মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
সোমবার, ১ ডিসেম্বর ২০১৪, ১৭ অগ্রহায়ন ১৪২১
ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের দাপুটে জয়
স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ভঙ্গুর অবস্থা থেকে ধীরে ধীরে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগে শনিবার দাপুটে জয়ে সে স্বাক্ষরই রেখেছে লীগের ইতিহাসের সর্বাধিক ২০ বারের চ্যাম্পিয়নরা। ঘরের মাঠ ওল্ডট্রাফোর্ডে ম্যানইউ ৩-০ গোলে পরাজিত করে অতিথি হালসিটিকে। রেড ডেভিলসদের হয়ে গোলগুলো করেন ক্রিস স্মালিং, অধিনায়ক ওয়েন রুনি ও ডাচ্ তারকা রবিন ভ্যান পার্সি। ইপিএলের এবারের আসরে এই প্রথম টানা তিনটি ম্যাচ জিতল ইউনাইটেড।
লীগে এখনও নিজেদের অপরাজেয় যাত্রা অব্যাহত রেখেছে চেলসি। তবে পরশু এ্যাওয়ে ম্যাচে তাদের রুখে দিয়েছে স্বাগতিক সান্ডারল্যান্ড। ম্যাচটি গোলশূন্য ড্র হয়। ধুঁকতে থাকা লিভারপুল কোন রকমে জয় পেয়েছে। ম্যাচের শেষ দিকের গোলে দ্য রেডসরা ১-০ ব্যবধানে হারায় স্টোকসিটিকে। পরশুর অন্য ম্যাচে কুইন্স পার্ক রেঞ্জার্স ৩-২ গোলে লিচেস্টার সিটিকে, ওয়েস্টহ্যাম ইউনাইটেড ১-০ গোলে নিউক্যাসল ইউনাইটেডকে পরাজিত করে। বার্নলি-এ্যাস্টন ভিলা ও সোয়ানসি সিটি-ক্রিস্টাল প্যালেসের মধ্যকার ম্যাচ দুটি ১-১ গোলে ড্র হয়। পয়েন্ট খোয়ালেও লীগের শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে চেলসি। ১৩ ম্যাচে এখন পর্যন্ত অপরাজিত দলটির পয়েন্ট ৩৩। এক ম্যাচ কম খেলে ২৬ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে সাউদাম্পটন। ২৪ পয়েন্ট নিয়ে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটি তৃতীয় ও ২২ পয়েন্ট নিয়ে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের অবস্থান তালিকার চার নম্বরে।
নিজেদের মাঠে ম্যাচের ১৬ মিনিটে এগিয়ে যায় ম্যানইউ। ডান পায়ের আলতো শটে গোল করেন ক্রিস স্মালিং। জটলার মধ্যে স্মালিংয়ের হেড সিটির গোলরক্ষক রুখে দিলেও দলকে বিপদমুক্ত করতে ব্যর্থ হন তিনি। ফিরতি বলে গোল করেন ইংলিশ ডিফেন্ডার। ফিরতি শটটিও গোলরক্ষক দুইবারের প্রচেষ্টায় ফিরিয়ে দেন। কিন্তু গোললাইন প্রযুক্তিতে ধরা পড়ে, বল দাগ পার হয়ে গিয়েছিল। ম্যাচের ৪২ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন দলপতি রুনি। ভ্যান পার্সির বাড়ানো বলে গোল করেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক। বিরতির পর ৬৬ মিনিটে ইউনাইটেডের হয়ে তৃতীয় গোল করেন ভ্যান পার্সি।
ম্যাচ শেষে ম্যানইউ কোচ লুইস ভ্যান গাল রুনির প্রশংসা করলেও ভ্যান পার্সির সমালোচনা করেন। ভ্যান গাল বলেন, অধিনায়কত্বের দায়িত্ব পাওয়ার পর রুনির খেলার মান আগের থেকে অনেক ভাল হয়েছে। সে এখন ধারাবাহিকভাবে পারফর্মেন্স করছে। তিনি আরও বলেন, আমি এখানে আসার আগে রুনির অনেক প্রশংশা শুনেছিলাম। কিন্তু শুরুর দিকে তার পারফর্মেন্স খুব একটা ভাল দেখিনি। কিন্তু এখন সে অনেক উন্নতি করেছে। ডাচ্ কোচ আরও বলেন, রুনি এখন ম্যানইউর অধিনায়ক। আমি তার ব্যাপারে খুবই খুশি। সে অন্য ফুটবলারদের জন্য একটি ভাল উদাহরণ। আমি মনে করি রুনিই বর্তমানে এই ক্লাবের যোগ্য অধিনায়ক।