মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
রবিবার, ১১ সেপ্টেম্বর ২০১১, ২৭ ভাদ্র ১৪১৮
তিস্তার পানি চুক্তি না হলে ট্রানজিট দেব না ॥ মতিয়া
নিজস্ব সংবাদদাতা, শেরপুর, ১০ সেপ্টেম্বর ॥ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বলেছেন, তিস্তার পানি চুক্তি না হলে ট্রানজিট চুক্তিও হবে না। মন্ত্রী বলেন, আমরা যা চেয়েছিলাম সব পেয়েছি এটা বলব না। তবে যেটুকু পেয়েছি তা কোন অংশেই কম নয়। ভারত ও বাংলাদেশের দুই শীর্ষ নেতার বৈঠকে অনেক কিছুর অগ্রগতি হয়েছে। তিনি প্রধান বিরোধী দল বিএনপির প্রতি ইঙ্গিত দিয়ে বলেন, একটি মহল এ চুক্তি নিয়ে জনমনে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। তিনি বলেন, ষড়যন্ত্র ও চক্রান্তের দিন শেষ। এসব করে কোন লাভ হবে না। তিনি ১০ সেপ্টেম্বর নকলা উপজেলা পরিষদ মাঠে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকের মাঝে আমনের চারা বিতরণ ও গৃহহারাদের মাঝে নগদ টাকা বিতরণ কালে এ কথা বলেন।
মতিয়া চৌধুরী আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা যখনই ক্ষমতায় আসে তখনই দেশের মানুষ কিছু পায়। ভারতের সঙ্গে চুক্তিতেও গার্মেন্টেসের ৪৬টি পণ্যের শুল্কমুক্ত কোটা, তিনবিঘা করিডর খোলাসহ আরও অনেক কিছু পেয়েছে। তিনি বলেন, সব কাজে পরিশ্রম করতে হয়, তদ্বির ও চেষ্টা করতে হয়। আর এটা অব্যাহত রাখতে পারলে মানুষ সব সময় এগিয়ে যায়।
তিনি বিকেলে তাঁর নির্বাচনী এলাকা নকলা উপজেলা পরিষদের হলরম্নমে উপজেলায় কর্মরত বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি ও সুধীজনের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। এ সময় তিনি বলেন, সূঁচের কাজ সুঁচ করবে, সূতার কাজ সুতা করবে। তিনি বলেন, আমি কারও কাজে হস্তক্ষেপ করি না, করব না। তিনি সবাইকে দায়িত্ব সহকারে যার যার দায়িত্ব পালন করার আহ্বান জানান।
এর পর তিনি উপজেলার ৬ টি ইউনিয়নের ৪ শ' ৮০ কৃষকের মাঝে ৮ একর জমির আমনচারা বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন ও ৩ টি ইউনিয়নের ৩ শ' ৫০ গৃহহারা পরিবারের মাঝে নগদ ৩ লাখ টাকা ৫০ হাজার টাকা বিতরণ করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন শেরপুরের জেলা প্রশাসক মোঃ নাছিরম্নজ্জামান, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শাহ মোঃ বোরহান উদ্দিন, ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান, শেরপুর কৃষি সমপ্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক অনিমেষ চন্দ্র রায়, শেরপুর সওজের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মোঃ ওয়াহিদুজ্জামানসহ স্থানীয় প্রশাসন ও আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে (সকালে) কৃষিমন্ত্রী একইভাবে নালিতাবাড়ী উপজেলায় আমনচারা বিতরণ করেন। এ সময় জেলা প্রশাসক, ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার, কৃষি বিভাগের ডিডিসহ উপজেলা চেয়ারম্যান, কৃষিবিদ মদিউজ্জামান বাদশা, পৌরমেয়র আনোয়ার হোসেন ভিপি, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আঃ হালিম উকিল ও সাধারণ সম্পাদক মকছেদুর রহমান লেবু উপস্থিত ছিলেন।