মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
মঙ্গলবার, ১৩ জুলাই ২০১০, ২৯ আষাঢ় ১৪১৭
ভোমরা চেকপোস্টে ৩৬ যুদ্ধাপরাধীর তালিকা, ছবি
স্টাফ রিপোর্টার, সাতক্ষীরা ॥ সাতক্ষীরার ভোমরা ইমিগ্রেশন চেকপোস্টে ৩৬ যুদ্ধাপরাধীর তালিকা টানিয়ে দেয়া হয়েছে। এসকল যুদ্ধাপরাধী যাতে দেশ থেকে পালিয়ে যেতে না পারে তার জন্য সীমান্তে বিভিন্ন সংস্থার সদস্যদের সতর্কাবস্থায় রাখা হয়েছে। সহজে চেনার জন্য এসকল যুদ্ধাপরাধীর ছবিও রাখা হয়েছে। দেশের সকল স্থলবন্দরসহ বিমানবন্দরেও এই তালিকা পাঠানো হয়েছে বলে দায়িত্বশীল সূত্র জানিয়েছে।
সাতক্ষীরার ভোমরা বন্দরে টানিয়ে দেয়া যুদ্ধাপরাধীদের তালিকার প্রথমে রয়েছে গোলাম আযমের নাম। এ ছাড়া এই তালিকায় সাতক্ষীরার সাবেক দুই সংসদ সদস্য মাওলানা রিয়াছাত আলি ও গাজী নজরুল ইসলামের নাম রয়েছে। এছাড়া খুলনার পাইকগাছার শাহ মোহাম্মদ রম্নহুল কুদ্দুস, খুলনার গোলাম পরোয়ার ও কেশবপুরের মাওলানা সাখাওয়াত হোসেনের নাম রয়েছে। তালিকার অন্যরা হচ্ছে মতিউর রহমার নিজামী, আলি আহসান মোহাম্মদ মোজাহিদ, দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী, কামারুজ্জামান, এটিএম আজাহারম্নল ইসলাম, ঢাকার মীর কাশেম আলি, কাদের মোলস্না, সাকা চৌধুরী, গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরী, চট্টগ্রামের মীর কাশেম, জয়পুর হাটের আবদুল আলিম, ভোলার মোশারাফ হোসেন শাহাজাহান, ঠাকুরগাঁয়ের মাওলানা আবদুল হাকিম, চুয়াডাঙ্গার হাবিবুর রহমান, গাইবান্ধার আবু সালেহ মোহাম্মদ আজিজ মিয়া, সিলেটের ফরিদউদ্দিন চৌধুরী ও হাবিবুর রহমান, পাবনার মাওলানা আব্দুস সোবহান, চট্টগ্রামের মাওলানা শামসুল ইসলাম, দিনাজপুরের আবতাবুদ্দিন মোল্যা, ফরিদপুরের কাজী ইমদাদুল হক ও আবুল কালাম আজাদ, বরিশালের ইঞ্জিনিয়ার জব্বার, নোয়াখালীর আমীর আলি, কুমিলস্নার এবিএম খালেক মজুমদার, ময়মনসিংহের একেএম মোশারাফ হোসেন, নোয়াখালীর গোলাম সরোয়ার ও মাওলানা নুরম্নজ্জামানের নাম তালিকায় দেয়া হয়েছে।
সূত্র জানায়, কয়েকদিন আগে এই তালিকা ভোমরা ইমিগ্রেশন কতর্ৃপক্ষের কাছে পাঠানো হয়। ইতোমধ্যে বেনাপোল বন্দরেও এই তালিকা পাঠানো হয়েছে। বেনাপোল বন্দরে পাঠানো তালিকায় আরও ৪ যুদ্ধাপরাধীর নাম সংযোগ করে সেখানে ৪০ জনের নাম দেয়া হয়েছে। যুদ্ধাপরাধীরা যাতে দেশ থেকে পালাতে না পারে সেজন্য সীমানত্মে দায়িত্বরত বিভিন্ন সংস্থার সদস্যদের সতর্ক অবস্থায় রাখা হয়েছে ।