মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
মঙ্গলবার, ২৭ ডিসেম্বর ২০১১, ১৩ পৌষ ১৪১৮
হার্ট দুর্বল_প্যানিক ডিজঅর্ডার নয়তো?
শামীরের বয়স ২৫ বছর। বাবার ব্যবসা দেখাশোনা করেন। কোন ঝামেলা নেই। তারপরও মাঝে মাঝে হঠাৎ তাঁর বুক ধড়ফড় করে। নিঃশ্বাস নিতেও কষ্ট হয় তখন। এর সঙ্গে যোগ হয় হাত-পা অবশ হয়ে আসা, বুকে ব্যথা করা। ক্রমশ তাঁর হাত-পা ঠাণ্ডা হয়ে আসছিল। মনে হয় এখনই মরে যাবে। এই ধরনের রোগীরা একটার পর একটা ইসিজি আর ইকোকার্ডিওগ্রাম করতে করতে তাঁর চিকিৎসা ফাইল অনেক বড় করে ফেলেন। ডাক্তারও বদলাতে থাকেন তাঁর রোগ ধরতে পারছেন না বিধায়। এর মধ্যে রোগীর গায়ে কিন্তু বড় অসুখের সিল পড়ে গেছে। আর আত্মীয়স্বজনরা বলতে থাকে ওকে কোন বড় কাজে দিও না। ওর . . .
জোড়ার হাড় ও তরুণাস্থির ৰয় এবং প্রতিকার
ডা. জিএম জাহাঙ্গীর হোসেন
জয়েন্টের হাড় ও তরুণাস্থির ৰয় সর্বৰেত্রে আর্থ্রাইটিস নয়। 'ওসটিওকোনড্রাইটিস ডেসিকেন্স' তার মধ্যে একটি যেখানে হাড় ও তরুণাস্থির (কার্টিলেজ) ৰয় হয়। জোড়ার হাড় ও তরুুণাস্থির (কার্টিলেজ) রক্ত প্রবাহ বন্ধ হয়ে হাড় ও তরুণাস্থি ছোট ছোট টুকরায় আলাদা হয় এবং কখনও জোড়ার মধ্যে পড়ে থাকে। একেই ওসটিওকোনড্রাইটিস ডেসিকেন্স বলে। যে কোন জোড়ার যে কোন হাড় ও তরম্নণাস্থি (কার্টিলেজ) আক্রানত্ম হতে পারে। তবে কনুই, গোড়ালি, কাঁধ ও হাঁটুর জয়েন্টের হাড় ও তরম্নণাস্থি আলাদা হয় বেশি। শতকরা ৭৫ ভাগ ওসটিওকোনড্রাইটিস ডেসিকেন্স . . .
শিশুর চোখ দিয়ে পানি পড়ার সমস্যা
বাচ্চার বয়স ৩ মাস। অনবরত চোখ দিয়ে পানি পড়ে কিংবা পিচুটি পড়ে। সমস্যাটা কিন্তু প্রায়শ দেখা যায়্ জন্মের পর নেজোল্যাকরিমাল নালী বন্ধ থাকায় কারণে এমনটি হয়। উচিৎ হবে ১০ বার করে প্রতিদিন ৪ বার ম্যাসেজ করা। ম্যাসেজের পদ্ধতি হল, চোখের বাম কোন থেকে নাক বরাবর আঙ্গুল দিয়ে ম্যাসেজ করা। অন্ত্রের ক্যান্সার কমে যাবে কোরিয়ান গবেষকরা ৫৯৬ জন কোলোরেক্টাল ক্যান্সার আক্রান্ত এবং ৫০৯ জন সুস্থ মানুষের ওপর একটা গবেষণা চালান। তারা তাদের খাদ্য গ্রহণের ওপর পর্যবেৰণ চালান। তারা দেখে যে সব মহিলারা দিনে অন্তত ২৭০ মাইক্রোগ্রামের . . .
ব্রংকিয়াল এ্যাজমা বা হাঁপানি
ডা. আবু হেনা মোস্তফা কামাল
এখন শীতকাল তাই হাঁপানির প্রকোপ চলছে। বিশেষ করে শিশুদের জন্য বিরাট সমস্যা হিসেবে দেখা দিয়েছে। সুতরাং সচেতন হোন হাঁপানির প্রকোপ থেকে রক্ষা পেতে। হাঁপানির সংজ্ঞা প্রদাহজনিত কারণে শ্বাসনালী সংবেদনশীল থাকায় উহা সঙ্কোচনশীল হয়, ভিতরের প্রলেপ ফুলে থাকে এবং গায়ে প্রদাহ সংশিস্নষ্ট সেল জমে থাকে। এর কারণে মাঝে মাঝে শ্বাসকষ্ট হওয়া, কাশি হওয়ার নামই হাঁপানি বা ব্রংকিয়াল এ্যাজমা। ধরন বা প্রকার : ১। অটোপিক বা এলার্জিজনিত (ওমঊ দ্বারা হয়) ২। নন এটোপিক (ওমঊ ছাড়া হয়)। যেসব রোগী এটোপিক অর্থাৎ ওমঊ দ্বারা হয় তারা . . .
ঠাণ্ডার বিরুদ্ধে যুদ্ধ
আপনার ঠাণ্ডার বিরুদ্ধে কিছু ভিটামিন ভেষজ ও মসলা খাদ্য ভাল ভূমিকা রাখতে পারে। জেনে রাখুন তাহলে_ প্রথমেই ভিটামিন সি : গবেষণায় দেখা যায় ভিটামিন সি ঠাণ্ডাকে প্রতিরোধ করে না, কিন্তু ঠাণ্ডাকে কমিয়ে দেয়। ভিটামিন 'সি' আপনার ঠাণ্ডার বিরুদ্ধে একটি এন্টি হিস্টাসিন ও এন্টি প্রদাহের কাজ করে নাকের পানি পড়া শুকিয়ে দেয় এবং প্রতিরোধ ব্যবস্থাকে বাড়িয়ে দেয়। জিঙ্ক : সর্দি, কাশি ও ঠাণ্ডার প্রথম দুদিনে জিঙ্ক লজেন্স চুষলে দেখা দেয়া ঠাণ্ডার প্রকোপ এবং স্থায়িত্ব কমে যায়। পরীৰাতে তাই দেখা যায়। ভিটামিন ই . . .