মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
সোমবার, ১ ডিসেম্বর ২০১৪, ১৭ অগ্রহায়ন ১৪২১
কোচ মরিনহোর অস্বীকার ॥ মেসির জন্য চেলসির চার শ’ কোটি!
স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ লিওনেল মেসির বার্সিলোনা ছাড়ার গুঞ্জনে খবর দিয়েছে ‘এক্সপ্রেস নিউজ’। সংবাদ মাধ্যমটি লিখেছে আর্জেন্টাইন খুদে জাদুকরকে পেতে ২০ কোটি পাউন্ড খরচ করবে ইংলিশ ক্লাব চেলসি। বাংলাদেশী মুদ্রায় যা ৪১৯ কোটি প্রায়! ‘বার্সায় ভাল নেই গোল মেশিন মেসি’, এমন খবর প্রচারের পর থেকেই তাকে পেতে মরিয়া হয়ে ওঠে বিশ্বজুড়ে সব ক্লাব। কিন্তু চেলসি এত টাকা পাবে কোথায়? স্পোর্টস সামগ্রী নির্মাতা প্রতিষ্ঠান এ্যাডিডাস নাকি অর্থের যোগান দেবে। তবে শুক্রবারের এ খবর শনিবারই নাকচ করে দিয়েছেন জোসে মরিনহো। চেলসি বস জানিয়েছেন মেসিকে কিনে নেয়ার তথ্য সত্য নয়। ওদিকে বার্সিলোনার ১১৫তম জন্মদিনে (২৯ নবেম্বর) শুভেচ্ছা জানিয়ে মেসি যে বক্তব্য রেখেছেন তাতেও ক্লাব ছাড়ার ইঙ্গিত মেলেনি। সুতরাং ঘটনা শেষ পর্যন্ত কোন দিকে গড়ায়, তা দেখতে অপেক্ষায় থাকতে হবে।
মরিনহো মুখে যাই বলুন, ধুরন্ধর চেলসি বস খুদে জাদুকর মেসিকে পেতে ভেতরে ভেতরে নাকি ঠিকই সচেষ্ট! এক্সপ্রেস নিউজের খবর খায়েস পূরণে সব ক্লাবকেই হয়ত পেছনে ফেলে দিতে পারেন ‘দ্য স্পেশ্যাল ওয়ান’। এ জন্য মোক্ষম দুটি চালই চেলেছেন তিনি। নামী স্পোর্টস ব্র্যান্ড এ্যাডিডাসের হাত ধরে আসরে নেমে পড়েছে চেলসি। যারা চেলসিকে ২০ কোটি পাউন্ড খরচের শক্তি যোগাতে আর্থিকভাবে সাহায্য করবে। কারণ, এ্যাডিডাস চেলসির জার্সি বানানো ছাড়া মেসিরও অন্যতম স্পন্সর। মেসির বুট থেকে রিস্টব্যান্ড, সব কিছুই বানায় প্রতিষ্ঠানটি। কিন্তু বার্সেলোনার জার্সি তৈরি করে আবার এ্যাডিডাসের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী নাইকি! শোনা যাচ্ছে, এ্যাডিডাসের কর্মকর্তারা ঠিক করেছেন মেসিকে তারা চেলসিতে নিয়ে আসবেনই! সূত্রটি আরও জানায়, ইউরোপজুড়ে এখন ফেয়ার-প্লের নিয়ম চালু হলেও, চেলসি মালিক ধনকুবের রোমান আব্রামোভিচ সবুজ সঙ্কেত দিয়েছেন মারিনহোকে, স্বপ্নের ফুটবলারকে যেভাবেই হোক নিজের দলে সই করাতে। গোপনে কাজ চালালেও, জনসমক্ষে প্রসঙ্গ উঠতেই মারিনহো বলেন, ‘ঘটনা সত্যি নয়। আমি এই প্রসঙ্গে কোন কথা বলব না।’ আর বার্সিলোনার ১১৫তম জন্মদিনে ক্লাবকে অভিনন্দন জানিয়ে মেসি তার ফেসবুক পেইজে লেখেন, ‘আমি বার্সেলোনার ফুটবলার। বার্সার জন্মদিনে ক্লাবকে অভিনন্দন জানাতে চাই। লা লিগায় ভ্যালেন্সিয়ার বিপক্ষে ম্যাচে জয় দিয়ে ক্লাবের জন্মদিন উদযাপন করব আমরা।’ ক্লাবের পক্ষ থেকে অভিনব পদ্ধতিতে ১১৫তম বর্ষ উদযাপন করা শুরু করেছে বার্সার ফুটবলাররা। ক্লাবকে আরও এগিয়ে নিতে কর্তৃপক্ষ নতুন ট্যাগলাইন নির্বাচন করেছে ‘সোক কুলার’। যার অর্থ ‘আমি একজন বার্সার সমর্থক’। ইংরেজীতে কাতালানদের আদ্যাক্ষর ‘সি’। আর তাই হাতের পাঁচটি আঙ্গুল এক করে ইংরেজী ‘সি’ অক্ষরের মতো করে সকলকে ছবি আর ভিডিও পোস্ট করতে বলছে বার্সা। মেসিও তাই-ই করেছেন।