মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
সোমবার, ৩১ অক্টোবর ২০১১, ১৬ কার্তিক ১৪১৮
ঈদ আসছে
তাহমিনা মিলি
প্রায় দু'মাস আগে হয়ে গেল ঈদ-উল-ফিতর। যার আনন্দময় রেশ কাটতে না কাটতেই শুরম্ন হয়ে গেছে কোরবানির ঈদের প্রস্তুতি। রোজার ঈদের চেয়ে কোরবানির ঈদের প্রস্তুতির ধরন বেশ আলাদা। কিন্তু তারপরও ঈদ উৎসবকে ঘিরে ঘরে ঘরে চলছে নানা পরিকল্পনা। সবাই চায়, ঈদ উৎসবের আনন্দ পরিপূর্ণভাবে উপভোগ করতে। এ জন্য সামর্থ্য অনুযায়ী নানা আয়োজনে ব্যসত্ম সবাই। কোরবানির ঈদে যেহেতু পশু কোরবানির ব্যাপারটি মুখ্য, তাই অনেকেই শহর থেকে গ্রামের বাড়িতে চলে যান পুরো পরিবার নিয়ে। শহরে ফ্ল্যাট বাড়ি কিংবা এ্যাপার্টমেন্টে বসবাসকারীদের জন্য কোরবানির . . .
ঈদের কমপ্লিট সাজ
মেরীনা চৌধুরী
আবার এল কোরবানির ঈদ। ঈদে সাজগোজ করতে গিয়ে একটা সমস্যা অনেকেরই হয়। কখন কী পরবেন, কেমন প্রসাধনী করবেন তা বুঝে উঠতে পারেন না। সামনের কোরবানির ঈদে কখন-কেমন হবে আপনার সাজ, রইল তারই কিছু পরামর্শ। দিন প্রথমে মনে রাখতে হবে মাংস বসায় এলে তা যথাযথভাবে গুছিয়ে রাখা, বিলানো নানা কাজ থাকে। তাই এই ঈদেও দিনের সাজ হবে একেবার ঘরোয়া। দিনের জন্য বেছে নিন তাঁতের শাড়ি অথবা সালোয়ার কুর্তা। সালোয়ার কুর্তা দিনের জন্য আদর্শ। কারণ এই পোশাকে কাজ করতে স্বচ্ছন্দবোধ করা যায়। প্রসাধনীও হবে খুব হালকা। মুখে সামান্য ক্রিম, চোখে . . .
ঈদে পরিচ্ছন্নতার টিপস
রোজার ঈদের রেশ কাটতে না কাটতেই মুসলমান ধর্মাবলম্বীদের আরেকটি বড় ধর্মীয় উৎসব ঈদ-উল-আজহা দরজায় কড়া নাড়ছে। পার্থক্যগত কারণে দুটি ঈদের আমেজ দু'রকম। এক মাস সিয়াম সাধনা করার পর মুসলমান ঈদের দিনটির জন্য অপেৰা করে থাকে। সেদিনটি বাঁধভাঙ্গা এক উৎসবে পরিণত হয়। একে অপরের সঙ্গে সৌজন্য সাৰাত, মিষ্টি মুখ, মুখরোচক খাবার ইত্যাদি সব আয়োজনের মধ্য দিয়ে কেটে যায় রোজার ঈদ। কোরবানির ঈদটা এৰেত্রে একটু ব্যতিক্রম। এই ঈদে সবাই ব্যসত্ম থাকে পশু কোরবানি নিয়ে। পশু কোরবানির সঙ্গে সঙ্গে মনের পশুত্বকে দূর করার মানসিকতাই এই . . .
কোরবানির মাংসের রকমারি
ধনেপাতা মাংস যা লাগবে মাংস-১ কেজি, পেঁয়াজ-৫০০ গ্রাম (বাটা), পোসত্ম বাটা-১৫০ গ্রাম, ধনেপাতা বাটা-২০০ গ্রাম, কাঁচা মরিচ বাটা-৫০ গ্রাম, দই-২৫০ গ্রাম, হলুদ গুঁড়ো আধা চা চামচ, টমাটো ছোট করে কাটা ২টি, নারকেল বাটা ১ টুকরো (ইচ্ছা) তেল-আন্দাজ মতো, চিনি-সামান্য। যেভাবে করবেন মাংসে লবণ হলুদ মাখিয়ে অল্প পানিতে সিদ্ধ করে রাখুন। কড়াইয়ে তেল গরম করে পেঁয়াজ বাটা ভেজে তাতে পোসত্ম বাটা দিয়ে আরও ভাজুন। সুগন্ধ বের হলে দই, ধনেপাতা বাটা, মরিচ বাটা, নারকেল বাটা, লবণ ও চিনি দিয়ে নাড়া-চাড়া করে মাংস ছেড়ে কষান। মাংস . . .