মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
বৃহস্পতিবার, ৬ জানুয়ারী ২০১১, ২৩ পৌষ ১৪১৭
সেনা মোতায়েনে বিএনপির দাবি ইসির ফের নাকচ
স্টাফ রিপোর্টার ॥ পৌর নির্বাচনে প্রতি পৌরসভায় বিএনপির সেনা মোতায়েনের দাবি আবারও নাকচ করে দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। বুধবার কমিশনের সঙ্গে বৈঠকে বিএনপির প্রতিনিধিদ ল সুষ্ঠু নির্বাচন না হওয়ার শঙ্কা রয়েছে মন্তব্য করে সেনা মোতায়েনের দাবি জানান। জবাবে কমিশন বলেছে, প্রশাসনের প্রতি তাদের পূর্ণ আস্থা রয়েছে।
এর আগে গত ২৭ ডিসেম্বর বিএনপির সংসদীয় প্রতিনিধি দল আসন্ন পৌর নির্বাচনে সব ক'টি পৌরসভায় সেনা মোতায়েনের দাবি জানান। তারও আগে বিএনপির অপর একটি প্রতিনিধি দল সেনা মোতায়েনের দাবি জানিয়েছিল। প্রতিবারই এ দাবি প্রত্যাখ্যান করে ইসি স্পষ্ট জানিয়েছে, ঝুঁকিপূর্ণ অথবা প্রয়োজন আছে সেরকম পৌরসভাগুলোতেই শুধু সেনা মোতায়েন করা হবে। নির্বাচনের কয়েকদিন আগে জানানো হবে কোন্ কোন্ পৌরসভায় সেনা মোতায়েন করা হবে।
বুধবার বিকেলে নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে বৈঠক করেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য এম কে আনোয়ারের নেতৃত্বে বিএনপির নয় সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল। একই দিন সকালে চারদলীয় জোটের শরিক জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমির মাওলানা আবদুস সোবহানের নেতৃত্বে তিন সদস্যের একটি প্রতিনিধি দলও কমিশনের সঙ্গে বৈঠক করে।
বৈঠকে বিএনপি আসন্ন পৌরসভা নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে হবে না বলে শঙ্কা প্রকাশ করে। তারা অভিযোগ করে, প্রশাসন ক্ষমতাসীন দলের আজ্ঞাবহ হয়ে কাজ করছে।
তবে বিরোধী দলের সেনা মোতায়েনের দাবি নাকচ করে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) ড. এটিএম শামসুল হুদা বলেছেন, অনেকদিন থেকে আমরা পরিস্থিতি পর্যবেৰণ করছি। যেখানে প্রয়োজন হবে সেখানে সীমিত আকারে সেনা মোতায়েন করা হবে। সব পৌরসভায় সেনা মোতায়েন করা যাবে না। প্রশাসনের প্রতি নির্বাচন কমিশনের পূর্ণ আস্থা রয়েছে বলেও জানান তিনি।
উলেস্নখ্য, ১২, ১৩, ১৭, ১৮ ও ২৭ জানুয়ারি ২৫৭ পৌরসভায় নির্বাচন হবে।