মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
শনিবার, ১২ জানুয়ারী ২০১৩, ২৯ পৌষ ১৪১৯
তৃণমূল নারী জনপ্রতিনিধিরা অনেক এগিয়ে
গ্রামের মানুষের খুব কাছের স্থানীয় সরকারের তৃণমূলের সেবাদানকারী সংস্থা ইউনিয়র পরিষদে নারীর ক্ষমতায়ন হয়েছে। কিন্তু নারীর ক্ষমতায়নের মাত্রা কত? স্থানীয় সরকারের নির্বাচিত নারী সদস্যরা আরও বেশি কাজ করতে চায়। কিন্তু কাজের সুযোগ এখনও সীমিত বলে মনে করছেন নির্বাচিত নারী প্রতিনিধিরা। সাধারণ মানুষও আজ নারীর ক্ষমতায়ন নিয়ে উচ্চকিত। এ নিয়ে সরকারী এবং বেসরকারী প্রতিষ্ঠানগুলো নানা সময়ে সভা-সেমিনার করছে। তবে নারীরা এখন অনেক এগিয়ে তাতে কোন সন্দেহ নেই। স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানসমূহে শতকরা ৩০ ভাগ নারী সদস্যদের জন্য . . .
গাইবান্ধার আলোকিত তিন নারীনেত্রী
প্রান্তিক জনগোষ্ঠী থেকে নিজ অধ্যবসায় ও কর্ম প্রচেষ্টায় আত্মনির্ভর প্রতীকে পরিণত হয়েছেন গাইবান্ধার আলোকিত ৩ নারীনেত্রী কাজল রেখা, জুলেখা বেগম ও জাহানারা বেগম। সম্প্রতি বেগম রোকেয়া দিবসে তাদের কর্মের সাফল্যের স্বীকৃতিস্বরূপ সংবর্ধনা এবং বেগম রোকেয়া স্মৃতি পদক প্রদান করা হয়। রোকেয়া দিবস উপলক্ষে গাইবান্ধা পৌর পার্ক ও শহীদ মিনার চত্বরে গণউন্নয়ন কেন্দ্র আয়োজিত ‘উন্নয়ন সম্ভাবনায় নারী’ শীর্ষক কর্মসূচীর আওতায় দু’দিনব্যাপী নারী মেলায় তাদের পদক প্রদানসহ সংবর্ধিত করা হয়। কাজল রেখা গাইবান্ধার . . .
জুলেখা বেগম
প্রান্তিক জনগোষ্ঠী থেকে উঠে আসা গাইবান্ধা সদর উপজেলার বানিয়ারজান গ্রামের জুলেখা বেগম। জীবন জীবিকার শূন্য অবস্থান থেকে যিনি একজন সংগ্রামী এবং নারী উন্নয়নের পথিকৃতে পরিণত হয়েছেন। অধ্যবসায় আর কর্মনিষ্ঠা যার সাফল্যের চাবিকাঠি। এ কারণে এ বছর বেগম রোকেয়া দিবস উপলক্ষে তিনি সংবর্ধিত হন এবং রোকেয়া স্মৃতি পদক লাভ করেন। এ উপলক্ষে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন গণউন্নয়ন আয়োজিত ‘উন্নয়ন ও সম্ভাবনায় নারী’ শীর্ষক দু’দিনব্যাপী নারী মেলায় তাকে এ সম্মাননা প্রদান করা হয়। চরম দারিদ্র্যে আর অসহায় অবস্থায় ১৯৮৭ সালের . . .
প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি কুকরী-মুকরী
হিমালয় থেকে নেমে আসা তিনটি প্রধান নদী পদ্মা, মেঘনা ও ব্রক্ষপুত্রের বাহিত পলি দিয়ে মোহনার বুকে জেগে উঠেছে দ্বীপ জেলা ভোলা। এ জেলার আবিষ্কার ইতিহাসে যেমন আর্কষণীয়, ঠিক তেমনি প্রকৃতিক সৌন্দের্যের দিক দিয়ে এটি রয়েছে দাপটের সঙ্গে এগিয়ে। ভোলা সদর থেকে ৮০ কিলোমিটার দক্ষিণ দিকে বঙ্গোপসাগরের কোল ঘেঁষে মেঘনা নদীর মোহনায় কুকরী-মুকরীর অবস্থান। চারদিকে জলরাশি দ্বারা বেষ্টিত প্রমত্তা মেঘনার উত্তাল ঢেউয়ে পলি জমতে জমতে এ দ্বীপটির জন্ম। সাগরের কোল ঘেঁষে জন্ম নেয়ায় কুকরী-মুকরীকে অনেকে স্বপ্নের দ্বীপ হিসেবে আখ্যায়িত . . .
‘ভ্যাগজালে’ মাছের বংশ উজাড়
মাছের বংশ উজার করার নতুন এক উপদ্রবের নাম ‘ভ্যাগজাল।’ পটুয়াখালীর উপকূলীয় রাঙ্গাবালী উপজেলায় স্থানীয়দের আবিষ্কার করা বিশেষ ধরনের এ জালের সাহায্যে গত কয়েক মাস ধরে চলছে মাছের বংশ উজার করার পালা। এ জালে মাছ ঢুকতে পারে কিন্তু বের হতে পারে না। এমনকি সাধারণ চোখে ধরা পড়ে না এমন ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র মাছও এ জালের ফাঁক গলে বের হতে পারে না। রাঙ্গাবালীর বনাঞ্চলের অন্তত দুশ খালে কয়েক হাজার জেলে এ জাল দিয়ে মাছ ধরছে। এ জালের ছড়াছড়িতে একদিকে মাছের বংশ উজার হচ্ছে, অন্যদিকে দেশীয় প্রজাতির মাছ বিলুপ্তির তালিকায় . . .
বাণিজ্যিকভিত্তিতে পাখি চাষ
পঞ্চগড়ে এখন বাণিজ্যিকভাবে বিভিন্ন প্রজাতির বিদেশী পশু-পাখি পালন করা হচ্ছে। শখের বসে এসব পশু-পাখি পালন করতে করতে বাণিজ্যিকভাবে পালন করে বেশ স্বাবলম্বী হওয়ারও বাস্তব চিত্র রয়েছে। জেলার বোদা উপজেলার ধনীপাড়া গ্রামের এমনই একজন সফল উদ্যমী যুবক ফিরোজ কবীর। গত ৫ বছর আগে তিনি শখের বসে সৈয়দপুর থেকে দুই জোড়া লাভ বার্ড পাখি ৮০০ টাকায় কিনে এনে ছোট্ট একটি খাঁচায় পোষা শুরু করেন। এক বছরের মধ্যে ওই লাভ বার্ড ডিম ও বাচ্চা দেয়া শুরু করে। ফিরোজ বিদেশী এই পাখির বাণিজ্যিকভাবে চাষ করার উদ্যোগ গ্রহণ করেন। এরপর খাঁচা বড় . . .
সুবিধাবঞ্চিতদের কারিগরি প্রশিক্ষণ
রাজশাহীর পবা উপজেলার পশ্চিম বালিয়া গ্রামের সুবিধাবঞ্চিত আলামিন (২০), রাজু (১৮) ও ফজর (১৯)। লেখাপড়ার জন্য যে অর্থের প্রয়োজন হতো সেটি তাদের পরিবার ঠিকমতো দিতে পারত না। তাই তারা লেখাপড়ার পাশাপাশি বাড়তি আয়ের জন্য কারিগরি প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে। প্রশিক্ষণ নিয়ে কাঠের তৈরি ফোল্ডিং টুল, টেবিল, টি-টেবিল, ইজি চেয়ার, আলনা তৈরিতে দক্ষ হয়ে ওঠে তারা। তাতেই হয়ে ওঠে স্বাবলম্বী। এখন এসব জিনিস তৈরি করে তারা প্রতিমাসে আয় করছে ১০-১৫ হাজার টাকা। তাদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে সিএমইএস ইউনিট অরগানাইজার নামে একটি বেসরকারী প্রতিষ্ঠান। এ . . .
প্রতিবন্ধী ছাত্রী রহিমার অদম্য ইচ্ছা লেখাপড়ার
শিক্ষাকে আসল হাতিয়ার হিসেবে ধরে নিয়ে জীবনযুদ্ধ করে যাচ্ছে প্রতিবন্ধী রহিমা। অত্যন্ত ত্যাগ, তিতিক্ষা ও পরিশ্রম করে পড়ালেখা করছে নিয়মিত বিদ্যালয়ে এসে। জেলার উখিয়া হলদিয়ার দিনমজুর কবির আহমদের মেয়ে রহিমা জন্ম থেকেই প্রতিবন্ধী। স্থানীয় সাবেক রুমখাঁ পালং প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে ২০০৮ সালে ৫ম শ্রেণীর সমাপনী পরীক্ষায় প্রথম গ্রেডে উত্তীর্ণ হওয়ার পর স্থানীয় বিত্তবানদের সহযোগিতায় মরিচ্যার মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ৬ষ্ঠ শ্রেণীতে ভর্তি হয়। প্রতিবছর বার্ষিক পরীক্ষায় ভাল ফলসহ সর্বশেষ গত ২০১১ সালে . . .
রাহিমারা এখন নিজের প্রয়োজনেই সচেতন
একটানা তিন সপ্তাহ কাশি হলে যক্ষ্মার লক্ষণ হতে পারে বলে হাসপাতাল কিংবা ব্র্যাক সেন্টারে গিয়ে কফ পরীক্ষা করাতে হবে। খাবার এবং রান্নার জায়গা পরিষ্কার রাখতে হবে। পুকুরের পানি দিয়ে থালাবাসন ধোয়ার পরে কলের (নলকূপ) পানি দিয়ে ধুলেও জীবাণুমুক্ত হয় না। তবে ফুটন্ত গরম পানিতে ধুয়ে নিলে জীবাণু মুক্ত হয়ে যায়। খাবার ঢেকে রাখতে হবে। আর ঘর-দুয়ার তো পরিষ্কার রাখতেই হবে। শিশুদের সবকয়টি টিকা দিতে হবে। বেড়িবাঁধের বাইরে ঝুপড়ি ঘরে বসবাস করা অতি দরিদ্র রাহিমা বেগম, হালিমা বেগম, হেনবালাসহ আরও ১০/১২ মহিলা এসব অকপটে বললেন। . . .