মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
বৃহস্পতিবার, ২৯ আগষ্ট ২০১৩, ১৪ ভাদ্র ১৪২০
বস্তি দখলের প্রতিবাদে থানা ঘেরাও
নিজস্ব সংবাদদাতা, গৌরনদী, ২৮ আগস্ট ॥ বরিশাল নগরীর বালুর মাঠ বস্তির বাসিন্দাদের উচ্ছেদের জন্য হামলার ঘটনায় কোতোয়ালি মডেল থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ মিছিল করেছেন বস্তির বাসিন্দারা। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার রাতে। এ সময় বিক্ষুব্ধরা অনতিবিলম্বে হামলাকারীদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন। বস্তির বাসিন্দা মোঃ হায়দার আলী জানান, স্থানীয় প্রভাবশালী ভূমিদস্যুদের হাত থেকে রক্ষা পেতে ইতোমধ্যে তারা পুলিশ কমিশনারের কাছে আবেদন করেছেন। তাদের আবেদনের প্রেক্ষিতে ভূমিদস্যু হারুন ফকিরের সহযোগী কাদের চাপরাশি, সহিদুল ইসলাম ও জামায়াত নেতা আমিনুল ইসলামকে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় কোতোয়ালি মডেল থানার এস আই মহিউদ্দিন আটক করে থানায় নিয়ে আসেন। পরবর্তীতে ওইদিন রাতেই তাদের ছেড়ে দেয়া হয়। ছাড়া পেয়ে তারা পুনরায় বালুর মাঠ বস্তির বাসিন্দাদের উচ্ছেদ করার জন্য বিভিন্ন ধরনের হুমকি প্রদর্শন করে। এ ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষুব্ধ বস্তিবাসী আটক ও হামলাকারীদের শাস্তির দাবিতে রাতেই থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। পরবর্তীতে থানা পুলিশের আশ্বাসে বিক্ষুব্ধরা শান্ত হয়।

রাজশাহীতে দু’গ্রুপে সংঘর্ষে নিহত এক
স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ রাজশাহী মহানগরীর গুড়িপাড়া এলাকায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে দুইপক্ষের ব্যাপক সংঘর্ষে শাহেন শাহ্ নামের এক ব্যক্তি খুন হয়েছেন। বুধবার দুপুরে দুইপক্ষের ব্যাপক সংঘর্ষে মারা যায় শাহেন শাহ। ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সংঘর্ষ চলাকালে প্রতিপক্ষের লোকজন ধারালো অস্ত্র দিয়ে উপর্যুপরি কুপিয়ে আহত করে শাহেন শাহ্কে। মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে দ্রুত রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নেয়া হয়। জরুরী বিভাগ থেকে চিকিৎসার জন্য ৮ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করার আগেই তার মৃত্যু হয়। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর মনসুর আলীর ভাতিজা মোমেনের সঙ্গে একই এলাকার রজব আলীর ছোট ভাই শাহেন শাহ্র দীর্ঘদিনের বিরোধ ছিল। গত সিটি নির্বাচনে রজব আলী কাউন্সিলর পদে নির্বাচনে অংশ নিলে বিরোধ আরও বাড়ে। এরই জের ধরে মঙ্গলবার দুপুরে শাহেন শাহ্র সঙ্গে মোমেনের বাকবিত-া হয়। ওইদিন মোমেনের নেতৃত্বে গোলাম, আজাদ, রাজাসহ ২০ থেকে ২৫ জনের একটি দল শাহেন শাহ্কে মারার উদ্দেশ্যে রজব আলীর চেম্বারে হামলা চালায়। এ সময় হামলাকারীরা চেম্বারে ভাংচুর চালায় ও সেখানে বসে থাকা রবিউল ইসলাম ও নিজাম উদ্দীনকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। হামলাকারীদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে তারা দুইজনই গুরুতর আহত হন। তারা রামেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এ ঘটনার জের ধরে বুধবার দুইপক্ষের মধ্যে আবারও সংঘর্ষ বাধে। এ সময় মোমেন গ্রুপের লোকজন শাহেন শাহ্কে ধারালো অস্ত্র দিয়ে উপর্যুপরি কোপায়। মুমূর্ষু অবস্থায় হাসপাতালে নেয়ার পর তার মৃত্যু হয়।
নড়াইলে আহত ৫০
নিজস্ব সংবাদদাতা নড়াইল থেকে জানান, নড়াইলের দত্তপাড়ায় বুধবার সকালে দু’দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে নারী-পুরুষসহ কমপক্ষে ৫০ ব্যক্তি আহত হয়েছে। আহতদের নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। জানা গেছে, এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সদর উপজেলার দত্তপাড়া গ্রামের আলতাফ হোসেন গ্রুপের সঙ্গে সালাম শেখের গ্রুপের দীর্ঘদিন ধরে দ্বন্দ্ব সংঘাত চলে আসছিল। এর জের ধরে বুধবার সকালে উভয় গ্রুপ ঢাল, সড়কি, ইটসহ বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। ঘণ্টাব্যাপী চলা এ সংঘর্ষে উভয় গ্রুপের ৫০ জন আহত হয়। এদিকে নড়াইল সদর হাসপাতালে চিকিৎসাকালে দু’পক্ষের সমর্থকরা বাকবিত-ায় জড়িয়ে পড়ে। এ সময় চিকিৎসাকাজে মারাত্মক ব্যাহত হয়। বিষয়টি সদর থানা পুলিশকে অবহিত করলে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ এনে কমপক্ষে ১০ জনকে আটক করে।