মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
শুক্রবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০১১, ১৩ ফাল্গুন ১৪১৭
উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার সময়সূচী অনুমোদন
বিভাষ বাড়ৈ ॥ বিশ্বকাপ ক্রিকেট ফাইনাল এবং সরকারী ছুটির কারণে পাঁচ দিন পিছিয়েছে এবারের এইচএসসি ও সমমানের পরীৰা। ১ এপ্রিলের পরিবর্তে ৫ এপ্রিল থেকে শুরু হচ্ছে দেশের ১০ শিক্ষা বোর্ডের অধীন এইচএসসি, আলিম ও এইচএসসি ব্যাবসায় ব্যবস্থাপনা পরীক্ষা। শিক্ষা বোর্ডের তৈরি সময়সূচীকেই বৃহস্পতিবার চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। বিভিন্ন বিভাগের গুরুত্বপূর্ণ সকল পরীক্ষার আগেই এবার ছুটি পাচ্ছে পরীক্ষার্থীরা। সময়সূচী আজ থেকে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইটেও (www.dhakaeducationboard.gov.bd) পাওয়া যাবে।
গত বছরই এবারের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা করা হয়েছিল। ঘোষিত তারিখ অনুসারেই গত ১ ফেব্রুয়ারি থেকে সারাদেশে শুরু হয়েছে ১০ শিক্ষা বোর্ডের অধীন এসএসসি, দাখিল ও এসএসসি ভোকেশনাল পরীক্ষা। বিশ্বকাপ ক্রিকেট খেলার কারণে পরীক্ষা পিছানোর দাবি উঠলেও নির্দিষ্ট তারিখেই শুরম্ন হয়। তবে শিক্ষার্থীদের খেলা দেখাসহ সার্বিক বিষয় মাথায় রেখে একটি সহনশীল সময়সূচী তৈরি করা হয়। বাংলাদেশের খেলার দিন, এমনকি বাংলাদেশের খেলার পরের দিনেও রাখা হয়নি কোন পরীক্ষা। জানা গেছে, বিশ্বকাপ খেলার কথা মাথায় রেখে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা গ্রহণের বিষয়ে গুরুত্ব দিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছিলেন। আবার ১ এপ্রিল শুক্রবার হওয়ায় এমনিতেই পরীক্ষা নেয়া সম্ভব হচ্ছিল না। পরদিন শনিবার হলেও বিশ্বকাপের ফাইনাল খেলার পরদিন পরীক্ষা নিলে প্রশ্ন উঠতে পারে ভেবে তারিখ পিছানোর বিষয়ে একমত হন সংশ্লিষ্টরা। সরকারের শীর্ষ পর্যায়ের নির্দেশনা মেনে পুরো পরীক্ষার সময়সূচী তৈরি করে তা অনুমোদনের জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠায় ঢাকা শিক্ষা বোর্ড। বৃহস্পতিবার বিকেলে সময়সূচীর চূড়ান্ত অনুমোদন দেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। সময়সূচীতে পরীৰার মাঝে প্রয়োজনীয় বিরতি দেয়া হয়নি বলে গত কয়েক বছর ধরে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মাঝে যে অসন্তোষ ছিল এবার তা কেটে যাবে বলে মনে করছেন শিৰা বোর্ডের কর্মকর্তারা। এবার বিজ্ঞান, বাণিজ্য, মানবিক প্রতিটি বিভাগের পরীৰার্থীরাই গুরম্নত্বপূর্ণ সকল পরীৰার মাঝে ছুটি পাচ্ছে। এজন্য প্রায় দেড় মাসেরও বেশি সময় পরীৰা চলবে। ৫ এপ্রিল থেকে লিখিত পরীৰা শুরম্ন হবে আটটি সাধারণ একটি মাদ্রাসা বোর্ডের আলিম ও একটি কারিগরি বোর্ডের এইচএসসি ব্যবসায় ব্যবস্থাপনার। সাধারণ ৮ বোর্ডের এইচএসসির লিখিত পরীৰা শেষ হবে ৩১ মে। মাদ্রাসা বোর্ডের আলিমের লিখিত পরীৰা শেষ হবে ৮ মে এবং কারিগরি শিৰা বোর্ডের এইচএসসি ব্যবসায় ব্যবস্থাপনা পরীৰা শেষ হবে ৪ মে। এরপর শুরম্ন হবে সকল বোর্ডের ব্যবহারিক পরীৰা। এবারের সময়সূচী শিৰার্থীদের জন্য অত্যন্ত সহনশীল হবে বলে মনে করেন ঢাকা শিৰা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক সৈয়দ সাদিক জাহিদুল ইসলাম এবং উপ-পরীৰা নিয়ন্ত্রক রসময় কীর্তনীয়া। তাঁরা একই সঙ্গে আনত্মঃশিৰা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকদের নিয়ে গঠিত কমিটির আহ্বায়ক ও সদস্য সচিব। এবার ৫৭ দিন ধরে পরীক্ষা গ্রহণের ইতিবাচক দিক তুলে ধরে তাঁরা জনকণ্ঠকে বলেন, এবার পরীৰার কর্ম দিবস (যে দিনগুলোতে পরীৰা চলবে) ২৪ দিন। কিন্তু পরীক্ষাগুলোর মাঝে বিরতি দেয়ায় প্রায় দুই মাস পরীৰা চলবে। এর ফলে পরীৰার মাঝে প্রয়োজনীয় বিরতি দেয়া হয়নি বলে গত কয়েক বছর ধরে শিৰার্থী ও অভিভাবকদের মাঝে যে অসনত্মোষ ছিল এবার তা কেটে যাবে। বিজ্ঞান, বাণিজ্য, মানবিক প্রতিটি বিভাগের গুরুত্বপূর্ণ সকল পরীক্ষার মাঝে প্রয়োজনীয় ছুটি পাচ্ছে শিক্ষার্থীরা।