মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
শুক্রবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০১১, ১৩ ফাল্গুন ১৪১৭
এবার ওয়াসার পানির দাম বাড়ানোর ঘোষণা আসছে
স্টাফ রিপোর্টার ॥ ঢাকা ওয়াসা পানির দাম বাড়ানোর ঘোষণা দিতে যাচ্ছে। ভূ-গর্ভস্থ পানির স্তর আশঙ্কাজনক হারে নিচে নেমে যাওয়ার কারণে উৎপাদন খরচ বেড়ে গেছে। এ কারণে সংস্থার আয়-ব্যয়ের সঙ্গে সমন্বয় রেখে পানির দাম বাড়ানোর প্রস্তাব দেয়া হয়। বৃহস্পতিবার হোটেল সোনারগাঁওয়ে 'ভূ-উপরিস্থ পানি : ঢাকা ওয়াসার ভবিষ্যত' শীর্ষক এক গোলটেবিল বৈঠকে পানির দাম বাড়ানোর যৌক্তিকতা তুলে ধরেন ওয়াসার নির্বাহী পরিচালক প্রকৌশলী ড. তাকসিম এ খান এবং চেয়ারম্যান প্রকৌশলী ড. গোলাম মোসত্মফা।
গোলটেবিলের প্রধান অতিথি তথ্যমন্ত্রী আবুল কালাম আজাদ, বিশেষ অতিথি তত্ত্বাবধায়ক সরকারের ড. ওয়াহিদ উদ্দিন মাহমুদ, ড. জামিলুর রেজা চৌধুরী, স্থানীয় সরকার ও প্রকৌশল বিভাগের সচিব আবু আলম মোহাম্মদ শহীদ খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন ওয়াটার এইডের কান্ট্রি ডিরেক্টর ড. খায়রম্নল ইসলাম, ডেনমার্কের রাষ্ট্রদূত হ্যান্সমুলার, ড. দিবালোক সিংহ, প্রকৌশলী এমডি নুরম্নজ্জামান, বদরম্নল হক খন্দকার, প্রকৌশলী হাবিব ও ড. ফিরোজ আহমেদ।
তথ্যমন্ত্রী আবুল কালাম আজাদ বলেন, বর্তমান সরকার ৰমতা গ্রহণের পর সকল সেবা খাতের সেবার মান উন্নয়নে বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। এর সুফল এখনই মানুষ পেতে শুরম্ন করেছে। ওয়াসার ৫টি পানি শোধনাগার পুরোদমে উৎপাদনে গেলে ঢাকার পানি ব্যবস্থা উন্নতি হবে। এ জন্য সাড়ে ১০ হাজার কোটি টাকার বিনিয়োগ প্রয়োজন হলেও সরকার তা অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বরাদ্দের উদ্যোগ নেবে।
গোলটেবিল বৈঠকে বক্তারা বিপর্যয় এড়ানোর জন্য ভূ-গর্ভের পানির ওপর নির্ভরতা কমানোর পরামর্শ দেন। বাংলাদেশের মতো দেশে সেবা খাতের বিনিয়োগ কখনই দাম বাড়িয়ে লাভজনক করা যাবে না। তাই এ খাতে সব সময়ই সরকারের ভর্তুকি দিতে হবে। গরিব দেশগুলো কখনই মেগাসিটি ধরে রাখতে পারে না। তাই ঢাকার ধ্বংস অবধারিত বলে এক সময় জাতিসংঘের এক বৈঠকে আলোচনা হয়েছিল। ২০১৩ সালে ঢাকা ওয়াসার ৫০ বছরপূর্তি হবে। এ উপলৰে ঢাকা ওয়াসার বিশেষ সেবা কর্মসূচী হাতে নেয়া উচিত। ঢাকা শহর কোন দিনই ধ্বংসের নগরী হবে না। কারণ আমাদের চারপাশে যে প্রাকৃতিক উৎস আছে আমাদের বিনিয়োগের মাধ্যমে রৰা করতে হবে। ওয়াসাকে গরিব মানুষকে বিনামূল্যে পানি সরবরাহের সি ওয়াসার নির্বাহী পরিচালক প্রকৌশলী ড. তাকসিম এ খান বলেন, ঢাকা একটি অপরিকল্পিত নগরী। এ নগরের সিদ্ধানত্ম নিতে হবে।
বৈঠকে ১২০ না ১৫০ মিলিয়ন মানুষকে ওয়াসা সেবা দিচ্ছে। ২০২১ সালে ঢাকার জনসংখ্যা ২০০ মিলিয়ন ছাড়িয়ে যাবে। এই বিশাল জনসংখ্যার চাপ মোকাবেলায় আমাদের সাড়ে ১০ হাজার কোটি টাকার বিনিয়োগ প্রয়োজন। এই পরিমাণ বিনিয়োগ না হলে নগরীতে পানি সরবরাহ দেয়া কঠিন হয়ে পড়বে। কেবল বিনিয়োগ বাড়ালেই চলবে না, পানির দাম বাড়াতে হবে। ওয়াসা ১০ হাজার লিটার পানি ৬ দশমিক ৪ টাকায় বিক্রি করে এটা এখন আর সম্ভব না।