মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
বৃহস্পতিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৩, ১১ আশ্বিন ১৪২০
নাজিরপুরে এমপি ও সমর্থকদের ওপর ছাত্র-যুবলীগের হামলা, আহত ২৫
নিজস্ব সংবাদদাতা, পিরোজপুর, ২৫ সেপ্টেম্বর ॥ পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলার শ্রীরামকাঠী বন্দরে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে গণসংযোগের সময় বুধবার সকালে সরকারদলীয় সংসদ সদস্য অধ্যক্ষ শাহ আলম ও তার সফর সঙ্গী যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, ছাত্রলীগ কর্মী-সমর্থকদের ওপরে হামলা চালিয়ে ২৫ জন নেতাকর্মীকে আহত করেছে নাজিরপুরের যুবলীগ ও ছাত্রলীগের কর্মী-সমর্থকরা।
আহতদের মধ্যে স্বরুপকাঠী সারেংকাঠী ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সায়েম, ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক পঙ্কজ, জাকির, আজমল, জয় সুতার, ফিরোজ, সবুজের অবস্থা আশঙ্কাজনক। হামলার প্রতিবাদে সংসদ সদস্য অধ্যক্ষ শাহ আলম তাৎক্ষণিকভাবে সংবাদ সম্মেলন করে এমপি একেএমএ আউয়ালের সমর্থকদের দায়ী করেছেন।
জানা গেছে, পিরোজপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যক্ষ শাহ আলম বুধবার সকালে কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে নাজিরপুর উপজেলায় গণসংযোগের জন্য স্থানীয় শ্রীরামকাঠী বাজারে পৌঁছলে তাতে বাধা দেয় নাজিরপুরের যুবলীগ ও ছাত্রলীগের কর্মীরা। বাধা উপেক্ষা করে গণসংযোগ করতে চাইলে সাংসদ আউয়ালের সমর্থিত নাজিরপুর উপজেলা যুবলীগ, ছাত্রলীগের সশস্ত্র কর্মী-সমর্থকরা অতর্কিতে হামলা করে অধ্যক্ষ শাহ আলম ও তার সমর্থকদের ওপর। এ সময় স্থানীয়রা নাজিরপুর থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। হামলায় সাংসদ শাহ আলমের ২৫ জন নেতাকর্মী আহত হন। সংবাদ সম্মেলনে এমপি শাহ আলম বলেন, সকাল সাড়ে ১০টার সময় ৮-১০টি ট্রলারে দলীয় লোকজন নিয়ে শ্রীরামকাঠী লঞ্চঘাটে উঠলে স্থানীয় ছাত্রলীগ ও যুবলীগ কর্মীরা তার ওপর হামলা চালায়। এ সময় তাদের ২৫ জন কর্মী আহত হয়। তিনি অভিযোগ করে বলেন, আওয়ামী লীগের জেলা পর্যায়ের কারও উস্কানিতে এ ধরনের ঘটনা ঘটতে পারে।
এ ব্যাপারে নাজিরপুর উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক খোকন কাজী জানান, হামলার ব্যাপারে আমরা জড়িত নই। বহিরাগত কেউ এ হামলা করতে পারে।