মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
সোমবার, ২৮ অক্টোবর ২০১৩, ১৩ কার্তিক ১৪২০
স্মিথের সন্তোষ
স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দুবাই টেস্ট জিতে সিরিজ বাঁচিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। সঙ্গে গৌরবের এক ধারাও অব্যাহত থাকল প্রোটিয়াদের। গত সাত বছরে দেশের বাইরে টেস্ট সিরিজে হারেনি বর্তমান র‌্যাঙ্কিংয়ের এক নম্বর এ দলটি! ২০০৬ সালে শ্রীলঙ্কায় সর্বশেষ মাথা নুইয়েছিল। এরপর কেবল জয়, ড্র, আর জয়। ক্রিকেটের কুলীন আঙ্গিনায় সাফল্যের পর সাফল্য। আরব আমিরাতে আবুধাবীর প্রথম টেস্টে পাকিস্তানের কাছে হারের পর শঙ্কা ছিল সেই ধারায় ছেদ পড়ার। কিন্তু সিরিজ নির্ধারণী দ্বিতীয় ম্যাচে ইনিংস ও ৯২ রানের বিশাল জয়ে সাফল্য-ধারা অব্যাহত রাখে দক্ষিণ আফ্রিকা। সিরিজ জিততে না পারলেও তাই উচ্ছ্বসিত গ্রায়েম স্মিথ। ‘সত্যি গর্বিত আমি। গত সাত বছরে বিভিন্ন সফরে অনেক বড় দলকে মোকাবেলা করেছি। বিদেশে, এমনকি দেশেও এখন আমাদের টেস্ট অর্জন গর্ব করার মতো।’ বলেন প্রোটিয়া সেনাপতি। স্মিথ আরও বলেন, ‘ঘরের মাটিতে শক্তিশালী অনেক দল প্রায়শ বিদেশে বাজে পরিস্থিতির মুখে পড়ে। ভিন্ন সব কন্ডিশনে চাপ মোকাবেলা করে সেরাটা দিতে আমাদের সাফল্য এখন প্রমাণিত।’ স্মিথদের আফসোস হতে পারে আবুধাবী হার। ২০১২ থেকে এ পর্যন্ত নিজেদের ১৮তম ম্যাচে এসে টেস্ট হারের স্বাদ পায় প্রোটিয়ারা। তবে এ সময়ে ঘরের মাটিতে অস্ট্রেলিয়ার কাছে সিরিজ হারে তারা।

ডুপ্লেসিসের ‘শাস্তি’ নিয়ে পিসিবির অসন্তোষ!
স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) চেয়ারম্যান নাজাম শেঠি আইসিসির ওপর ক্ষেপেছেন। আইসিসির কাছে চেয়েছেন ব্যাখ্যাও। কারণ, যে অপরাধে পাকিস্তান অলরাউন্ডার শহীদ আফ্রিদিকে ম্যাচ নিষেধাজ্ঞা বহন করতে হয়েছিল, ঠিক একই অপরাধে অর্থ জরিমানা দিয়েই পার পাচ্ছেন দক্ষিণ আফ্রিকা ব্যাটসম্যান ফাফ ডুপ্লেসিস। ২০১০ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টি২০ সিরিজে বল টেম্পারিংয়ের অভিযোগে নিষিদ্ধ হয়েছিলেন তারকা অলরাউন্ডার আফ্রিদি। এবার আরব আমিরাতে দ্বিতীয় টেস্টে একই অভিযোগ ওঠে প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান ডুপ্লেসিসের বিরুদ্ধে।