মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
শুক্রবার, ৮ জুলাই ২০১১, ২৪ আষাঢ় ১৪১৮
হাওড়দ্বীপ খালিয়াজুরি
সরকার আসে, সরকার যায়। সবাই উন্নয়নের বড়াই করে। কিন্তু বিচ্ছিন্ন হাওড়দ্বীপ খালিয়াজুরিবাসীর ভাগ্যের কোন পরিবর্তন হয় না। প্রায় ৪০ বছর বয়সী বাংলাদেশে 'উন্নয়ন বঞ্চনার' যে কয়টি মডেল এলাকা আছে_ নেত্রকোনার খালিয়াজুরি এখনও তার একটি। বিশেষ করে খালিয়াজুরির যোগাযোগ ব্যবস্থাটির দিকে তাকালে কথাটি স্বীকার করবেন যে কেউ। বাংলাদেশকে ষড়ঋতুর দেশ বলা হলেও খালিয়াজুরিতে ঋতু মাত্র দু'টি। একটি হেমনত্ম, অন্যটি বর্ষা। এখানকার জীবনসূচীও অনেকটা এ দুই ঋতুকে ঘিরেই আবর্তিত। বর্ষায় খালিয়াজুরি মানেই এক বিচ্ছিন্ন দ্বীপ। . . .
খানজাহান মাজারে কুমিরের ডিম
ফরিদপুরের সদর উপজেলার কৃষ্ণনগর গ্রামের বাসিন্দা সি্নগ্ধা রানী দাস, মেয়ে সৌমি লাবণ্য ও ছেলে স্বপ্নীল সমুদ্র দাস (মুগ্ধ) খানজাহান আলী মাজারে অনেকবার এসেছে। এখানের দীঘির পানিতে কুমিরের দেখা মিললেও কখনও কুমিরের ডিম দেখেনি। এবার খানজাহান মাজারে বেড়াতে এসে কুমিরের ডিম দেখে অভিভূত হয়েছেন। একই সাথে কুমিরের ডিম দেখে বিস্মিতও হয়েছেন। গৃহবধূ সি্নগ্ধার ভাষায়, 'প্রায় পঞ্চাশ বছরের জীবনে কখনও কুমিরের ডিম দেখেননি। শুনেছি কুমিরের ডিম সহজে দেখা যায় না। নিজে ডিম দেখে এবং ছেলে-মেয়েকে কুমিরের ডিম দেখাতে পেরে খুবই . . .
প্রতিবন্ধী আইজ উদ্দিনের জাল বুনে জীবিকা নির্বাহ
বার্ধক্যের ভারে শীর্ণকায় প্রতিবন্ধী আইজ উদ্দিনের (৬১) নিজের পায়ে দাঁড়ানোর ক্ষমতা নেই। ভরসা এক জোড়া লাঠি। পক্ষাঘাতে আক্রানত্ম হওয়ায় মুখ বেঁকে গেছে। কথা স্পষ্টভাবে বোঝা যায় না। এই বয়সে তার বিশ্রাম নেয়ার কথা। কিন্তু মানুষ ভাবে একরকম আর বিধাতা তার জন্য অনিবার্য করে রাখেন অন্যরকম জীবনযাপন। অভাবের নির্মম কষাঘাতে তাই তাকে নামতে হয়েছে অর্থ উপার্জনের কাজে। কারও কাছে হাত পাততে রাজি নন আইজ উদ্দিন। নতুন ও পুরনো জাল সংস্কার ও বুনে যে অর্থ উপার্জন করেন তা দিয়েই চলে সংসার। আইজ উদ্দিনের সঙ্গে দেখা গাইবান্ধার ফুলছড়ি . . .
হারিয়ে যাচ্ছে লাল শাপলা
জমিতে অধিক মাত্রায় কীটনাশক প্রয়োগ, জলবায়ু পরিবর্তন, খাল-বিল ও জলাশয় ভরাটের কারণে বরিশালের গৌরনদী ও আগৈলঝাড়া উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে লাল শাপলা। এক সময়ে বর্ষা মৌসুমের শুরম্নতেই এ দু'উপজেলার বিভিন্ন এলাকার খাল-বিলে ফুটে থাকত নয়নাভিরাম লাল শাপলা। বর্ষা থেকে শরতের শেষ পর্যনত্ম বিল-ঝিল, জলাশয় ও নিচু জমিতে প্রাকৃতিকভাবে জন্মাত শাপলা। মানুষের খাদ্য তালিকায় আবহমানকাল থেকে যুক্ত ছিল শাপলা। কয়েক বছর আগেও বর্ষা এবং শরতকালে খাল-বিলে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে থাকত অগণিত শাপলা। সকালের দিকে . . .
ভাল নেই বাগাতিপাড়ার বাগদি পরিবার
নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলা। স্থানীয় পুরনো লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বাগদি থেকে বাগদিপাড়া। পরে বাগদিপাড়া থেকে বাগাতিপাড়া নামের উৎপত্তি। স্থানীয়দের দেয়া তথ্য-উপাত্ত যাচাই-বাছাই করে যতটুকু উপলব্ধি করা যায়, তাতে ১৭৭১ বা '৭২ সালের দিকে ভারতের অসম থেকে বাগদিদের এখানে আনে ব্রিটিশ বেনিয়ারা। সে সময়ের খরস্রোতা নদী বড়ালের তীর ঘেঁষে তারা বসতি স্থাপন করে। সব আয়োজনই ছিল বেনিয়া ব্রিটিশদের। বেনিয়াদের উদ্দেশ্য ছিল, বেশুমার পতিত জমিতে নীলচাষ করা। বাগদিদের তারা জমি দিয়েছে, খাওয়া-পরার ব্যবস্থা করেছে। আর দিয়েছে . . .