মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
শনিবার, ১৭ জুলাই ২০১০, ২ শ্রাবণ ১৪১৭
মিডিয়াকে ম্যানেজ করতে সিএমপির দুই কর্মকর্তার গোপন বৈঠক
মাকসুদ আহমদ, চট্টগ্রাম অফিস ॥ চট্টগ্রামে মিডিয়াকে ম্যানেজ করতে বৃহস্পতিবার রাতে নগরীর গোল পাহাড় মোড়ের কফি ইন রেস্টুরেন্টে অসাধু দুই পুলিশ কর্মকর্তার গোপন বৈঠক হয়েছে। পুলিশের কোন অভিযানের প্রেক্ষিতে এ ধরনের বৈঠক হয়নি বলে সিএমপির এক উর্ধতন কর্মকর্তা সূত্রে জানা গেছে।
বৃহস্পতিবার সকালে নতুন পুলিশ কমিশনার মোঃ আবুল কাশেমের সঙ্গে পরিচিতি সভা ছিল সাংবাদিকদের। এ সভায় বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার প্রায় ৩০ সাংবাদিক উপস্থিত ছিলেন। পরিচিতি সভায় পুলিশের বিভিন্ন দুনর্ীতি ও হয়রানি নিয়েও প্রশ্ন ছুড়ে দেয়া হয় নতুন কমিশনারের উদ্দেশ্য। নবনিযুক্ত সিএমপি কমিশনার সাংবাদিকদের উদ্দেশ করে বলেন, কোন দুনর্ীতিবাজ পুলিশ কর্মকর্তার সিএমপিতে ঠাঁই নেই। এ সময় তিনি সাংবাদিকদের সহযোগিতাও চেয়েছেন তথ্যের জন্য। এমনকি সরাসরি অভিযোগ জানানোর জন্য সাংবাদিকদের জানান।
নতুন কমিশনারের এ ধরনের বক্তব্যে কোতোয়ালি জোনের সহকারী কমিশনার কাজী হেলাল উদ্দিন ও কোতোয়ালি থানার ওসি গাজী সাখাওয়াত হোসেন আতঙ্কে থাকায় এ ধরনের নৈশভোজের আয়োজন করেছেন বলে পুলিশের একটি সূত্রে জানা গেছে। উলেস্নখ্য, নগরীর পাঁচলাইশ থানাধীন গোল পাহাড় মোড়ে কফি ইন রেস্টুরেন্টে বৃহস্পতিবার রাত ৯টা থেকে ১১টা পর্যনত্ম এ আয়োজন অব্যাহত ছিল। এ সময় এসি কোতোয়ালি ও ওসি কোতোয়ালি দু'জনই উপস্থিত ছিলেন।
দুনর্ীতির বিষয় ধামাচাপা দেয়ার ও আগামীতে মিডিয়াতে দুনর্ীতিবাজ কর্মকর্তাদের বিষয়ে রিপোর্ট প্রকাশ না করার উদ্দেশ্যেই এ ধরনের নৈশভোজের আয়োজন করা হয়েছে।
এ প্রসঙ্গে সিএমপির এক উর্ধতন কর্মকর্তা জানান, উদ্দেশ্যমূলক কোন ধরনের সভা-সেমিনার বা বৈঠকের আয়োজন সম্পূর্ণ অবৈধ। এ ধরনের আয়োজনের ভোজ ব্যয় কোন তহবিল থেকে পরিশোধ করা হয়েছে তা পুলিশ কর্মকর্তাকে জবাবদিহি করতে হবে।