও এসএইচ মোঃ নূরম্নল হুদা জায়গীরদারের বেঞ্চ বুধবার এই রায় দেন।
জিয়া অরফানেজ ট্রাস্টের ২ কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৪৩ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে বিগত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময়ে বিএনপি চেয়ারপার্সনের বিরম্নদ্ধে এ মামলা হয়। ২০০৮ সালের ৩ জুলাই রমনা থানায় করা এ মামলায় খালেদার পাশাপাশি আসামি করা হয় তার ছেলে তারেক রহমানসহ মোট সাতজনকে। ২০০৯ সালের ৫ আগস্ট অভিযোগপত্র দেয় দুর্নীতি দমন কমিশন। আদেশের পর দুর্নীতি দমন কমিশনের আইনজীবী এ্যাডভোকেট আনিসুল হক সাংবাদিকদের বলেন, নিম্ন আদালতে এ মামলার কার্যক্রম চলতে আর কোন বাধা রইল না।
এ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেন, 'হাইকোর্ট বলেছে, মামলার এফআইআরে তার (খালেদা) নাম এসেছে। চার্জশিটেও তার কথা বলা হয়েছে। ঘটনার সঙ্গেও তার সম্পৃক্ততার কথা এসেছে। তাই তিনি দোষী কি নির্দোষ_ এই পর্যায়ে সে সিদ্ধানত্ম হাইকোর্ট দিতে পারে না।'
শুনানিতে মামলাটি বাতিলের পক্ষে যুক্তি তুলে ধরেন ব্যারিস্টার রফিক-উল হক, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ, ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন। অন্যদিকে দুর্নীতি দমন কমিশনের পক্ষে এ্যাডভোকেট আনিসুল হক ও এ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম খান এবং সরকার পৰে এ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম মামলা বাতিল না করার পক্ষে যুক্তি দেন।