মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
শুক্রবার, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০১১, ২৯ মাঘ ১৪১৭
ঘাতকের নাম ফতোয়া
জাহাঙ্গীর আলম সরকার
ফতোয়াবাজদের কবলে নিষ্পেষিত হচ্ছে আমাদের দেশের শত শত পরিবার। নূরজাহান থেকে সর্বশেষ হেনা প্রত্যেকে মধ্যযুগীয় বর্বরতার শিকার। কিছু স্বার্থান্বেষী লোক ফতোয়ার মাধ্যমে অমানবিক বিচার ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠার চেষ্টা চালাচ্ছে। এতে আমাদের প্রগতিশীল সমাজ ও স্বাধীন বিচার বিভাগ কলুষিত হয়েছে। ফতোয়াবাজির নামে সমাজচ্যুত, দোররা মারা, জুতা পেটা করা, জুতার মালা পরিয়ে পথে পথে ঘুরানো, হিলস্না বিয়ে দিয়ে নারীর জীবনকে করা হয় দুর্বিষহ। কেস স্টাডি হেনা আক্তার গত ২৪ জানুয়ারি ১৪ বছর বয়সী কিশোরী হেনা আক্তার ফতোয়ার পর নির্মম নির্যাতনের . . .
জীবনের চোরাবালিতে হারিয়ে যাওয়া নারী
শামীম ফেরদৌস
১৪ বছর বয়সে পারম্নলের বিয়ে হয়েছিল। অনত্মঃসত্ত্বা অবস্থায় তার স্বামী তাকে ছেড়ে চলে যায়। তার খালা ঢাকায় একটি চাকরির প্রস্তাব দিলে সে তার সনত্মানকে মা-বাবার কাছে রেখে খালার সঙ্গে অজানা পথে পা বাড়ায়। কিন্তু তার খালা তাকে ঢাকায় না এনে ভারতে নিয়ে যায়। কলকাতায় একটি যৌনপল্লীতে বিক্রি করে দেয় তাকে। সেখানে 'পুষ্প' নাম দিয়ে পারম্নলকে যৌনকর্মে বাধ্য করা হয়। পরে সেখান থেকে অন্য একটি যৌনপল্লীতে বিক্রি করা হয়। সেখান থেকে সে পুলিশী তল্লাশিতে গ্রেফতার হয়। পারুল পাচারের শিকার এবং সে একজন বাংলাদেশী জানার . . .