মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
শুক্রবার, ১১ অক্টোবর ২০১৩, ২৬ আশ্বিন ১৪২০
যশোরে পৌর কাউন্সিলরের ওপর হামলা
স্টাফ রিপোর্টার, যশোর অফিস ॥ যশোর পৌরসভার কাউন্সিলর জুলফিকার আলী জুলুর ওপর হামলা চালিয়েছেন পৌরসভা কর্মচারী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলাম। বৃহস্পতিবার দুপুরে পৌর ভবনে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর পৌর মেয়র তাৎক্ষণিক সভা করে একটি তদন্ত কমিটি গঠন ও মনিরুল ইসলামকে শোকজ করেছেন।
যশোর পৌরসভার কাউন্সিলর মোকসীমুল বারী অপু জানান, যশোর পৌর এলাকার বিভিন্ন অঞ্চলের বেশকিছু সড়ক বাতি নষ্ট হয়ে রয়েছে। ঈদ ও পুজোর জন্য দ্রুত এ বাতিগুলো লাগানোর জন্য বলে আসছেন কাউন্সিলররা। কিন্তু বাতি লাগানোয় গাফিলতির কারণে বৃহস্পতিবার দুপুরে কয়েক কর্মচারীকে বকাঝকা করেন ৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এ্যাডভোকেট জুলফিকার আলী জুলু। এর পরই পৌরসভা কর্মচারী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলামের নেতৃত্বে কয়েক কর্মচারী জুলুর ওপর চড়াও হয়ে মারপিট শুরু করেন। এ সময় কাউন্সিলর অপুসহ কয়েকজন জুলুকে রক্ষা করেন। এ ঘটনার পর পৌর মেয়র মারুফুল ইসলাম তাৎক্ষণিক সভা করেন। সভায় পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী শরীফ হাসানকে প্রধান করে ৩ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।
জুলফিকার আলী জুলু জানান, সড়ক বাতি না থাকায় গত ৩টি দিনে ৭ নম্বর ওয়ার্ডে ৩টি ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। ছুরিকাঘাতের ঘটনাও ঘটেছে। এ কারণে বাতিগুলো মেরামত করতে বলায় মনিরুল ইসলামের নেতৃত্বে তার ওপর হামলা চালানো হয়।

বাল্যবিয়ে বন্ধ
নিজস্ব সংবাদদাতা, পাবনা, ১০ অক্টোবর ॥ চাটমোহর উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপে আছিয়া খাতুনের বাল্যবিয়ে বন্ধ করা হয়েছে। ইউএনওর নির্দেশে অভিভাবককে বুঝিয়ে এ বিয়ে বন্ধ করা হয়। এ সময় প্রাপ্তবয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত মেয়েকে বিয়ে দেবেন না মর্মে আছিয়ার বাবা আবু তালেবের কাছ থেকে মুচলেকা নেয়া হয়েছে। আছিয়া চাটমোহরের গুনাইগাছার আবু তালেবের মেয়ে।