মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
বুধবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০০৯, ২ পৌষ ১৪১৬
বিচারপতি তাফাজ্জাল ইসলামকে প্রধান বিচারপতি নিয়োগ
স্টাফ রিপোর্টার আপীল বিভাগের বিচারপতি মোঃ তাফাজ্জাল ইসলামকে বাংলাদেশের প্রধান বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। রাষ্ট্রপতি জিলস্নুর রহমান মঙ্গলবার সংবিধানের ৯৫(১) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী এই নিয়োগ দেন। আগামী ২৩ ডিসেম্বর থেকে এই নিয়োগ কার্যকর হবে। মোঃ তাফাজ্জাল ইসলাম বাংলাদেশের ১৭তম বিচারপতি হলেন।
বিচারপতি মোঃ তাফাজ্জল ইসলাম ১৯৪৩ সালের ৮ ফেব্রম্নয়ারি কুমিলস্নায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৯৪ সালের ১০ ফেব্রম্নয়ারি হাইকোর্টের অতিরিক্ত বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ পান এবং '৯৬ সারের ৮ ফেব্রম্নয়ারি স্থায়ী বিচারপতি হন। এরপর ২০০৩ সালের ২৭ আগস্ট আপীল বিভাগের বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ পান। বিচারপতি তাফাজ্জাল ইসলাম বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার চূড়ানত্ম রায় নিষ্পত্তির জন্য গঠিত আপীল বিভাগের বিশেষ বেঞ্চের প্রধান ছিলেন।
উলেস্নখ্য, ৫ ডিসেম্বর জনকণ্ঠের রিপোর্টে বলা হয়েছিল, বিচারপতি তাফাজ্জাল ইসলামই হচ্ছেন পরবতর্ী প্রধান বিচারপতি। বর্তমান প্রধান বিচারপতি এমএম রম্নহুল আমিন ২২ ডিসেম্বর অবসরে যাচ্ছেন।
আপীল বিভাগে ১১ জন বিচারপতি রয়েছেন। এদের মধ্যে চলতি বছরেই তিন বিচারপতি অবসরে যাচ্ছেন। এরা হলেন প্রধান বিচারপতি এমএম রম্নহুল আমিন ২২ ডিসেম্বর ০৯, বিচারপতি জয়নাল আবেদীন ৩১ ডিসেম্বর ০৯, বিচারপতি মোঃ আব্দুল আজিজ ৩১ ডিসেম্বর ০৯। আর মাত্র ৭ দিন পর প্রধান বিচারপতি এমএম রম্নহুল আমিন অবসরে যাবেন। নিয়ম অনুযায়ী বিচারপতি মোঃ ফজলুল করিমকে প্রধান বিচারপতি করার কথা কিন্তু তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় সুপারসিড করে এমএম রম্নহুল আমিনকে প্রধান বিচারপতি করা হয়। এছাড়া বিচারপতি মোঃ ফজলুল করিমের স্বাস্থ্যগত অবস্থাও ভাল নয়। তা ছাড়া রাষ্ট্রপতি সংবিধানের ৪৮ অনুচ্ছেদের উপ অনুচ্ছেদ ৩ অনুযায়ী আপীর বিভাগের যে কোন বিচারপতিকে প্রধান বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ দিতে পারেন। সংবিধানের ৫৬ অনুচ্ছেদের (৩) দফা অনুসারে কেবল প্রধানমন্ত্রী ও ৯৫ অনুচ্ছেদের (১) দফা অনুসারে 'প্রধান বিচারপতি নিয়োগের ৰেত্র ব্যতীত রাষ্ট্রপতি তাহার অন্য সকল দাযিত্ব পালনে প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শ অনুযায়ী কার্য করিবেন। তবে শর্ত থাকে যে, প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রপতিকে আদৌ কোন পরামর্শ দান করিয়াছেন কিনা এবং করিয়া থাকিলে কি পরামর্শ দান করিয়াছেন, কোন আদালত সেই সম্পর্কে কোন প্রশ্নের তদনত্ম করিতে পারিবেন না।'
আপীল বিভাগে যে ১১ জন বিচারপতি আছেন তাঁদের মধ্যে অন্য ৮ জন বিচারপতি অবসরে যাবেন, বিচারপতি মোঃ তাফাজ্জাল ইসলাম ৭ ফেব্রম্নয়ারি ২০১০, মোঃ ফজলুল করিম ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১০, বিচারপতি এমএ মতিন ২৫ ডিসেম্বর ২০১০, বিচারপতি শাহ আবু নাঈম মোমিনুর রহমান ১৪ নবেম্বর ২০১১, বিচারপতি বিজন কুমার দাস ২৭ এপ্রিল ২০১০, বিচারপতি এবিএম খায়রম্নল হক ২৭ এপ্রিল ২০১১, বিচারপতি মোঃ মোজাম্মেল হোসেন ১৬ জানুয়ারি ২০১৫ এবং বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা ২০১৮ সালে।