মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০১১, ১২ মাঘ ১৪১৭
কেন এমন হলো, দায় কার?
পুঁজিবাজারে বিপর্যয়
রাজু আহমেদ ॥ পুঁজিবাজারে উত্থান-পতন স্বাভাবিক হলেও গত দেড় মাস ধরে দেশের শেয়ারবাজারের সামগ্রিক ঘটনাপ্রবাহ শুধু অস্বাভাবিকই নয়, যে কোন বিচারেই তা নজিরবিহীন ও অনভিপ্রেত। একের পর এক বিপর্যয়ের কারণে বাজারে এমন এক পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে যে, লাখ লাখ বিনিয়োগকারীর মধ্যে এখন শেষ আশাটুকুও বিলীন হতে বসেছে। এখনই সরকারের দিক থেকে কার্যকর পদৰেপ না নিলে এ বিনিয়োগকারীদের পথে বসার যোগাড় হবে বলে অনেকেই আশঙ্কা করছেন। সে ধরনের পরিস্থিতি সৃষ্টি হলে শুধু পুঁজিবাজারের এ বিপর্যয়ই বর্তমান সরকারের সব অর্জনকে ম্লান করে দিতে . . .
বিনিয়োগকারীদের আকুতি ॥ সর্বস্বান্ত হওয়া থেকে রক্ষা করুন
অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ সর্বস্বান্ত হওয়ার হাত থেকে রৰার দাবি করেছেন দেশের ৰুদ্র ও সাধারণ বিনিয়োগকারীরা। এ ব্যাপারে তাঁরা প্রধানমন্ত্রীর সার্বিক হস্তক্ষেপ কামনা করে বলেছেন, 'প্রধানমন্ত্রী আপনি আমাদের সর্বস্বান্ত হওয়ার হাত থেকে রক্ষায় কার্যকর পদক্ষেপ নিন। আপনি কৌশলী ও কঠোর হোন। এইবারের মতো আমাদের বাঁচান। পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের আস্থা ও স্থিতিশীলতা ফিরিয়ে আনুন। আমরা কথা দিচ্ছি, দেশের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধ আইনের যে গণজাগরণ সৃষ্টি হয়েছে তাকে ৫২, ৬৯, ৭০ ও ৭১ এর মতো অর্থনৈতিক মুক্তির গণআন্দোলনে রূপ দিয়ে সুখী-সমৃদ্ধ . . .
মূল্য কারসাজির নেপথ্যে প্লেসমেন্ট বাণিজ্য
প্লেসমেন্ট বন্ধ ও দরপ্রস্তাবে বরাদ্দ পাওয়া শেয়ারের লক ইনের সময় বাড়ানো জরুরী
অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ বুকবিল্ডিং পদ্ধতিতে শেয়ারের মূল্য কারসাজির নেপথ্যে মূল ভূমিকা পালন করছে অনৈতিক প্লেসমেন্ট বাণিজ্য। কারসাজির মাধ্যমে শেয়ারের অতিরিক্ত মূল্য নির্ধারণের জন্য প্লেসমেন্ট শেয়ার বরাদ্দ দিয়ে নির্দিষ্ট কিছু প্রতিষ্ঠানকে ম্যানেজ করেছে ইস্যু ব্যবস্থাপকরা। এ শেয়ার বিক্রি করে মুনাফা বাড়াতে বুকবিল্ডিং প্রক্রিয়ায় অতিরিক্ত মূল্য নির্দেশ করছে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা। ফলে প্লেসমেন্টের মাধ্যমে শেয়ার বরাদ্দের সুযোগ বন্ধ করা গেলে বুকবিল্ডিং পদ্ধতিতে শেয়ারের অতি মূল্যায়ন রোধ করা সম্ভব হবে বলে . . .
কমছে বৈদেশিক সাহায্যের ব্যবহার
শীর্ষ নিউজ ডটকম ॥ উন্নয়ন সহযোগীদের নানা শর্তের বেড়াজালে বৈদেশিক সাহায্যের অর্থছাড় করা হচ্ছে না। অর্থ ছাড়ের এ জটিলতায় দেশে ক্রমেই কমছে বৈদেশিক সাহায্যের ব্যবহার। ২০১০-১১ অর্থবছরের প্রথম ৬ মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর) মাত্র ৫ হাজার ৭শ' ৩০ কোটির কাছাকাছি বৈদেশিক ঋণ ও অনুদানের অর্থ ছাড় করা হয়েছে। ২০০৯-১০ অর্থবছরের প্রথম ৬ মাসে উন্নয়ন সহযোগীরা বৈদেশিক সাহায্যের অর্থ ছাড় করে ৯ হাজার ১শ' ৫৭ কোটি টাকা। গত অর্থবছরের তুলনায় চলতি অর্থবছরে অর্থ ছাড় কমেছে ৩ হাজার ৪শ' ২৬ কোটি ৯২ লাখ টাকা। ২০১০-১১ অর্থবছরের . . .
শেয়ারবাজার স্থিতিশীল করতে বগুড়ার বিনিয়োগকারীদের ১৬ দফা দাবি
স্টাফ রিপোর্টার, বগুড়া অফিস ॥ পুঁজিবাজারে বগুড়ার বিনিয়োগকারীরা শেয়ারবাজারের ভয়াবহ দরপতনের প্রতিবাদ জানিয়ে এ খাতে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরিয়ে আনতে প্রধানমন্ত্রীর সরাসরি হসত্মক্ষেপ কামনা ও বাজার কারসাজি চক্রের বিরম্নদ্ধে দৃষ্টানত্মমূলক ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানিয়েছে। বিনিয়োগকারীরা শেয়ারবাজারের স্থিতিশীল অবস্থা ফিরিয়ে আনতে সংশিস্নষ্ট দায়িত্বশীল ব্যক্তিদের বিভ্রানত্মিকর বক্তব্য প্রদানে বিরত থাকার অনুরোধ জানিয়ে ১৬ দফা দাবি পেশ করে। রবিবার সকালে বগুড়া প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে ওই দাবি উত্থাপন করা . . .
প্রবাসী বিনিয়োগকারীরাও শেয়ার কেলেঙ্কারির শিকার
এনা, নিউইয়র্ক থেকে ॥ বাংলাদেশের শেয়ারবাজারে নজিরবিহীন ধস নামার ঘটনায় প্রবাসী বিনিয়োগকারীরাও হতাশা ব্যক্ত করেছেন। আমেরিকা প্রবাসী বিনিয়োগ ব্যবসায়ীদের পক্ষে আমেরিকা-বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি জাকির এইচ চৌধুরী এবং সেক্রেটারি নাইম টুটুল এক বিবৃতিতে ২৩ জানুয়ারি বলেছেন, অর্থনৈতিক সেক্টরের কর্মকর্তাগণের অদূরদর্শিতার জন্য ৯৬ সালেও একবার এ ধরনের ধস নেমেছিল। বিবৃতিতে অবিলম্বে এহেন পরিস্থিতির জন্য দায়ীদের বিরম্নদ্ধে শাস্তি দাবি করা হয়েছে। তাঁরা বলেছেন, আমেরিকা, যুক্তরাজ্য, কানাডা, অস্ট্রেলিয়াসহ বিভিন্ন . . .
১৮৮ আমদানিকারক দেশ সত্ত্বেও রফতানি পণ্যের ৮১ শতাংশই যায় ৪টি বাজারে
শাহ আলম খান ॥ বাংলাদেশের রফতানি পণ্যের বাজার ক্রমাগত প্রসার হচ্ছে। এখন পর্যন্ত বিশ্বের ১৮৮টি দেশে পণ্য রফতানি হচ্ছে। সংখ্যার বিচারে বিশ্ব বাজারে বাংলাদেশী পণ্যের বিচরণ ক্রমাগত বাড়ছে। তবে যে হারে বাংলাদেশী পণ্যের আমদানিকারক দেশের সংখ্যা বাড়ছে, সে অনুপাতে বাড়ছে না রফতানি পণ্যের সংখ্যা ও পণ্য রফতানির পরিমাণ। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বাজার বৈচিত্র্য ও পণ্য বৈচিত্র্যের অভাবে রফতানি পণ্যের বাজার সীমাবদ্ধ হয়ে পড়েছে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও রফতানি উন্নয়ন বু্যরো (ইপিবি) সূত্র জানায়, দেশের মোট রফতানি পণ্যের ৮০ দশমিক . . .
নগদ অর্থসঙ্কটে খাতুনগঞ্জে ব্যবসাবাণিজ্য স্থবির
টু-টু ব্যবসায়ীদের দাপট বেড়েছে
মহসিন চৌধুরী, চট্টগ্রাম অফিস ॥ ভোগ্যপণ্যের প্রধান আমদানি পণ্যের বাজার খাতুনগঞ্জে নগদ অর্থের সঙ্কটে দাদন ব্যবসায়ীদের এখন দাপট বেড়ে গেছে। ডিও বন্ধক রেখে ব্যাংক চেকের বিপরীতে টু-টু ব্যবসা চলছে চড়া লভ্যাংশে। অর্থাৎ বাকিতে মাল বিক্রির নামে দাদন ব্যবসায়ীরাই নগদ অর্থলগ্নী করে দ্বিগুণের বেশি লভ্যাংশ তুলে নিচ্ছে এ সুযোগে। এতে দেশের এ প্রধান বাণিজ্যপাড়ায় চলছে এখন চরম মন্দাভাব। নগদ অর্থের সঙ্কটে ব্যাংকগুলোতে কার্যক্রম স্থবির অবস্থা। অনুসন্ধান নিয়ে জানা যায়, খাতুনগঞ্জ, আসাদগঞ্জ, চাক্তাই, রাজাখালীতে দীর্ঘদিন . . .
বিশ্বজুড়ে গাড়ি বিক্রিতে শীর্ষে টয়োটা
বিক্রি বেড়েছে ৮ শতাংশ
অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ বিশ্বজুড়ে গাড়ির বাজারে শীর্ষ স্থান ধরে রেখেছে টয়োটা মটরস। টয়োটার যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে বিপুল সংখ্যক গাড়ি প্রত্যাহার করা সত্ত্ব্বেও এই রেকর্ড গড়ল জাপানভিত্তিক এ কোম্পানিটি। পূর্ববর্তী বছরের তুলনায় ২০১০ সালে টয়োটার গাড়ি বিক্রি বেড়েছে ৮ শতাংশ। সোমবার টয়োটার ওয়েবসাইটে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এর মাধ্যমে টয়োটা তার প্রতিদ্বন্দ্বী মার্কিন জেনারেল মোটরসকে পেছনে ফেলেছে। টয়োটার ৮৪ লাখ ইউনিটের বিপরীতে জেনারেল মোটরস বিক্রি করেছে ৮৩ লাখ ইউনিট গাড়ি। ২০০৮ সালে গাড়ি . . .