মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
শনিবার, ১২ ফেব্রুয়ারী ২০১১, ৩০ মাঘ ১৪১৭
দ্বীপাঞ্চলে পাখি নিধন
নিষেধাজ্ঞা কেউ মানছে না
পটুয়াখালী জেলার দক্ষিণ প্রান্তের বিস্তীর্ণ চরদ্বীপ ও বনাঞ্চলের সবুজ অরণ্য ঘিরে বসেছে পাখির মেলা। লাখো পাখির গুঞ্জনে মুখর হয়ে উঠেছে নির্জন প্রানত্মর। চোখ জুড়ানো নানান বর্ণ আর নানান আকারের অতিথি পাখির কিচিরমিচির ধ্বনি দিয়েছে বর্ণময় রূপ। এদিকে, পাখি শিকারিরাও বসে নেই। শিকারিরা দল বেঁধে নেমে পড়েছে মাঠে। ফাঁদ জাল, বিষটোপ, বন্দুকসহ বিভিন্ন উপায়ে অবাধে নিধন হচ্ছে অতিথি পাখি। হাটেবাজারে বিক্রিও খোলামেলা। পটুয়াখালীর দক্ষিণে বিশাল বঙ্গোপসাগরের প্রানত্ম ছুঁয়ে রয়েছে অসংখ্য ছোটবড় দ্বীপ এবং চর। ঘন সবুজ ম্যানগ্রোভ . . .
সৌর বিদ্যুত পল্লী
চারদিকে তিস্তার শাখা নদী বেষ্টিত একটি দ্বীপচর নাম ঢুষমারা। দিনের বেলা সূর্যের আলোয় আলোকিত হলেও সূর্যাস্তের পর সন্ধ্যা ঘনিয়ে এলে নেমে আসে কালো অন্ধকার। এ সময় হঠাৎ কয়েকটি বাড়িতে দেখা যায় আলোর ঝলকানি। জ্বলে ওঠে সৌর বিদু্যতের বাতি। গ্রামটি এখন সৌর বিদু্যত পল্লী নামে পরিচিতি পেয়েছে। আর এ সবের ব্যবস্থা করে দিয়েছে আরডিআরএস বাংলাদেশ নামক একটি বেসরকারি সংস্থা। চর ঢুষমারা রংপুরের কাউনিয়া উপজেলার বালাপাড়া ইউনিয়নের তিস্তা নদী বেষ্টিত একটি অবহেলিত গ্রাম। চারদিক পানিবেষ্টিত এ গ্রামের ১৩৭টি পরিবারের প্রায় পাঁচ . . .
বসু ফ্রুটস ভ্যালির সাফল্য
মিশ্র ফলের বাগান করে সাফল্য অর্জন পেয়েছেন দীঘিনালার বসু ফ্রুটস ভ্যালির মালিক তুষার কানত্মি বসু। তিনি ২০০৩ সালে ঠিকাদারি পেশার পাশাপাশি মিশ্র ফলের বাগান করার স্বপ্ন দেখেন। পরবর্তীতে ২০০৪ সালে ঠিকাদারি পেশা ছেড়ে ১৭ একর পাহাড়ি জমি ক্রয় করে মিশ্র ফলের বাগানের কাজ শুরু করেন। বর্তমানে তার বাগানে ১৪৮ প্রজাতির ফলের গাছ রয়েছে। রয়েছে বনজ, শোভাবর্ধণকারী, ঔষধি, বিলুপ্ত প্রজাতির অনেক ফলজ ও বনজ গাছ। বাগানজুড়ে রয়েছে প্রায় ৪০ হাজার গাছ। ১৫ শ্রমিক বার্ষিক হিসেবে কাজ করে এই বাগানে। সারা বছরই এই মিশ্র বাগান থেকে বিক্রি . . .
তিস্তার বালুচরে স্কোয়াসের (কাঁকুড়) বাম্পার ফলন
নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার তিস্তা নদীর চর গ্রামে স্কোয়াস চাষে ব্যাপক সাফল্য এসেছে। চাষীদের মুখে ফুটেছে হাসি। তরকারির তালিকায় স্কোয়াস অত্যন্ত সুস্বাদু। ফলে প্রচুর চাহিদা রয়েছে। অনেকে বলে থাকেন মিষ্টি কুমড়া বা পানি কুমড়ার বিকল্প ফসল স্কোয়াস। সরেজমিনে তিস্তার বিভিন্ন চরে গিয়ে জানা যায়, চলতি রবি ফসল মৌসুমে এবার প্রথম পরীক্ষামূলকভাবে অধিক প্রোটিনযুক্ত স্কোয়াস আবাদ করা হয়। তিসত্মার ধু-ধু বালু চরে যেখানে কোন ফসল স্বাভাবিকভাবে ফলানো সম্ভব না সে সমসত্ম চরে তিস্তাপারের অসহায় পরিবারদের স্বাবলম্বী করতে ঝানজিরা . . .
ব্যক্তিগত উদ্যোগে প্রতিবন্ধী স্কুল
প্রতিবন্ধীরা সমাজের বোঝা নয়। আর দশ জন সুস্থ-সবল মানুষের মতো এদেরও রয়েছে বেঁচে থাকার অধিকার। অন্ন বস্ত্র-বাসস্থান, শিক্ষা ও চিকিৎসা সেবা ছাড়াও রাষ্ট্রের সকল সুযোগ-সুবিধাও পাবেন অন্যসব নাগরিকের মতোই। এরপরেও প্রতিবন্ধীদের অনেকে অবহেলার চোখে দেখে। নিজ পরিবারের সদস্যরাও এদের বোঝা মনে করে। ফলে এ প্রতিবন্ধীরা জন্মের পর থেকেই অবহেলা-অনাদর ও অযত্নে বড় হয়। বাংলাদেশের মূল জনসংখ্যার ১০ ভাগ প্রতিবন্ধী অথচ পঞ্চগড় জেলায় এর সংখ্যা কত তার সঠিক পরিসংখ্যান নেই। এ জেলায় রয়েছে বহু প্রতিবন্ধী। এদের মধ্যে শিশু প্রতিবন্ধীর . . .