মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
বুধবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৩, ১ ফাল্গুন ১৪১৯
ফের অশান্ত মিসর
এনামুল হক
হোসনী মোবারকের পতনের দু’বছর পর মিসরে নতুন সংবিধান হয়েছে, গণভোট হয়েছে, প্রেসিডেন্ট নির্বাচন হয়েছে এক কথায় ক্ষমতার সুস্পষ্ট পালাবদল ঘটে গেছে। তারপরও মিসর অশান্ত, অস্থিরতাতাড়িত ও টালমাটাল। অরাজকতা ও বিশৃঙ্খলা কিছুতেই যেন ছাড়ছে না মিসরকে। এর যে শেষ কোথায় তারও যেন কারও জানা নেই। প্রেসিডেন্ট মুরসির শাসন বিরোধীরা মেনে নিতে পারছে না। কথায় কথায় তারা বিক্ষোভে ফেটে পড়ছে। গত কয়েকদিন ধরে কায়রোসহ কয়েকটি শহর উত্তপ্ত থাকার মধ্যে পোর্ট সৈয়দের একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে পরিস্থিতি এমন ভয়াবহ আকার ধারণ করে যে, . . .
শ্রমিকের ঘর থেকে রাষ্ট্রনায়কের উত্থান
ভেনিজুয়েলার ক্যান্সার আক্রান্ত প্রেসিডেন্ট হুগো শ্যাভেজ কি শেষ পর্যন্ত রাষ্ট্রের হাল ধরতে পারবেন? বিষয়টি এখনও পরিষ্কার নয়। সর্বশেষ যে খবর এসেছে তাতে কিউবার এক হাসপাতালে তিনি অপারেশনের ধকল কাটিয়ে উঠছেন বটে, তবে তার ফুসফুসের ইনফেকশন বাগে আনা যাচ্ছে না। অর্থাৎ মৃত্যুর সঙ্গে তার লড়াই দস্তুরমতো চলছে। পুরোপুরি সুস্থ হয়ে ক্ষমতা গ্রহণ করা তার পক্ষে আদৌ সম্ভব হবে কি না কেউ বলতে পারছে না। সাম্প্রতিক নির্বাচনে তিনি ক্যান্সার দুষ্ট শরীর নিয়েও প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন এবং বিপুল ভোটে প্রতিপক্ষকে হারিয়েছেন। গত ১০ . . .
গণভোটের কথা বলে বিপাকে পড়তে পারেন ক্যামেরন
ব্রিটেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) সদস্য থাকবে কি থাকবে না; সে সিদ্ধান্ত ব্রিটিশ নাগরিকদের ওপর ছেড়ে দেয়ার অঙ্গীকার করেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন। সম্প্রতি জাতির উদ্দেশে এক ভাষণে ইইউতে ব্রিটেনের ভবিষ্যত নিয়ে বক্তব্য প্রকাশ করতে গিয়ে তিনি বলেন, রক্ষণশীল দল আগামী নির্বাচনে বিজয়ী হলে ২০১৭ সালের মধ্যেই এ প্রশ্নে গণভোটের আয়োজন করা হবে। ক্যামেরন ইউরোপীয় ইউনিয়ন চুক্তি নিয়ে পুরোপুরি নতুন করে আলোচনার আহ্বান জানিয়েছেন। তবে তিনি বলেন, সেটা যদি না হয় তাহলে তিনি যেসব সংস্কার চান তা অন্যান্য উপায়ে অর্জনের . . .
মালিতে বিদেশী হস্তক্ষেপের আসল কারণ কি
মালিতে ইসলামী জঙ্গীদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ চলছে। সেই যুদ্ধে মালির সরকারী বাহিনীর সাহায্যার্থে সরাসরি হস্তক্ষেপ করেছে ফরাসী বাহিনী। বিমান হামলা ছাড়াও স্থল সেনাদের অভিযানও চলছে। মালির জঙ্গীবিরাধী অভিযানে আন্তর্জাতিক সাহায্য বাড়ছে। যুক্তরাষ্ট্র অপ্রত্যক্ষ অংশ গ্রহণ শুরু করেছে। ইতালি তিনটি বিমান পাঠাচ্ছে। ব্রিটেনও সাহায্য বাড়ানোর উদ্যোগ নিয়েছে। বেলজিয়াম,কানাডা, ডেনমার্ক, নেদারল্যান্ডস, স্পেন, সংযুক্ত আরব আমিরাত পরিবহন বিমান ও হেলিকপ্টার পাঠাচ্ছে মালিতে। এছাড়া আইভরিকোস্ট, টোগো ও আশপাশের অন্যান্য দেশ জঙ্গী . . .