মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
শনিবার, ৯ এপ্রিল ২০১১, ২৬ চৈত্র ১৪১৭
অন্তত একটি জয় প্রত্যাশা বাংলাদেশের
অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম ওয়ানডে আজ মিরপুরে
মিথুন আশরাফ ॥ 'সিরিজের ফল কি হবে তা বলা মুশকিল। তবে যদি পরিষ্কারভাবে চিন্তা করি অবশ্যই মনে হবে ৩-০। তার পরেও একটা ম্যাচ আমরা জিততেই পারি। সে রকম সামর্থ্য আমাদের আছে এবং আমরা বিশ্বাসও করি সম্ভব।' আজ শনিবার বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। এই ম্যাচের আগে গতকাল শুক্রবার ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে সিরিজের রেজাল্ট কি হতে পারে? এমন প্রশ্নে বাংলাদেশের অধিনায়ক শাকিব আল হাসানের জবাব। তাতেই বোঝা যাচ্ছে একটি ম্যাচে জয়ের আশা করছে বাংলাদেশ। তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ শুরম্ন হচ্ছে আজ শনিবার। সকাল সাড়ে ৯টায় মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে আজ শুরম্ন হবে প্রথম ওয়ানডে। অস্ট্রেলিয়ার বিরম্নদ্ধে যা বাংলাদেশের ১৭তম ম্যাচে মুখোমুখি হবে। এই ম্যাচের আগে শুক্রবার নিজেদের শেষবারের মতো ঝালাই করে নিয়েছে শাকিব বাহিনী। অনুশীলন শেষে দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে শুধু সিরিজ নিয়েই নয়, আরও অনেক বিষয়েই মুখ খুলেছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক। অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক এখন ক্লার্ক। রিকি পন্টিং নেতৃত্ব ছাড়ার পর বলতে গেলে নতুন অধিনায়কের হাতে অসি দল। সেই দলের বিরম্নদ্ধে খেলছে শাকিব বাহিনী। বিশ্বকাপের পর যা বাংলাদেশের এবং অস্ট্রেলিয়ারও প্রথম সিরিজ। প্রত্যাশা কী? শাকিবের দৃষ্টিতে ভাল ক্রিকেট খেলাই জরম্নরী, 'আমাদের ভাল ক্রিকেট খেলা সবচেয়ে জরম্নরী। যতদূর আশা করছি বিশ্বকাপে সেইরকম ফল বের করে আনতে পারিনি। তবে ওটাই শেষ ছিল না। এখন আবার নতুন সুযোগ। নতুন চ্যালেঞ্জ। সেভাবেই সবাই প্রস্তুত।' মাশরাফিকে নিয়ে অনেক জল ঘোলা হয়েছে। সিরিজে খেলবেন কি খেলবেন না 'নড়াইল এঙ্প্রেস' এ নিয়ে ছিল দ্বিধাদ্বন্দ্ব। শাকিব নিজেই সেই বিতর্ক একেবারে ঝেরে ফেলে দিলেন, 'উনি দলের সঙ্গেই আছেন। খেলার জন্য ফিট। উনি দলের সঙ্গেই থাকছেন।' আর তাকে একাদশে খেলানোর বিষয়ে বাংলাদেশ অধিনায়কের জবাব, 'এখনও সিদ্ধানত্ম হয়নি। এখনই বলা মুশকিল। উনি যখনই দলে থাকে সব সময়ই ম্যাচ খেলছে। বাংলাদেশের জন্য ভাল কন্ট্রিবিউটও করেছেন। যখন দল নিয়ে চিনত্মা করব তখন ভালভাবেই চিনত্মা করব। তবে দল বিশ্বকাপের মতই হবে। খুব বেশি পরিবর্তন হওয়ার সম্ভাবনা নেই। একটা পরিবর্তন হতে পারে।' আর মাশরাফির এমন কা-ে দলে কোন প্রভাব পড়ছে কিনা সেই বিষয়েও মুখ খুললেন শাকিব, 'আমরা যখন অনুশীলন করি তখন নিজেদের লৰ্যগুলো সেট করা থাকে। অন্য দিকটা চিনত্মা করি না তেমন। মনে হয় না কোন প্রভাব ফেলবে। তবে একটু কম হলেও করতে পারে। হয়ত মনের অজানত্মেই করতে পারে। তবে এটা বলা মুশকিল।' বিশ্বকাপে দলের ব্যাটিং ভাল হয়নি। তার সঙ্গে ৫৮ ও ৭৮ কা-ও যুক্ত। এবার অসিদের বিরম্নদ্ধে সিরিজে ব্যাটিং নিয়ে সবার মধ্যেই দুশ্চিনত্মা রয়েছে। শাকিব আরও ভাল করার দিকেই জোড় দিলেন, 'বিশ্বকাপে যেটা করছি তারচেয়ে ভাল কিছু করার আশা অবশ্যই আছে। অল্প করলেও হবে না। অনেক ভাল করতে হবে। তবে ব্যাটিং অবশ্যই উন্নতি করা উচিত। আমার কাছে মনে হচ্ছে একই সিরিজ। চাপ আছে আবার নাই মনে হচ্ছে। আমাদের কাছে বিষয়টা একইরকম। বিশ্বকাপে যতটা সিরিয়াস ছিলাম। এখানও ততটাই সিরিয়াস থাকব। এখানেও ভাল করার জন্য খেলব।' অস্ট্রেলিয়ার যেন সেই জোশ আর নেই। কেমন ঝিমিয়ে গেছে। টানা তিনবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা এবার কোয়ার্টার ফাইনালেই বিদায় নিয়েছে। দলটির শক্তি ও দুর্বলতার কথা বলতে গিয়ে শাকিবের মনত্মব্য, 'বিশ্বকাপে ওদের যে দলটা ছিল মোটামুটি সেই দলই আছে। হয়ত দু'-একজন পরিবর্তন হয়েছে। বাকি যারা আছে আগেই খেলছে। ওদের অভিজ্ঞ একটা দল। ওরা এখনও বিশ্বকাপের এক নম্বর দল। ওদের সঙ্গে খেলা খুবই কঠিন হবে। বলতে গেলে অস্ট্রেলিয়ার তিনটা দিকই ভাল। ব্যাটিং, বোলিং ও ফিল্ডিং। আমরা অবশ্যই চেষ্টা করব গেম পস্ন্যান অনুযায়ী খেলার। তবে গেম পস্ন্যান যে সব সময় সফল হবে এমনও নয়। তার পরও পস্ন্যান করেই এগিয়ে যাব।' ব্যক্তিগতভাবে শাকিব এবার বিশ্বকাপে তেমন আহামরি কিছু করে দেখাতে পারেননি। যেমনটি তার কাছ থেকে আশা করা হয়। অস্ট্রেলিয়ার বিরম্নদ্ধে সিরিজে ভাল করতে চান বাংলাদেশ অধিনায়ক, 'ভাল করলে অবশ্যই সেটা ভাল। দলের জন্যই ভাল হবে। আমি চাইব কন্ট্রিবিউট করতে। বাকিটা দেখা যাবে কী হয়।' আর স্পিনারদের বিষয়ে শাকিবের অভিমত, 'আমার মনে হয় না বিশ্বকাপে খুব একটা খারাপ করছি। স্পেশালি স্পিনাররা ভাল বল করছে। উইকেটের দিক দিয়ে দেখা যাচ্ছে তেমন ভাল না। তবে সবাই ভাল করেছে। কন্ট্রিবিউট করেছে। সবার ভাল করার চিনত্মা করলে আগের সিরিজের চেয়ে এবার যতটা বেশি ভাল করা যায়। সেদিকেই লৰ্য থাকবে। একটা সিরিজে আমরা ভাল খেলিনি। খারাপ জায়গাগুলো অবশ্যই দূর করতে হবে। সবার ভেতরেই এই লৰ্য আছে।' বিশ্বকাপে ক্রিকেটারদের ওপর স্বাভাবিকভাবেই চাপ ছিল। সেইরকম চাপ কী এই সিরিজেও থাকছে, নাকি অনেকটাই রিল্যাঙ্? শাকিব চাপকে দূরেই সরিয়ে রাখতে চাইলেন, 'ওইরকম চাপ অবশ্যই থাকবে না। এটা ভাল দিকও বলতে পারেন। খারাপ দিকও বলতে পারেন। তবে আমাদের কাছে একই রকম বিষয়। একটা ক্রিকেট ম্যাচই খেলতেছি। একটা সিরিজই খেলতেছি। যাদের বিরম্নদ্ধে খেলতেছি তাদের সঙ্গে ভাল ক্রিকেট খেলতে হবে ভাল ফল আনতে হলে।' বিসিবি একাদশের সঙ্গে একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছে অস্ট্রেলিয়া। রান করেছে ৩০৮। ব্যাটিংয়ে নিজেদের ঝালাই করে নিয়েছে। আর বোলিংয়ে দেখিয়েছে চমক। বিশেষ করে পেসার হাস্টিং হ্যাটট্রিক করেছেন। ম্যাচটির পর বিসিবি একাদশের ক্রিকেটারদের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে বলেও জানালেন শাকিব, 'হঁ্যা মিটিংয়ে ওরা কথা বলেছে। ওরা যেটা অনুভব করছে বলছে। সবাই তা শুনছেও।'
পাওয়ার পেস্নতে বাংলাদেশ অনেকটাই দুর্বল। বেশিরভাগ সময়ই তা চোখে পড়ছে। তাই পাওয়ার পেস্ন নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে যেন একটি প্রশ্ন নির্ধারিতই থাকে। এবারও হলো। আর শাকিবও জবাব দিলেন এমনভাবে, 'আপাতত মূল লৰ্য হচ্ছে ৫০ ওভার ব্যাটিং করা। এরপর পাওয়ার পেস্ন সামনে আসলে দেখা যাবে। এর পরও ছোটখাটো আলোচনা সব বিষয় নিয়েই হয়, হয়েছেও।' বিশ্বকাপে ১০ দলকে খেলানোর যে সিদ্ধানত্ম নিয়েছে আইসিসি সেই সিদ্ধানত্মে যেন শাকিবও একমত, 'সিদ্ধানত্ম সঠিক না ভুল বলা অনেক কঠিন। কারণ আয়ারল্যান্ড বিশ্বকাপে অনেক ভাল খেলেছে। তারা খেলতে পারবে না আগামী বিশ্বকাপ। স্বাভাবিকভাবেই নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। তবে দীর্ঘমেয়াদী ভাবলে সঠিক সিদ্ধানত্মই।' সঙ্গে আইসিসি কোর্টেই বল ঠেলে দিলেন, 'আমরা ৯ নম্বর দল, যা সিদ্ধানত্ম নেয়ার আইসিসিই নেবে। ক্রিকেটের জন্য কোন্টা ভাল হবে তা আইসিসিই ভাল বুঝবে।'