মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
রবিবার, ১১ সেপ্টেম্বর ২০১১, ২৭ ভাদ্র ১৪১৮
বিশ্বব্যাংক ও এডিবির মতানৈক্যে পদ্মা সেতু নির্মাণ পিছিয়ে যাচ্ছে ॥ অর্থমন্ত্রী
বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম ॥ অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত বলেছেন, 'পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজ শুরু করতে বাংলাদেশ সরকারের কোন সমস্যা নেই। শুধু বিশ্বব্যাংক ও এডিবির মতদ্বৈততার কারণেই এর নির্মাণ কাজ পিছিয়ে যাচ্ছে।'এ দুই প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সমন্বয় না থাকার কারণেই এমনটি হচ্ছে বলে মন্তব্য করেন তিনি। শনিবার বিকেলে অর্থ মন্ত্রণালয়ে ঢাকায় জাপানের রাষ্ট্রদূত তামোৎসু সিনোসুকার সঙ্গে বৈঠক শেষে পদ্মা সেতু সম্পর্কিত সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। উলেস্নখ্য, জাপানের রাষ্ট্রদূত অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে বিদায়ী সাক্ষাত করতে মন্ত্রণালয়ে আসেন।
অর্থমন্ত্রী বলেন, 'গত কয়েক মাস ধরে পদ্মা সেতু নির্মাণে অর্থায়নকারী এ দুই প্রতিষ্ঠানের মধ্যে টানাপোড়েন চলছে। কিন্তু ঠিক কি কারণে তাদের মধ্যে সমস্যা সেটা আমরা আগে জানতে পারেনি।' তিনি বলেন, 'তবে মাত্র কয়েক দিন আগে জানতে পেরেছি যে, এ দুই প্রতিষ্ঠান তাদের স্ব-স্ব গাইড লাইন অনুসারে পদ্মা সেতুর দরপত্রে অংশ নেয়া কয়েকটি প্রতিষ্ঠানকে কালো তালিকাভুক্ত করেছে। এর মধ্যে বিশ্বব্যাংক যাদের কালো তালিকাভুক্ত করেছে সে সব দরদাতা প্রতিষ্ঠানকে কাজ দিতে কোন সমস্যা দেখছে না এডিবি। অন্যদিকে এডিবি যাদের কালো তালিকাভুক্ত করেছে বিশ্বব্যাংকের মতে, তারা কাজ পাওয়ার যোগ্য। এমন পরিস্থিতি সৃষ্টি হওয়ায় টেন্ডার আহ্বান করতে পারছে না বাংলাদেশ সরকার।' তিনি আরও বলেন, 'এডিবি বিশ্বব্যাংকের গাইড লাইন মেনে কাজ করতে চাইলেও বিশ্বব্যাংক এক্ষেত্রে এডিবির গাইড লাইন অনুসরণ করতে নারাজ।'
প্রসঙ্গক্রমে অর্থমন্ত্রী জানান, বিদ্যমান সমস্যা নিরসনে রবিবার বিশ্বব্যাংকের ভাইস চেয়ারম্যান ইসাবেল এম গুরিরোর সঙ্গে মন্ত্রণালয়ে বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। একই সঙ্গে আগামী অক্টোবরের মধ্যে দুই প্রতিষ্ঠানের মধ্যে বিদ্যমান সমস্যার সমাধান হবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি। সেক্ষেত্রে আগামী বছরের প্রথম দিকে থেকে কাজ শুরু করা সম্ভব হতে পারে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, 'যেসব প্রতিষ্ঠান কালো তালিকাভুক্ত হবে তারা চলে যাবে। এক্ষেত্রে আমাদের কোন অনুযোগ থাকবে না।'