মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১১, ২৬ অগ্রহায়ন ১৪১৮
বৈদেশিক সাহায্যপুষ্ট প্রকল্প দ্রুত বাস্তবায়নে সচিবদের নির্দেশনা
বৃহস্পতিবার ডিও লেটার পাঠিয়েছে পরিকল্পনা কমিশন
হামিদ-উজ-জামান মামুন ॥ বৈদেশিক সহায়তাপুষ্ট প্রকল্পের দ্রুত বাস্তবায়ন নিশ্চিত করতে পাঁচটি বিষয়ে সচিবদের নির্দেশনা দিয়েছে পরিকল্পনা কমিশন। বৃহস্পতিবার প্রত্যেক মন্ত্রণালয়ের সচিবদের বরাবরে এ বিষয়ে চিঠি দেয়া হয়েছে। দাতাদের প্রতিশ্রুত বৈদেশিক সহায়তা অর্থ ছাড় নিয়ে জটিলতার সৃষ্টি হওয়ার প্রেক্ষিতে এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। পরিকল্পনা সচিব ভূঁইয়া শফিকুল ইসলাম আশা প্রকাশ করে বলেছেন নির্দেশনা অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হলে বৈদেশিক সহায্যপুষ্ট প্রকল্প বাস্তবায়নে ইতিবাচক প্রভাব পড়বে। চিঠিতে তিনি কার্যকর ব্যবস্থা নিতে . . .
উদীয়মান অর্থনীতির ১৯ দেশে ইউরোপিয়ান কমিশনের সহযোগিতা বন্ধের সিদ্ধান্ত
অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ ইউরোপিয়ান কমিশন ২০১৪ সাল থেকে চীন, ভারত ও ব্রাজিলসহ উদীয়মান অর্থনীতির ১৯টি দেশে সাহায্য প্রদান বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ত্রাণ সংস্থাগুলো লক্ষ্য করেছে উদীয়মান অর্থনীতির দেশগুলোর জনসংখ্যার দারিদ্র্য প্রচারের আড়ালে ঢাকা পড়ে আছে। এ কারণে এসব দেশকে সাহায্যদানে আপত্তি জানিয়েছে ত্রাণ সংস্থাগুলো। ওই ১৯টি দেশের মধ্যে রয়েছে_আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল, চিলি, চীন, কলম্বিয়া, কোস্টারিকা, ইকুয়েডর, কাজাখসত্মান, ভারত, ইন্দোনেশিয়া, ইরান, মালয়েশিয়া, মালদ্বীপ, মেঙ্েিকা, পানামা, পেরম্ন, থাইল্যান্ড, . . .
নেরিকা ধান বদলে দিতে পারে অর্থনীতি, দূর হবে খাদ্য সঙ্কট
* নব্বই দিনে ফসল
* হেক্টরে উৎপাদন ছয় টন
* তিন মৌসুমেই চাষের উপযোগী
* খরা, পোকা ও লবণাক্ততাসহিষ্ণু
রাজন ভট্টাচার্য, মধুপুর, টাঙ্গাইল থেকে ফিরে ॥ আফ্রিকার নেরিকা ধান বদলে দিতে পারে বাংলাদেশের অর্থনীতি। দূর করতে পারে খাদ্য সঙ্কট। দ্রুত সময়ের মধ্যে কৃষকের ভাগ্য পরিবর্তন করতে পারে নতুন প্রজাতির এই ধান। কৃষি বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সারাদেশে একযোগে চাষাবাদ হলে ২৭৫ দিনে তিন কোটি ৯৫ লাখ মেট্রিক টন ধান উৎপাদন করা সম্ভব। বছরে চারবার এই ধান আমাদের দেশে চাষাবাদের উপযোগী। মাত্র ৯০ দিনেই ফসল ফলে। এ ছাড়া প্রতিহেক্টরে উৎপাদন হয় পাঁচ দশমিক ৮১৭ টন ফসল। ধান কাটার পর মাত্র তিন দিনের মধ্যে আবারও বীজ বোনা যায়। সরাসরি ধান . . .
বাঁশখালীর শুঁটকি বিদেশেও রফতানি হচ্ছে
নিজস্ব সংবাদদাতা, বাঁশখালী ॥ চট্টগ্রামের বাঁশখালীর সুস্বাদু শুঁটকি এখন রফতানি হচ্ছে বিদেশেও। জেলে পল্লীগুলোতে ধুম পড়েছে শুঁটকি শুকানোর। উপজেলার ছনুয়া, পুঁইছড়ি, নাপোড়া, শেখেরখীল, মনকিচর, সরল, বাহারছড়া ও খানখানাবাদের নদীচরগুলোতে প্রায় ৫ হাজার জেলে শুঁটকি শুকানোর কাজে ব্যসত্ম। তাদের এখন দম ফেলার ফুসরত নেই। বর্ষা মৌসুমে শুঁটকি শুকানো কঠিন হওয়ায় বর্তমান শুকনো মৌসুমই শুঁটকি শুকানোর উপযুক্ত সময়। অন্যান্য এলাকার জেলেরা ইউরিয়া সার, লবণ ও বিষাক্ত পাউডার মিশ্রিত কাঁচা মাছ শুকানোর কারণে স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর . . .
বাণিজ্য বাড়াতে সড়ক উন্নয়ন চায় মিজোরাম
বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম ॥ দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যের প্রসারে সীমানত্মবতর্ী এলাকার সড়ক উন্নয়নের জন্য বাংলাদেশের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে ভারতের মিজোরাম রাজ্য সরকার। বৃহস্পতিবার বাংলাদেশের একটি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠকে ওই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী পু লালথানহাওলা এ আহ্বান জানান বলে ভারতের সরকারী বার্তা সংস্থা পিটিআই জানিয়েছে। বাংলাদেশের ওই প্রতিনিধি দলে নেতৃত্ব দেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী দীপঙ্কর তালুকদার। আনত্মঃযোগাযোগ স্থাপনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্যোগের প্রশংসা করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, . . .
ইউরো বাঁচাতে নতুন চুক্তি নিয়ে বিভক্ত ইইউ
বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম ॥ ইউরো বাঁচাতে আর্থিক সংগঠন গড়ে তোলা নিয়ে মতবিরোধে শুক্রবার ইউরোপীয় ইউনিয়নে (ইইউ) বিভক্তি দেখা দিয়েছে। ইউরোজোনের ঋণ সঙ্কট সামলাতে কড়া অর্থনৈতিক নিয়ম কানুন মেনে জার্মানি ও ফ্রান্সের নেতৃত্বে ওই আর্থিক সংগঠন গড়ে তুলতে একমত হয়েছেন ইইউ এর ২৩টি দেশের নেতারা। কিনত্মু ব্রিটেনসহ বাকি ৪ সদস্যদেশ এর বিরোধিতা করেছে। ব্রিটেনর ইউরো ব্যবহার করে না। তাই ইউরো বাঁচাতে ২৭টি ইইউ সদস্যদেশকেই নতুন আর্থিক সংগঠনভুক্ত করার পরিকল্পনার ঘোর বিরোধিতা করে ব্রিটেন বলেছে, এতে দেশের জাতীয় সার্বভৌমত্ব . . .
কেশবপুরে বিনা চাষে সরিষা ফলন
নিজস্ব সংবাদদাতা, কেশবপুর, ৯ ডিসেম্বর ॥ কেশবপুরে বিনাচাষে সরিষা আবাদ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। স্বল্প সময়ে কম খরচে পতিত জমিতে একটি বাড়তি ফসল পাওয়া যায় বলে এ অঞ্চলের কৃষকরা সরিষা আবাদে ঝুঁকে পড়েছে। তবে বিএডিসির ভেজাল বীজ কিনে অনেক কৃষক প্রতারণার শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ১৯৯০ সাল থেকে কেশবপুরের অধিকাংশ বিলগুলোতে স্থায়ী জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। সেই থেকে এ অঞ্চলের কৃষকদের বছরে শুধু বোর আবাদ করা ছাড়া উপায় থাকে না। ২০০৭ সালে উপজেলা কৃষি অফিসের উদ্যোগে কেশবপুরে পরীক্ষা মূলকভাবে বিনা চাষে সরিষা আবাদ করা . . .