মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
সোমবার, ২৫ জুলাই ২০১১, ১০ শ্রাবণ ১৪১৮
জহিরের পর শচীনকে নিয়েও শঙ্কায় ভারত
স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ লর্ডসের ঐতিহাসিক টেস্ট শেষ অবধি ভারতের জন্য দুঃসংবাদেরই অন্য নাম না হয়ে দাঁড়ায়! দ্বিতীয় ইনিংসের শুরম্নতেই স্বাগতিক ইংল্যান্ডের ব্যাটিং লাইনে বড় রকমের ধাক্কা দিয়েছেন ক্যারিবীয় সফরে চমৎকার নৈপূণ্য মেলে ধরা পেসার ইশান্ত শর্মা। প্রথম সেশনে ঝড়োগতির এক স্পেলে জোনাথন ট্রট, প্রথম ইনিংসের ডবল সেঞ্চুরিয়ান কেভিন পিটারসেন ও টপ অর্ডারের অন্যতম ভরসা বেলকে তুলে নিয়ে ৬৪/৫ এ পরিণত করেছেন ইংলিশদের। কিন্তু তবুও ভারতের জন্য আরেকটি দুঃসংবাদ, জহির খানের পর অসুস্থতার জন্য চতুর্থ দিনে ফিল্ডিংয়ে নামতে পারেননি মাস্টার ব্যাটসম্যান শচীন টেন্ডুলকর। গতকাল ম্যাচের চতুর্থ দিনে শারীরিক সমস্যার জন্য মাঠে দেখা যায়নি তাকে। ঠিক কি সমস্যা তার উলেস্নখ না করলেও টিম ম্যানেজমেন্টের উদ্ধৃতি দিয়ে ভারতীয় মিডিয়া জানায়, 'ভাইরাল ইনফেকশনে'র কারণে আপাতত মাঠে থাকার মতো অবস্থায় নেই শচীন। শীঘ্রই_ গতকাল অথবা আজই মাঠে দেখা যাবে কি-না, সেটিও নিশ্চিত করতে পারেনি সূত্রটি। তবে গতকালই মেডিক্যাল নির্দেশনা পাওয়ার জন্য শচীনকে নিয়ে স্থানীয় হাসপাতালে যোগাযোগ করে ইংল্যান্ড সফরে ভারতের পরিচর্যায় থাকা দায়িত্বশীলরা। শততম টেস্ট সেঞ্চুরির সন্ধিৰণে দাঁড়িয়ে প্রথম ইনিংসে অবশ্য খুব একটা সুবিধা করতে পারেননি ভারতের শীর্ষ ব্যাটিং তারকা। ওয়ান ডাউনে ব্যাট করতে নেমে স্টুয়ার্ট ব্রডের বলে গ্রায়েম সোয়ানের হাতে ক্যাচ তুলে দেয়ার আগে ৩৪ রান করেছিলেন শচীন। কিন্তু শেষ পর্যনত্ম অসুস্থতার জন্য মহাগুরম্নত্বপূর্ণ লর্ডস টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে না পারলে সফরকারীদের জন্য সেটি হবে সত্যি বড় দুঃসংবাদ। অন্যদিকে হ্যামস্ট্রিংয়ের ইনজুরির কারণে প্রথম দিনেই মাঠের বাইরে ছিটকে যাওয়া জহির খানকে নিয়েও খানিকটা ধোঁয়াশার সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনার দিন অর্থাৎ ২১ তারিখ সন্ধ্যায় এমআরএফের পরই বলা হয়েছিল কেবল এই টেস্টই নয়, গোটা সিরিজে অনিশ্চিত দলের প্রধান স্ট্রাইক বোলার জহির খান। তার পরও গতকালই উড়ো খবর রটে দ্বিতীয় ইনিংসে বল হাতে মাঠে দেখা যাবে তাকে_ অবশ্য এ রিপোর্ট লেখার সময় ভারত যখন দ্বিতীয় ইনিংসে ইংল্যান্ডের পাঁচ উইকেট তুলে নেয়, তখনও মাঠে জহিরের টিকিটি পড়েনি। সুতরাং এটা নিশ্চিত যে জহিরকে সহসাই পাচ্ছে না সফরকারীরা; সঙ্গে নতুন করে শঙ্কা তৈরি হলো টেন্ডুলকরকে নিয়ে। সব মিলিয়ে বহুল আলোচিত ২০০০তম টেস্টে চ্যাম্পিয়নদের সার্বিক অবস্থাটা দেখার জন্য আজকের পঞ্চম ও শেষদিন পর্যন্ত অপেক্ষায় থাকতে হচ্ছে ক্রিকেটভক্তদের।

বিশ্ব সাঁতারে চীনের আধিপত্য, ফেলপসের যুক্তরাষ্ট্রের হার
স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ সাংহাইয়ে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপ সাঁতারে চীনের প্রাধান্যে শেষ হয়েছে প্রথমদিন। তবে ১০০ মিটার রিলে সাঁতারে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন যুক্তরাষ্ট্রকে হারিয়ে দিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। মাইকেল ফেলপসের নেতৃত্বাধীন যুক্তরাষ্ট্র খুব ধীর সূচনা করে। আর সে সুযোগে অনেকটাই এগিয়ে যায় আমেরিকান সাঁতারম্নরা। আর এর ফলে অসিরা ৩ মিনিট ১১ সেকেন্ড সময় নিয়ে শীর্ষে থাকা ফ্রান্সকেও ছাড়িয়ে যায় আর তৃতীয় স্থানে ঠেলে দেয় মার্কিনীদের। প্রথমদিনে পুলে ঝড় তোলা চীনা সাঁতারম্নরা ডাইভিংয়ে প্রথম ১০টিতে নিজেদের প্রাধান্য ধরে রাখার পর এটি ছিল দ্বিতীয় ব্যতিক্রম। এর আগে দৰিণ কোরিয়ার পার্ক তায়ে-হোয়ান ৪০০ মিটার ফ্রি স্টাইলে চীনের সুন ইয়াংকে পরাজিত করে চীনের একক আধিপত্য খর্ব করতে শুরম্ন করেন। আর এটি ছিল চীনা সাঁতারম্নদের দুটি ব্যক্তিগত ইভেন্টে একমাত্র ইভেন্ট যেটিতে তারা সোনা ও রূপা দুটিই জিততে ব্যর্থ হয়। এ ইভেন্টে গতবারের চ্যাম্পিয়ন জার্মানির পল বাইডারম্যান ব্রোঞ্জ জেতেন।