মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১১, ২৬ অগ্রহায়ন ১৪১৮
সাগরপারের সৌন্দর্যের প্রতীক কাছিম ও লাল কাকড়া বিলুপ্তির পথে
এক সময় দাদা নাতিকে গল্প শোনাতেন, 'তোরে দইজ্যার চরত নিয়ুম, লাল কেয়ারা-ডর ডর কচ্ছপ দেখাইয়ুম।' অর্থাৎ তোমাকে সৈকতের বালিয়াড়িতে নিয়ে লাল কাকড়া ও বড় বড় কাছিম দেখাব। পর্যটন শহর কঙ্বাজার সমুদ্র সৈকতে এখন আর চোখে পড়ে না ওইসব লাল কাকড়া ও বড় বড় কাছিম। সৈকতের বালিয়াড়িতে সৌন্দর্যবর্ধনকারী প্রাকৃতিক সম্পদ লাল কাকরা ও সামুদ্রিক কাছিম বর্তমানে বিলুপ্তপ্রায়। বছর কয়েক আগে দেশ-বিদেশ থেকে ভ্রমণে আসা পর্যটকরা সৈকতে নেমে দেখতে পেত টকটকে লাল ঝাঁক বাঁধা সেই কাকড়া। মনে হতো সৈকত রাজ্যে বেড়াতে আসা অতিথিদের যেন . . .
বীরপ্রতীক আবদুল মান্নান লড়ছেন দারিদ্র্যের বিরুদ্ধে
একাত্তরের রণাঙ্গনের অসীম সাহসী মুক্তিযোদ্ধা 'বীর প্রতীক' হাবিলদার আবদুল মান্নান এখন জীবনযুদ্ধের এক পরাজিত সৈনিক। স্বাধীনতার চলিস্নশ বছরেও ঘোচেনি তাঁর দারিদ্র্য। বাহাত্তর বছর বয়সে এসে তাঁকে লড়তে হচ্ছে ক্ষুধার বিরুদ্ধে। সম্মানি ভাতার মাত্র দু'হাজার টাকা দিয়ে চলছে পাঁচজনের সংসার। যেখানে নিত্য জোটেনা দু' বেলা ভাত। একমাত্র ছেলেটির জুটছে না চাকরি। মেয়েটির বিয়ে হলেও অর্থাভাবে স্বামীর সংসারে যেতে পারছে না। এরওপরে রয়েছে স্বাধীনতাবিরোধী চক্র। যারা তাকে বাড়িঘর থেকে উচ্ছেদ করতে চাইছে। একের . . .
শংকর লাল দাস, গলাচিপা বুলেটের ৰত নিয়ে মানবেতর জীবন কাটাচ্ছেন মুক্তিযোদ্ধা হাজের আলী
স্বাধীনতাবিরোধী রাজাকার ও আলবদরদের ছোড়া রাইফেলের বুলেটের ৰতচিহ্ন মাথায় নিয়ে যন্ত্রণা বুকে ধরে দীর্ঘ ৪০ বছর ধরে পঙ্গুত্ব জীবনযাপন করছেন নওগাঁর মুক্তিযোদ্ধা হাজের আলী। অতিকষ্টে বেঁচে আছেন তিনি। নওগাঁ সদর উপজেলার খলিসাকুঁড়ি গ্রামে ওই বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজের আলীর বাড়ি। '৭১-এর মহান মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন পার্শ্ববর্তী বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার ছাতিয়ানগ্রাম ইউনিয়নের কালাইকুঁড়ি গ্রামের যুদ্ধাপরাধী ও রাজাকার সংগঠক আবদুল মজিদ তালুকদারের বাড়িতে অপারেশন চালাতে গিয়ে তিনি গুলিবিদ্ধ হয়েছিলেন। সে সময় রাজাকারদের ছোড়া . . .
প্রতিবন্ধী নাজমুল ভিক্ষা নয়, কাজ করে বাঁচতে চায়
গাইবান্ধার শারীরিক প্রতিবন্ধী নাজমুল ভিক্ষা নয়, কাজ করে বাঁচতে চায়। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনক হলেও সত্য যে শারীরিক অক্ষমতার কারণে তার এই সুপ্ত ইচ্ছাটি বাসত্মবায়িত হচ্ছে না। গাইবান্ধা সদর উপজেলার খোলাহাটী ইউনিয়নের আনালেরতাড়ী গ্রামের অতি দরিদ্র রিঙ্াচালক মুছা মিয়ার ছেলে নামজুল (২২) জন্মের পর পোলিও রোগে আক্রানত্ম হয়। ফলে তার দুই পা অবশ হয়ে শুকিয়ে যায় এবং এরপর থেকেই সে স্বাভাবিকভাবে চলাচল করতে পারে না। শিশুকালে অন্যদের মতো স্কুলে গিয়ে লেখাপড়ার আগ্রহ থাকলেও এই প্রতিবন্ধিতার কারণে তার সে আশাটিও পূরণ হয়নি। এর . . .
এক পরিবারে ৫ প্রতিবন্ধী
এক পরিবারের ৮ সদস্যের মধ্যে ৫ জনই প্রতিবন্ধী! নিয়তি তাদের জীবন থেকে ছিনিয়ে নিয়েছে অনেক স্বপ্ন ও আকাঙ্ক্ষা। কিন্তু কেড়ে নিতে পারেনি তাদের মনের সাহস ও মুখের হাসি। তারা হার মানেনি শারীরিক বিকলাঙ্গতা ও প্রতিবন্ধিত্বের কাছে। কেবলই মনের জোর ও বেঁচে থাকার জাগতিক নিয়মকে আলিঙ্গন করে বেঁচে আছে ওরা। সরকারের বিভিন্ন বিভাগ এবং বিভিন্ন বেসরকারী সংস্থা এ ধরনের পরিবার, ব্যক্তিদের পুনর্বাসন ও স্বাবলম্বী করে গড়ে তুলতে নানা কর্মসূচী বাসত্মবায়ন করলেও কিশোরগঞ্জের বাজিতপুর উপজেলার পিরিজপুর ইউনিয়নের বিলপাড় গ্রামের এই ৮ . . .
গোদাগাড়ীতে কর্মসৃজন প্রকল্পে সচ্ছল পরিবার
রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে অতি দরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান (কর্মসৃজন কর্মসূচী) প্রকল্প বাস্তবায়নে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রকৃত দরিদ্রদের বাদ দিয়ে শ্রমিক হিসেবে সচ্ছল ব্যক্তিদের নিয়োগ দেয়া হয়েছে। এ কর্মসূচীতে অনেক দরিদ্র ব্যক্তি কাজের সুযোগ না পেলেও সচ্ছলরা ভোগ করছেন প্রকল্পের সুফল। উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের সদস্যরা এসব অভিযোগ করেছেন। জানা গেছে, উপজেলার ৯টি ইউনিয়নের মধ্যে মাটিকাটা ইউনিয়নে ৩৯৪ জন শ্রমিক নিয়োগ করা হয়েছে। নিয়ম রয়েছে ১০ শতক জমি থাকলে শ্রমিক হিসেবে লোক নিয়োগ পাবে না। অথচ অতি দরিদ্রদের . . .
বৃদ্ধ বেলমণি হাজংয়ের ভাগ্যে জোটেনি ভাতা
বেলমণি হাজংয়ের বয়স কত? তা তিনি নিজেই জানেন না। তবে প্রতিবেশী ও নিকটাত্মীয়দের ধারণা_তার বয়স আশির কাছাকাছি। নেত্রকোনার কলমাকান্দা উপজেলার লেঙ্গুরা ইউনিয়নের দিঘীনাথপাড়া (রাজনগর) গ্রামের এই বৃদ্ধা একজন নিঃসনত্মান বিধবা। সহায়-সম্পত্তি বলতে কিছুই নেই। থাকেন ভাইয়ের বাড়িতে। সরকার বয়স্ক ও বিধবাদের জন্য বিশেষ ভাতার ব্যবস্থা করলেও অসহায় এই আদিবাসী বৃদ্ধার ভাগ্যে জোটেনি কিছুই! বেলমণি হাজংয়ের কাছে তার বয়স সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি শুধু এটুকু বলতে পারেন_তার স্বামী রামেশ্বর হাজং মারা গেছেন 'বড় সংগ্রাম'-এর . . .